1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

বুন্ডেসলিগায় একমাত্র নারী এজেন্ট সামিরা সামি

জার্মানির অনেক খেলোয়াড়ের এজেন্ট রয়েছে৷ সামিরা সামিও একজন এজেন্ট৷ তবে তাঁর বিশেষত্ব হচ্ছে জার্মানিতে এই পেশায় একমাত্র নারী তিনি৷ ব্যতিক্রমী এই কাজ বেছে নিতে তাঁকে সহায়তা করেছে তাঁর পারিবারিক ঐতিহ্য৷

জার্মানির ফুটবল মাঠে কেউ হয়তো সামিকেই প্রথমে দেখতে চাইবে না৷ তাঁর পরিচ্ছন্ন পোশাক এবং মেক-আপ ঠিক ফুটবল মাঠের সঙ্গে মানানসই নয়৷ তবে ছয় ভাষায় পারদর্শী এবং সদালাপী এই নারী খেলোয়াড়দের এজেন্ট হিসেবে কাজ করতে ভালোবাসেন৷

ইরানের সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম নেওয়া সামি চাইলে অন্য ক্যারিয়ারও বেছে নিতে পারতেন৷ কিন্তু সেটা তিনি করেননি৷ কারণটাও জানালেন ডয়চে ভেলেকে৷ তিনি বলেন, ‘‘সত্যি বলতে কি অন্য কোনো খেলায় নিজের ইমোশন সেভাবে প্রকাশ সম্ভব নয়, যেভাবে ফুটবলে সম্ভব৷ নিজের সব ক্লান্তি, সমস্যা ভুলে গিয়ে উৎসবে মেতে ওঠা যায়৷ আর একজন নারী হিসেবে পুরুষের আধিপত্যে থাকা এক জগতে নিজেকে সফলভাবে প্রতিষ্ঠার মধ্যে বাড়তি রোমাঞ্চতো রয়েছেই৷''

জার্মানির ফুটবল জগতে ১৪০ জনের মতো এজেন্ট রয়েছেন৷ এদের মধ্যে একমাত্র নারী সামিরা সামি৷ ৩৬ বছর বয়সি সামি টিউনিশিয়া এবং হের্থা বার্লিনের খেলোয়াড় সামি আলাগুই এর এজেন্ট৷ গত কয়েক মৌসুম ধরেই তাঁর এজেন্ট হিসেবে রয়েছেন সামি৷ পাশাপাশি তিনি জার্মান ফুটবলার পেয়ার মার্টেসাকারের দাতব্য সংস্থার দূত হিসেবেও কাজ করছেন৷ এই সংস্থা মূলত শিশুদের সাহায্য করে এবং যুবক্রীড়াকে উৎসাহ দেয়৷

সামি পরামর্শক হিসেবে সাবেক ফুটবলার আন্দ্রেয়াস ব্রেমে এবং গ্রাসহপার্স সুরিশ কোচ সিরিয়াকো স্ফ্রৎসার সঙ্গেও কাজ করেছেন৷ মোটের উপর বিখ্যাত ফুটবলার লোথার মাথেউসের সঙ্গেও পেশাগত যোগাযোগ রয়েছে তাঁর৷

Samira Samii

তাঁর পরিচ্ছন্ন পোশাক এবং মেক-আপ ঠিক ফুটবল মাঠের সঙ্গে মানানসই নয়

অবশ্য শুধু পেশাগত সম্পর্ক নয়, ফুটবল খেলোয়াড়দের সঙ্গে ব্যক্তিগত সম্পর্কেও জড়িয়েছেন সামি৷ ইরানের সাবেক অধিনায়ক এবং হামবুর্গের খেলোয়াড় মেহেদী মাডাভিকিয়াকে বিয়ে করেছিলেন তিনি৷ তাঁর ব্যক্তিগত বন্ধুর তালিকায় আরো অনেক খেলোয়াড় রয়েছেন৷

সামির এই এজেন্ট হওয়ার পেছনে পারিবারিক কারণও রয়েছে৷ তাঁর বাবা একজন নামকরা চোখের ডাক্তার৷ ইরান এবং মধ্যপ্রাচ্যের অনেক দেশে তাঁর রোগী রয়েছে৷ এই তালিকায় আছেন দিয়াগো মারাদোনার মতো খেলোয়াড়ও৷ সামি বলেন, ‘‘পরিবারের কারণে অনেক ফুটবলার, অনেক ক্লাবের সঙ্গে আমার যোগাযোগ তৈরি হয়েছে৷''

বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ক্লায়েন্টদের সঙ্গে সামি অধিকাংশ সময়ই তাদের মাতৃভাষায় কথা বলেন৷ ইংরেজি, জার্মান, ফরাসি, ফার্সি, ইটালীয় এবং স্প্যানিশ ভাষা জানেন তিনি৷ তেহরানে জন্ম হলেও বেড়ে উঠেছেন ক্যানাডা এবং ফ্রান্সে৷ আন্তর্জাতিক পর্যটন এবং স্পোর্ট ম্যানেজমেন্ট নিয়ে জার্মানি এবং ক্যানাডায় লেখাপড়া করেছেন তিনি৷

বলাবাহুল্য, জার্মানির ফুটবল আঙ্গিনায় একমাত্র নারী এজেন্ট হিসেবে কাজ করাটা সামির জন্য মোটেই সহজ নয়৷ তাসত্ত্বেও তিনি অন্য কোথাও যেতে রাজি নন৷ বরং তিনি চান বুন্ডেসলিগায় আরো বড় পরিসরে তাঁর মেধা কাজে লাগাতে৷ তিনি বলেন, ‘‘কোনোদিন কোনো বুন্ডেসলিগা ক্লাবের স্পোর্ট ডিরেক্টর হতে পারলে আমার স্বপ্ন পূরণ হবে৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়