1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বুয়েটের শিক্ষার্থী দীপের মৃত্যুতে শোকের ছায়া

প্রায় তিনমাস হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ে চলে গেলেন আরিফ রায়হান দীপ৷ যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে শাহবাগ আন্দোলনের সঙ্গে সম্পৃক্ত বুয়েটের এই শিক্ষার্থী দুর্বৃত্তের হামলায় আহত হন গত নয় এপ্রিল৷

কমিউটিনিটি বাংলা ব্লগ এবং সামাজিক যোগাযোগ সাইট ফেসবুকে দীপের মৃত্যুর প্রতিবাদে সরব অনেকে৷ সামহয়্যার ইন ব্লগে এই বিষয়ে ছোটগল্পকার রেজা ঘটকের লেখার শিরোনাম, ‘‘আমাদের আর কত দীপকে হারালে নষ্ট-ভ্রষ্ট রাজনীতি বাংলাদেশ থেকে মুছে যাবে৷'' ২রা জুলাই প্রকাশিত এই নিবন্ধে লেখক দীপের উপর হামলা এবং হামলা পরবর্তী বিভিন্ন ঘটনাপ্রবাহ বিস্তারিত তুলে ধরেছেন৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘মেজবাহ নামের যে ছেলেটি দীপকে কুপিয়েছিল, সেও বুয়েটের ছাত্র৷ তবে মৌলবাদীদের মন্ত্রে বখাটে এক অন্ধ৷''

রেজা ঘটক মনে করেন, দীপদের মতো মেধাবীদের এভাবে হারিয়ে যাওয়ার পেছনে দায়ী ‘‘নষ্ট-ভ্রষ্ট রাজনীতি৷'' তাই তিনি তাঁর নিবন্ধে ‘‘রাজনীতিবিদদের একটা ছোট্ট পরামর্শ'' দিয়েছেন৷ রেজা ঘটক লিখেছেন, ‘‘সংবিধান সংশোধন করে দুইজন প্রধানমন্ত্রী বানানোর তকমা রেডি করেন৷ ছয় বছর পর পর সাধারণ নির্বাচন করার আই(ন) বানান৷ একজন প্রধানমন্ত্রী তিন বছরের বেশি দেশ শাসন করতে পারবে না এমন করুন৷ তাইলে আপনারা ভাগাভাগি করে ছয় বছর অন্তত নিশ্চিন্তে লুটপাট করতে পারবেন৷''

Bangladesh Protest gegen Kriegsverbrecher

যুদ্ধাপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে শাহবাগ আন্দোলনের সঙ্গে সম্পৃক্ত বুয়েটের শিক্ষার্থী দীপ দুর্বৃত্তের হামলায় আহত হন গত নয় এপ্রিল (ফাইল ফটো)

কমিউনিটি ব্লগ আমার ব্লগ ডটকমে রেহান খানের লেখার শিরোনাম, ‘‘ব্যাপার নাহ! দীপ মরছে তো কি হইছে? চেতনা বাইচা থাকলেই হইলো!'' এই ব্লগার তাঁর নিবন্ধে বেশ কিছু প্রশ্ন রেখেছেন৷ তিনি লিখেছেন, ‘‘...দীপের মৃত্যু নিয়া মাতামাতি এত কম কেন? ফেসবুক স্ট্যাটাস আপডেট, প্রোফাইল পিকচার এন্ড কভার ফটো চেইঞ্জ, ব্লগ-পোস্ট, নিউজ কাভারেজ, চায়ের দোকানে আলোচনার ঝড় এত কম কেন?''

#দীপ হ্যাশট্যাগ ব্যবহার করে ফেসবুকে নাসিরুদ্দিন আহমেদ বাপ্পি লিখেছেন, ‘‘এটা হেফাজত পন্থীর কাছে ছাত্রলীগ এর মৃত্যু না..., এক বুয়েটিয়ান এর কাছে আরেক বুয়েটিয়ান এর মৃত্যু না..., খুব সহজ ছোট্ট করে বললে উগ্র ধর্মান্ধতার কাছে আমাদের সবার মৃত্যু৷'' সুব্রত দেব লিখেছেন, ‘‘দীপ তাঁর জীবন দিয়ে গেছে আন্দোলনের পথে, সংগ্রামের পথে; হায়েনাদের ফাঁসি আর কতদূর? আর কতদূর?''

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশে ডয়চে ভেলের কন্টেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমে ২রা জুলাই প্রকাশিত সংবাদ অনুযায়ী, ‘‘গত ৯ এপ্রিল নজরুল ইসলাম হলে তার (দীপ) ওপর হামলা হয়৷ এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গত ১৭ এপ্রিল মেজবাহউদ্দীন নামে বুয়েটেরই আরেক ছাত্রকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ৷ মেজবাহ হেফাজত সমর্থক বলেও পুলিশ কর্মকর্তারা দাবি করেছেন৷''

সংকলন: আরাফাতুল ইসলাম
সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন