1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বিড়াল বাঁচাতে গিয়ে বিপাকে ইংলিশ ক্রিকেটার

নিজের পোষা বিড়ালকে বাঁচাতে গিয়ে ঝামেলা টেনে আনলেন ইংলিশ ক্রিকেটার গ্রেহেম সোয়ান৷ এজন্য থানা পর্যন্ত দৌড়াতে হয়েছে তাঁকে৷ তাতেও সমস্যার সুরাহা হয়নি৷ বিষয়টি গড়িয়েছে আদালতেও৷

default

এবার ব্যাটিং’এ একটু ভুল করে ফেললেন গ্রেহেম সোয়ান

ঘটনাটি গত এপ্রিল মাসের৷ মধ্যরাতে ঝড়ের বেগে পর্শে হাঁকিয়ে নটিংহ্যামে নিজের বাড়িতে ফিরছিলেন সোয়ান৷ স্পিড লেভেলের দিকে খেয়ালই ছিল না৷ যা হওয়ার তাই হলো, পুলিশ আটকে দিল৷ নিয়ে গেল থানায়৷ সোয়ানের হাতে ছিল একগুচ্ছ স্ক্রু ড্রাইভার৷ তিনি জানালেন, এই স্ক্রু ড্রাইভার কেনার জন্যই তাঁর এই নিশি অভিযান৷

রাতে স্ক্রু ড্রাইভারের কী প্রয়োজন পড়ল – তাও জানালেন সোয়ান৷ বললেন, সব বিড়ালটির জন্য৷ আসলে নিজের জন্মদিনের পার্টি থেকে অনেক রাতে ফিরেছিলেন সোয়ান, সঙ্গে ছিলেন স্ত্রী সারা৷ বাড়ি ফিরে দেখেন নয় মাস বয়সি পোষা বিড়ালটি আটকে গেছে মেঝের পাটাতনের নিচে৷ একে উদ্ধার করতে কিছুক্ষণ কসরত করে ব্যর্থ হলেন সোয়ান৷ স্ক্রু ড্রাইভারের প্রয়োজন পড়ল, কিন্তু ঘরে খুঁজে একটিও পেলেন না৷ অগত্যা বের হতে হল বাইরে৷ স্ক্রু ড্রাইভার কিনেই বাড়ি ফেরার পথে পুলিশ তাঁকে আটকায়৷

Vogelgrippe jetzt Katzengrippe

অসহায় বিড়ালটিকে বাঁচাতেই এত কাণ্ড

পুলিশ কর্মকর্তা স্টিভেন ডেনিস বলছেন, রাতের বেলা সোয়াইনকে ঠিক চেনা যাচ্ছিল না৷ শুধু দেখা যাচ্ছিল, একজন দ্রুত গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছেন, আর তার হাতে একগুচ্ছ স্ক্রু ড্রাইভার৷ মনে হচ্ছিল, গাড়ি চুরি করে কেউ পালাচ্ছে৷ ওই এলাকাটিতে গাড়ি চুরির ঘটনা প্রায়ই ঘটে বলে পুলিশ জানায়৷

ধরা পড়ার পর স্ক্রু ড্রাইভার জটিলতার অবসান ঘটলেও দেখা দেয় অন্য সমস্যা৷ পার্টিতে সোয়ানের মদ্যপানের মাত্রাটা একটু বেশিই ছিল, অন্তত গাড়ি চালানোর জন্য৷ আইনে আছে, প্রতি ১০০ মিলিলিটার রক্তে অ্যালকোহলের পরিমাণ ৮০ মিলিগ্রামের নিচে থাকলে গাড়ি চালানো যাবে৷ সোয়ানের রক্তে তা পাওয়া গেছে একটু বেশি, ৮৩ মিলিগ্রাম৷ তাতেই বেঁধেছে বিপত্তি৷ আর তা আদালত পর্যন্ত নিয়েছে সোয়ানকে৷ গত সোমবার কাঠগড়ায় দাঁড়িয়ে নিজের বক্তব্য তুলে ধরেন এই টেস্ট ক্রিকেটার৷ তাঁর আইনজীবী ফিলিপ লুকাস অবশ্য বলছেন, সোয়ানের কিছু হবে না৷ কারণ পুলিশ বিধি মেনে তাঁকে গ্রেপ্তার করেনি৷

এই অপরাধের জন্য আর কিছু হোক বা না হোক, হয়রানিতে তো পড়তে হলো সোয়ানকে৷ সোমবারের শুনানির পর আদালত আগামী ৭ অক্টোবর শুনানির পরবর্তী দিন ঠিক করেছে৷ মাত্র ২২ টেস্টে ৯৭ উইকেট নিয়ে আইসিসি ব়্যাংকিংয়ে বোলারদের মধ্যে তৃতীয় অবস্থানে আছেন সোয়ান৷ তাই অফ স্পিনারের এই খবরটি বেশ গুরুত্ব নিয়েই এসেছে সংবাদ মাধ্যমগুলোতে৷ তবে সোয়ানের বিড়ালটির কী হল, তাকে উদ্ধার করা গিয়েছিল কিনা, সে সম্পর্কে কিছুই ছাপা হয়নি৷ হয়তো মনিবের মতো তারকাখ্যাতি নেই বলে৷

প্রতিবেদন: মনিরুল ইসলাম
সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন