1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

বুন্ডেসলিগায় বুরুসিয়া ডর্টমুন্ডের জয়

বুরুসিয়া ডর্টমুন্ডের খেলোয়াড় তালিকায় দেখা যাচ্ছে নুরি সাহিন এর নামটি বেশ খানিকটা পরেই দেখা গিয়েছিল৷ অবশ্য তিনিই এখন মূল একাদশে৷ এই নুরি সাহিনই বুরুসিয়া ডর্টমুন্ডের জয়ের নায়ক৷

default

জয়ের গোলটি করার পর মাঠের আনন্দে নুরি সাহিন

বুন্ডেসলিগার শুক্রবারের খেলাটি ছিল কোলনের মাঠে৷ রাতের বৃষ্টিবহুল খেলায় প্রতিপক্ষ ছিল তিনবারের বুন্ডেসলিগা ও চারবারের জার্মান কাপ জয়ী ক্লাব এফসি কোলন৷ খেলার প্রথমার্ধে অবশ্য দুই দল বেশ খেলছিল৷ এ কথায় যদি বলা হয় সেয়ানে সেয়ানে, তাহলে মোটেই ভুল বলা হবে না৷ তবে খেলা শুরুর ২০ মিনিটের মাথায় ডর্টমুন্ডের অন্যতম খেলোয়াড় ইয়াকুব ব্লাসকোভস্কি এগিয়ে নেন দলকে৷

মাঝ বিরতির পর তাই কোলনকে পাল্টাতে হয় খেলার ছক৷ আর এই ছকের ফলটা পেতে অপেক্ষা করতে হয় ৮২ মিনিট অবধি৷ সেই সময়েই হজম করা গোলটি ফেরত দিলো কোলনের খেলোয়াড়, জার্মানির জাতীয় দলের স্টার লুকাস পোডলস্কি৷ এরপরেই দুই দলই মরিয়া গোল করার জন্য৷ হাতে সময় কম৷ বুরুসিয়া ডর্টমুন্ড ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি সুযোগ হেলায় হারালো৷ স্টেডিয়ামের অন্তত ৫০ হাজার দর্শকের রুদ্ধশ্বাস অপেক্ষা৷

শেষ বাঁশি বাঁজবার আগে কয়েক মিনিট ইনজুরি টাইম বা অতিরিক্ত সময়ের খেলা৷ ঠিক এই সময়েই গোলটি করেন নুরি সাহিন৷ এর পরপরই রেফারির বাঁশির দীর্ঘ আওয়াজ৷ খেলা শেষ৷ জিতে গেলো জার্মানির ডর্টমুন্ড শহরের শত বছরের পুরানো ফুটবল দল বুরুসিয়া ডর্টমুন্ড৷

আট খেলায় বুরুসিয়া ডর্টমুন্ডের সংগ্রহ ২১ পয়েন্ট৷ অর্থাৎ তারাই শীর্ষে৷ গত মৌসুমে বুন্ডেসলিগার টেবিলের পঞ্চম স্থানে ছিল তারা৷ নব্বই দশকে ক্লাবটি বেশ সাড়া জাগিয়েছিল একাধিকবার বুন্ডেসলিগার শিরোপা ও জার্মান সুপার কাপ জয় করে৷ আর এফসি কোলনের অবস্থান ১৬তম৷ আট খেলায় তাদের রয়েছে মাত্র পাঁচ পয়েন্ট৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: রিয়াজুল ইসলাম

সংশ্লিষ্ট বিষয়