1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

‘বিশ্বব্যাপী পানি সংকটের জন্য দায়ী বলিউড’

বিশ্বব্যাপী চলছে নিরাপদ এবং সুপেয় পানির সংকট৷ আর এই সংকটের অবসান কল্পে চলছে কতই না চেষ্টা৷ বিজ্ঞানীরাও ব্যস্ত এই সংকটের তত্ত্ব তালাশে৷

default

এই বিষয়ে নানা অনুসন্ধান সংবাদপত্রগুলোরও৷ পাকিস্তানের উর্দু ভাষার দৈনিক জং গতকাল মঙ্গলবার এ ধরণের একটি সংবাদ পরিবেশন করেছে৷ যে সংবাদে তাদের ভাষ্য, ধরিত্রীর এ জলসংকটের জন্য বলিউডের সিনেমাগুলো দায়ী! বিশ্বাস করুন আর নাই করুন এই সংবাদই জানিয়েছে জং৷ নানা ধরণের হিসাব নিকাশ দিয়েছে তারা৷ বলেছে, বলিউডের সিনেমাগুলোতে পানির মতো যেমন অর্থ খরচ হচ্ছে, তেমনি পানিও খরচ হচ্ছে দেদারছে৷ আর এটা নাকি বলিউডের প্রযোজক-পরিচালকদের অভ্যাস-মন্তব্য তাদের৷ এ ক্ষেত্রে বেশ কিছু উদাহরণও পাঠকদের সামনে উপস্থাপন করেছে জং৷

চলতি সময়ে সুপারহিট সালমান খান অভিনীত ছবি ‘দাবাং'-এর একটি দৃশ্যে নতুন নায়িকা সোনাক্ষী সিনহা বৃষ্টিতে ভিজেছেন৷ আর এই ভেজার কাহিনীটি চিত্রায়ণ করতে ১ লাখ ৮০ হাজার লিটার পানি খরচ করতে হয়েছে! আরও কয়েকটি উদাহরণ দিয়েছে তারা৷ ২০০৭ সালের বন্যার উপর একটি ছবিতে নাকি খরচ করা হয়েছে ৩৬ লাখ লিটার পানি৷ আর শাহরুখ খান অভিনীত ‘মাই নেম ইজ খান' ছবিতে নাকি খরচ করা হয়েছে ২৪ লাখ লিটার পানি৷

ছবিতে ব্যবহৃত এই পানি নাকি সাধারণ পানি নয়৷ মানে নদী থেকে নিয়ে এলাম আর ছেড়ে দিলাম এমনটা নয়৷ এগুলো যথাযথভাবে পরিশোধন করা এবং জীবাণুমুক্ত! ফলে এই কাজেও ব্যাপক অর্থ খরচ হচ্ছে৷ আর এ ধরণের সুপেয় পানি নাকি ভারতের অনেক মানুষই পাননা, জানাচ্ছে জং৷ অবশ্য জেমস ক্যামেরনের টাইটানিককেও টেনে এনেছে তারা৷ তুলনা করে জানিয়েছে, ঐ ছবিতে নাকি খরচ হয়েছে মাত্র সাড়ে চার লাখ লিটার পানি!

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম