1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল নগরী আফ্রিকার লুয়ান্ডা

বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহর কোনটি - প্রশ্ন করা হলে সবার মনেই ভেসে উঠবে লন্ডন, টোকিও, জেনেভা কিংবা নিউ ইয়র্কের নাম৷ অথচ সঠিক উত্তর এর কোনোটিই নয়৷

default

সবচেয়ে ব্যয়বহুল নগরী লুয়ান্ডা

সবচেয়ে ব্যয়বহুল নগরীটি ইউরোপ কিংবা আমেরিকার নয়, নয় এশিয়ারও৷ বাকি রইলো আফ্রিকা৷ হ্যাঁ, আফ্রিকারই একটি নগরী এটি৷ তা হলো লুয়ান্ডা, অ্যাঙ্গোলার রাজধানী৷ আর লুয়ান্ডার ঠিক উল্টো অবস্থা পাকিস্তানের করাচির৷ সেখানে ব্যয় সবচেয়ে কম৷ আর্থিক বিষয় সংক্রান্ত পরামর্শক প্রতিষ্ঠান মারসার জরিপ চালিয়ে পেয়েছে এই তথ্য৷

এই প্রথম বিশ্বের সবচেয়ে ব্যয়বহুল ১০ নগরীর তালিকায় দেখা গেলো আফ্রিকার তিনটি শহরকে৷ যার মধ্যে লুয়ান্ডা তো টোকিওকে পেছনে ফেলে একেবারে শীর্ষে৷ তৃতীয় স্থানটিও আফ্রিকার আরেক দেশ চাদের রাজধানী এনজামেনার শীর্ষ দশে সপ্তম স্থান নিয়ে আফ্রিকার তৃতীয় দেশটি হচ্ছে গাবনের লিব্রেভেলে৷

তালিকায় এই উত্থান অন্ধকারাচ্ছন্ন মহাদেশ বলে এক সময় পরিচিত আফ্রিকার সাম্প্রতিক উন্নয়নের চিত্রই তুলে ধরে বলে মনে করা হচ্ছে৷ মারসারের এই জরিপের মূল দায়িত্ব যিনি পালন করেছেন, সেই নাথালি কনস্ট্যানটিন মেটরাল বলেন, অর্থনৈতিক দৃষ্টিকোণ থেকে আফ্রিকা বেশ গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে৷ অনেক কোম্পানি এখন সেখানে বিনিয়োগের জন্য ছুটছে৷

Panoramabild von Tokio Hochhäuser

দ্বিতীয় সর্ব্বোচ্চ ব্যয়বহুল নগরী টোকিও

শীর্ষ দশে এশিয়ার শহর রয়েছে তিনটি৷ এর মধ্য জাপানেরই দুটি৷ টোকিও বাদে অন্য শহরটি হলো ওসাকা৷ এর স্থান ষষ্ঠ৷ অষ্টম স্থানে রয়েছে হংকং৷ অল্পের জন্য শীর্ষ দশে স্থান করে নিতে পারেনি সিঙ্গাপুর৷ তার স্থান একাদশ৷

২১৪টি শহরের ওপর জরিপ চালিয়ে মঙ্গলবার তার ফলাফল প্রকাশ করে মারসার৷ বাড়ি ভাড়া, গাড়ি ভাড়া, বিনোদন ব্যয়, খাদ্য ও পোশাকের দামসহ অন্তত ২০০টি বিষয়ে খরচের তুলনা করে চূড়ান্ত করা হয় এই তালিকা৷

ইউরোপের সবচেয়ে ব্যয়বহুল নগরী হলো মস্কো, এর স্থান চতুর্থ৷ এর পরের স্থানটি জেনেভার৷ হংকংয়ের সঙ্গে যৌথভাবে অষ্টম স্থানে আছে সুইজারল্যান্ডের জুরিখ এবং দশম স্থানে ডেনমার্কের রাজধানী কোপেনহেগেন৷ লন্ডন আর প্যারিস যৌথভাবে আছে সপ্তদশ স্থানে৷

তালিকায় থাকা ভারতের দিল্লি, মুম্বাই ও ব্যাঙ্গালোরের স্থান যথাক্রমে ৮৫তম, ৮৯তম এবং ১৯০তম৷ চীনের বেইজিং আছে ষষ্টদশ স্থানে, সাংহাই ২৫তম স্থানে৷ নাথালি বলেন, মন্দা কাটিয়ে এই বছরের শুরুতে অর্থনীতি একটু সুস্থির হওয়া শুরু করায় এশিয়ার দেশগুলোতে বাড়ি ভাড়া বেশ বেড়ে গেছে৷

মধ্যপ্রাচ্যের সবচেয়ে ব্যয়বহুল নগরী তেল আভিভ৷ এর স্থান ১৯তম৷ আবুধাবি ও দুবাইয়ের স্থান যথাক্রমে ৫০তম এবং ৫৫তম৷ মধ্যপ্রাচ্যে জীবযাত্রার জন্য সবচেয়ে সস্তা নগরী হলো লিবিয়ার রাজধানী ত্রিপোলি৷ গোটা আমেরিকার মধ্যে ব্রাজিলের সাও পাওলো সবচেয়ে ব্যয়বহুল নগরী৷ তার স্থান ২১তম৷ এর চেয়ে ছয় ধাপ পরে আছে নিউ ইয়র্ক৷ আর লস এঞ্জেলেস আছে ৫৫তম স্থানে দুবাইয়ের সঙ্গে৷

নাথালি বলেন, অনেকের ধারণা উন্নয়নশীল বিশ্বে ব্যয় তুলনামূলক কম৷ তবে যারা এসব স্থানে কাজ করেন, তাঁরা ভিন্ন অভিজ্ঞতার সম্মুখীনই হয়েছেন৷

প্রতিবেদন: মনিরুল ইসলাম

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়