1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস

কস্টারিকায় ইউনেস্কোর সহায়তায় শুরু হয়েছে একটি আয়োজন৷ ২রা থেকে ৪ঠা মে সান হোসেতে তিন দিনের এক আয়োজনের মাধ্যমে উদযাপন করা হচ্ছে ২০তম ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম ডে৷ ৩রা মে’কে ঘিরেই বসেছে এ আয়োজন৷

১৯৯৩ সালে জাতিসংঘের সাধারণ সভায় ‘ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম ডে' অথবা বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবসের স্বীকৃতি দেয়া হয় ৩রা মে'কে৷ সেই থেকে প্রতি বছরই পালিত হয় দিনটি৷ সারা বিশ্বে মত প্রকাশের স্বাধীনতা, সাংবাদিকতায় বাধা-বিপত্তি, সাংবাদিকদের ওপর আক্রমণ, হত্যা – এদিন সবই উঠে আসে আলোচনায়৷ এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য বিষয় ‘সমাজ পরিবর্তনে গণমাধ্যমের ভূমিকা'৷

‘ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম ডে' ২০ বছরে পা দিল এ বছর৷ এই ২০ বছরে সাংবাদিকদের জীবন অনেক ক্ষেত্রেই হয়েছে আগের তুলনায় অনেক বেশি ঝুঁকিপূর্ণ৷ দায়িত্ব পালনের সময়ে সাংবাদিকদের ওপর হামলার ঘটনা অনেক দেশে বেশ বেড়েছে৷ এমন ঘটনা বাংলাদেশে কয়েক বছর ধরেই আশঙ্কাজনক হারে ঘটছে৷ সাগর-রুনিসহ আগের বেশ কয়েকজন সাংবাদিক হত্যার আসামী ধরা পড়েনি, নিহতদের পরিবার সুবিচার পাননি

সাম্প্রতিক কালে বাংলাদেশে বেশি আলোচিত ব্লগারদের গ্রেপ্তারের বিষয়টি৷ তাঁদের গ্রেপ্তারের যৌক্তিকতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে, পুলিশ তাদের যেভাবে জনসমক্ষে হাজির করেছে তা আইনসম্মত বা মানবিক নয় – এমন সমালোচনাও হয়েছে৷ এ বছর এক নারী সাংবাদিককে প্রকাশ্য রাজপথে পেটানোর ঘটনাও ঘটেছে বাংলাদেশে৷ হেফাজতে ইসলামীর সমাবেশে দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে হামলার শিকার হন নারী সাংবাদিক নাদিয়া শারমিন৷ এমন ঘটনা নিশ্চয়ই ওয়ার্ল্ড প্রেস ফ্রিডম ডে – উদযাপনের মাঝেও মানবতাবাদী প্রতিটি মানুষ, বিশ্বের প্রতিটি সৎ, নিষ্ঠাবান সাংবাদিকের জন্য চরম হতাশার৷

এসিবি/ডিজি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক