1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

ফ্রান্স

বুর্কিনি পরা এক নারীকে বের করে দেয়ার অভিযোগ

ফ্রান্সে ছুটি কাটাতে গিয়ে মুসলিম এক নারী বুর্কিনি পরে সুইমিং পুলে সাঁতার কাটতে নেমেছিলেন৷ কিন্তু তাঁকে সেখান থেকে চলে যেতে বাধ্য করা হয় বলে অভিযোগ৷ শুধু তাই নয়, তাঁকে নাকি জরিমানাও করা হয়েছে৷

‘কালেক্টিভ অ্যাগেনস্ট ইসলামোফোবিয়া ইন ফ্রান্স’ বা সিসিআইএফ তাদের ওয়েবসাইটে এ সব তথ্য জানিয়েছে৷ সংস্থাটি বলছে, দক্ষিণ ফ্রান্সের লা সিওটা শহরে পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন ঐ নারী৷ সেখানকার এক ভ্যাকেশন হোমে বুর্কিনি পরে সুইমিং পুলে নামেন তিনি৷ কিন্তু দ্বিতীয় দিন হোমের মালিক এসে ঐ নারীকে বলেন, তিনি বাকি সময়টুকু আর পানিতে নামতে পারবেন না৷ ঐ নারী পানিতে নামায় পুলের পানি দূষিত হয়েছে অভিযোগ করে তা পরিষ্কার করার খরচও দাবি করেন মালিক৷ পরে তিনি ঐ পরিবারের জমাকৃত ৪৯০ ইউরো ফেরত দিতে অস্বীকার করেন বলে অভিযোগ উঠেছে৷

তবে সিসিআইএফ বলছে, ঐ নারী যে পোশাক পরেছিলেন সেটি অস্বাস্থ্যকর ছিল না৷ কারণ যে সিন্থেটিক কাপড় দিয়ে বুর্কিনি তৈরি হয় তা সাঁতারের অন্যান্য পোশাকেও ব্যবহৃত হয়৷

ফ্রান্সে গত গ্রীষ্মের ছুটির সময় থেকেই বুর্কিনি নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে৷ ফ্রেঞ্চ রিভেরিয়া অঞ্চলের অনেক সম্প্রদায় জনগণের জন্য উন্মুক্ত সৈকতে বুর্কিনি পরা নিষিদ্ধ করেছিল৷ কিন্তু দেশটির সর্বোচ্চ প্রশাসনিক আদালত এই নিষেধাজ্ঞা স্থগিত করে দেন৷ যুক্তি হিসেবে আদালত বলেন, এই নিষেধাজ্ঞা একজনের মৌলিক স্বাধীনতার মারাত্মক লঙ্ঘন৷

জেডএইচ/ডিজি (ডিপিএ, ইএফই)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়