1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বিশ্বজুড়ে অ্যামনেস্টির ৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী

শনিবার মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল পালন করছে তার ৫০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী৷ পৃথিবীর প্রতিটি প্রান্তে মহা সমারোহে পালন করা হচ্ছে দিনটি৷ বিশ্বে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠায় সবসময়ই সোচ্চার অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল৷

Logo Amnesty International 2002

১৯৬১ সালের ২৮শে মে লন্ডনে পিটার বেনেনসন স্থাপন করেন এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যশনাল৷ পেশায় তিনি ছিলেন আইনজীবী৷ কিন্তু শুরু হয়েছিল কীভাবে?

১৯৬১ সাল, পর্তুগাল তখনো একনায়ক আন্তোনিও দো অলিভিয়েরা সালাজারের অধীনে৷ লিসবনের একটি বারে বসে দুই পর্তুগিজ তরুণ ‘স্বাধীনতা' কথাটা উচ্চারণ করে তুলে ধরেছিল পানপাত্র৷ সঙ্গে সঙ্গে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়৷ তাদের কথা ছাপানো হয় পত্রিকায়৷

এই দুই তরুণের মুক্তির দাবি জানিয়ে পিটার বেনেনসন শুরু করেন অ্যামনেস্টির কাজ৷ চলে প্রচারাভিযান, নাম অ্যামনেস্টির আবেদন৷ শুরু হয় পথচলা৷ তিনি নিজে ‘দ্যা অবজারভার, উইকএন্ড রিভিউ'-তে দুই তরুণের মুক্তির দাবিতে একটি লেখা ছাপেন৷ শিরোনাম দেন ‘ভুলে যাওয়া বন্দীদের কথা' লিখে৷

আজ আর্জেন্টিনা থেকে শুরু করে নিউজিল্যান্ড পর্যন্ত অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন করা হচ্ছে৷ অত্যাচার এবং অনাচারের প্রতিবাদে সবাইকে এগিয়ে আসতে উদ্বুদ্ধ করছে এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল৷

বর্তমানে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের পাশে দাঁড়িয়েছে পৃথিবীর ১৫০টি দেশ৷ রয়েছে ৩০ লক্ষেরও বেশি সমর্থক এবং কর্মী৷ এর মধ্যে প্রায় ৬২টি দেশে বেশ ঘটা করেই পালন করা হবে এই সংস্থার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী৷

অ্যামনেস্টি ইন্টান্যাশনালের মহাসচিব সলিল শেঠি বেশ গর্বের সঙ্গে জানান, পঞ্চাশ বছর ধরে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল অন্যায়-অনাচার রোধ করতে এবং মানবাধিকার প্রতিষ্ঠার দাবিতে লড়ে যাচ্ছে৷ এই সংস্থাটি দেখিয়েছে যে পরিবর্তন আনা সম্ভব এবং তা শুধুমাত্র মানুষই আনতে পারে৷ তবে তার জন্য চাই একাত্মতা, সহমর্মিতা, আত্মবিশ্বাস এবং অন্যকে সাহায্য করার মানসিকতা৷ তাহলেই কোন সীমানা আর সীমানা মনে হবে না, যে কোন বাধা সরে যাবে দুর থেকে দূরান্তে৷

প্রতিবেদন: মারিনা জোয়ারদার

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়