1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বৃক্ষ বাঁচাতে তৃণমূল পর্যায়ে আন্দোলন বাংলাদেশে

হারিয়ে যাওয়া বনভূমিকে আবার ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ৷ বিভিন্ন সংগঠন এগিয়ে এসেছে এই জন্য৷ তৃণমূল পর্যায়েও চলছে এ নিয়ে আন্দোলন৷

default

বনভূমিকে ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ

চারিদিকে নানা কোলাহল৷ এই কোলাহলের মাঝে আমাদের গাড়ি এসে পৌঁছালো আরিচা ঘাটে৷ পদ্মা নদীর নীলচে পানি৷ ফেরি লঞ্চ, কুলি মজুর আর ফেরিওয়ালাদের ডাকাডাকি৷ যাবো গোয়ালন্দ৷

গোয়ালন্দের একসময় পরিচিতি ছিল ইলিশ মাছ আর স্টিমার ঘাটের জন্য৷ এখন অবশ্য ইলিশ মাছের দেখা খুব একটাও পাওয়া যায় না৷ আর ইস্টিমার! সে তো উঠে গেছে অনেক আগেই৷

ফেরিতে অনেক বাস ট্রাকের সঙ্গে চড়ে বসলাম৷ নদীর পানির মধ্যে বিভিন্ন জায়গায় একটু একটু করে পিঠ উঁচু করে বের করে আছে চর৷ নদীর নাব্যতা অনেকটাই হারিয়ে যেতে বসেছে এখানে৷ তারপরও চলতে হবে, আর তাই বছর জুড়েই চলছে ড্রেজিং৷

BdT Bangladesh Fischerboote in Dhaka

ইলিশ মাছ, ফেরি লঞ্চ, কুলি মজুর আর ফেরিওয়ালাদের ডাকাডাকি

একটা সময় ছিল যখন গোয়ালন্দ ছিল বাংলাদেশের অন্যান্য জায়গার মতো সবুজ৷ ফেরি থেকে দেখা যাচ্ছে বিরান গোয়ালন্দ৷

সরকারি হিসাবে বর্তমানে বাংলাদেশে রয়েছে সবমিলিয়ে শতকরা ১৬ ভাগ বনভূমি৷ তবে পর্যবেক্ষক মহল মনে করেন, বাস্তবে বনাঞ্চলের পরিমাণ ১০ থেকে ১২ ভাগের বেশি নয়৷ বেসরকারি হিসেবে অবশ্য বলা হয় দেশে এখন ৬ দশমিক ৫ শতাংশ বনভূমি রয়েছে৷ সংরক্ষণের অভাবে অনেক ঘন অরণ্যও আজ বিরানভূমিতে পরিণত৷ সংঘবদ্ধ চক্র বনের গাছপালা উজাড় করেই ক্ষান্ত হয়নি জায়গা-জমি পর্যন্ত দখল করে নিয়েছে৷ পরিবেশ ক্ষতিগ্রস্ত করার কারণে বিশ্বের বহু বিচিত্র প্রাণী ও পাখি হারিয়ে গেছে৷ কেউ কি এ নিয়ে কোন কাজ করছে না?

Indien: Tipaimukh Damm

বাংলাদেশে রয়েছে সবমিলিয়ে শতকরা ১৬ ভাগ বনভূমি

গোয়ালন্দ বাজার সংলগ্ন শহীদ মিনারের পাশে আছে একটি সংগঠন৷ নাম গোয়ালন্দ সম্মিলিত নাট্যদল৷ তারা পথনাটক করে জনগণকে সচেতন করার উদ্যোগ নিয়েছে৷ এই সংগঠনের নেতা জালালুর রহমানের সঙ্গে কথা হলো সেখানকার একটি খোলা প্রান্তরে৷ পাখির কিচিরমিচির ছিল সর্বত্র৷ তিনি জানালেন, মানুষকে সচেতন করতে আমাদের সংগঠন কাজ করছে৷ আমাদের সংগঠনের আঠারো জন সদস্য সকলে এই প্রত্যয় নিয়ে কাজ করছে৷ পথ নাটক করে মানুষের মধ্যে পৌঁছে দেয়া হচ্ছে আমাদের বক্তব্য৷ আমরা বলছি এক একটি গাছ এক একটি অক্সিজেন ফ্যাক্টরি৷ নিজের জন্য বৃক্ষ রোপণ করুন৷ বাঁচান দেশ এবং মানুষ কে৷

Wassermassen in Nordindien

পদ্মা নদীর নীলচে পানি

তাঁকে প্রশ্ন করি মানুষ কি সচেতন হচ্ছে? তিনি জানালেন, ফলাফল আসতে শুরু করেছে৷ প্রতি বর্ষায় মানুষ নতুন নতুন গাছ লাগাচ্ছে৷ এই গাছ একদিন বড় হবে, সবুজ হবে পুরো দেশ৷

পরিবেশ সংক্রান্ত আন্তর্জাতিক তথ্য অনুযায়ী বাংলাদেশ বর্তমানে বিশ্বের সবচেয়ে পরিবেশ বিপর্যস্ত দেশ৷ সাধারণভাবে পরিবেশ ভারসাম্য রক্ষার্থে কোনো দেশের কমপক্ষে ২৫ শতাংশ বনভূমি দরকার৷ বাংলাদেশের মতো দেশে মোট কমপক্ষে ৩৫ থেকে ৪০ শতাংশ থাকা বনভূমি অপরিহার্য৷ কিন্তু বর্তমানে রয়েছে মাত্র ৬ শতাংশ৷ ১৯৭১ সালেও এই বনভূমি ১৭ শতাংশ ছিল৷ স্বাধীনতা পরবর্তীকালে অব্যাহত লুটপাটের ফলে এটা বর্তমান পর্যায়ে এসে পৌঁছেছে৷ বর্তমানে দেশে মাথাপিছু বনভূমির পরিমাণ ০.০২২ হেক্টর৷

Bangladesch Wirbelsturm Zyklon Aufräumarbeiten

গোয়ালন্দ ছিল বাংলাদেশের অন্যান্য জায়গার মতো সবুজ

প্রতিবছর উজাড় হয়ে যাচ্ছে বনভূমি৷ এই হার ৩.৩ শতাংশ৷ সুন্দরবন, পার্বত্য চট্টগ্রাম, শালবন, চকরিয়া, কক্সবাজার, ইত্যাদি বনাঞ্চল একে একে উজাড় হয়ে যাচ্ছে৷

ষাটের দশক থেকে নোয়াখালীর দক্ষিণ উপকূলে ঝড় জলোচ্ছ্বাস থেকে উপকূলবাসীদের বাঁচানোর জন্য সৃষ্টি করা হয় উপকূলীয় সবুজ বেষ্টনী৷ সে সবুজ বেষ্টনী আজ প্রায় নিশ্চিহ্ন৷ চর মজিদ, চর লক্ষ্মী, রামগতির এক ব্যাপক এলাকার বনভূমি উজাড় করে বসতি গড়ে উঠেছে৷ রাবার বাগান ও ইউক্যালিপটাস জাতীয় বিদেশি গাছ লাগানোর নামে পার্বত্য চট্টগ্রামে হাজার বছরের রেন ফরেস্ট ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে বলে অভিযোগ বনবিশেষজ্ঞদের৷ সুন্দরবনের অবস্থাও তথৈবচ৷ দিনাজপুরের ঐতিহ্য শালবনের আর দেখা মেলেনা৷ তাই বৃক্ষপ্রেমিরা বলছেন, আসুন সকলে এক হই, বৃক্ষ রোপন করি, হারানো পরিবেশকে আবারও ফিরিয়ে আনি৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন