1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বিয়ের অভিযোগ অস্বীকার করলেন শোয়েব মালিক

ভারতীয় টেনিস তারকা সানিয়া মির্জার সঙ্গে হায়দ্রাবাদে পাকিস্তানি ক্রিকেটার শোয়েব মালিকের বিয়ে নিয়ে অভিযোগ ও পাল্টা অভিযোগের পালা জমে উঠেছে যেন বলিউড ফিল্মের এক চিত্রনাট্যের ঢঙে৷

default

সানিয়া মির্জার সঙ্গে বিয়ে! এই হাসি অম্লান থাকবে তো মালিকের?

সোমবার হায়দ্রাবাদে পাকিস্তানি ক্রিকেটার শোয়েব মালিক তাঁর হবু বৌ সানিয়া মির্জাকে পাশে নিয়ে আয়েশাকে বিয়ে করার অভিযোগ অস্বীকার করে সংবাদ মাধ্যমের সামনে বলেন, এই অভিযোগ সত্যি কিনা তা প্রমাণ হবে আদালতে৷ তা না হওয়া অবধি আমাকে কেউ স্পর্শ করতে পারবেনা৷ আমার নাম ক্লিয়ার না করে আমি এদেশ ছাড়বো না৷ উল্লেখ্য, শোয়েব মালিকের পাশপোর্ট জমা রেখেছে পুলিশ৷ হবু স্বামীকে আগাগোড়া সমর্থন করে সানিয়া বলেন, পুলিশ তদন্ত করছে৷ সত্য বেরিয়ে আসবে৷ তার আগে শোয়েবের বিরুদ্ধে নেতিবাচক ছবি তুলে না ধরার জন্য সংবাদ মাধ্যমগুলিকে অনুরোধ করেন সানিয়া৷ বলেন, বিয়ের তারিখ এখনও পর্যন্ত ১৫ই এপ্রিল৷ তারিখ পাল্টালে জানানো হবে৷

আইনি বিশেষজ্ঞরা অবশ্য মনে করেন, আইনের মারপ্যাঁচে একবার পড়লে তা থেকে বেরিয়ে আসা সময়সাপেক্ষ৷ ১০ দিনের মধ্যে আদালতে ফয়সালা হলে তা হবে ব্যতিক্রম৷ শোয়েব বলেন, তিনি নতুনদিল্লির পাকিস্তানি হাই কমিশনারের সঙ্গে এবিষয়ে যোগাযোগ করেছেন এবং তিনি সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন৷

আয়েশার পরিবার কিন্ত শোয়েবকে এত সহজে ছাড় দিতে নারাজ৷ আয়েশার বাবা এম.এ সিদ্দিকি সোমবার হায়দ্রাবাদ পুলিশের কাছে তাঁর মেয়ের সঙ্গে ধোঁকাবাজি এবং শারীরিক, মানসিক নিপীড়নের অভিযোগ দায়ের করেন শোয়েবের বিরুদ্ধে৷ সিদ্দিকির পারিবারিক বন্ধু ডাঃ বাবর সোমবার সংবাদ মাধ্যমের কাছে বলেন, এই নিয়ে কাদা ছোঁড়াছুড়ি চান না তাঁরা, যদি শোয়েব সর্বসমক্ষে তাঁর নিকার কথা স্বীকার করে নিয়ে তালাক চায়৷ নাহলে আইনি প্রক্রিয়ায় শোয়েবের জীবন হয়ে উঠবে দুর্বিষহ৷ আদালতে অভিযোগ প্রমাণিত হবে কিনা জিজ্ঞাসা করায় তিনি বলেন, তাঁদের হাতে এক নয় একাধিক প্রমাণ আছে৷ নিকাহনামা থেকে সহবাস সব কিছু৷

মোটকথা, কে সত্যি, কে মিথ্যা আদালত না বলা পর্যন্ত শোয়েবকে খেলতে হবে ব্যাকফুটে৷

প্রতিবেদক : অনীল চট্টোপাধ্যায়

সম্পাদনা : আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়