বিশ্বকাপের প্রথম অঘটনটা ঘটালো আয়ারল্যান্ড | খেলাধুলা | DW | 02.03.2011
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

বিশ্বকাপের প্রথম অঘটনটা ঘটালো আয়ারল্যান্ড

একটু আগেও লিখেছিলাম যে, এবারের বিশ্বকাপে তেমন কোন অঘটন ঘটছে না৷ সেই কথার কারণেই কিনা, ইংল্যান্ডকে দুর্দান্তভাবে হারিয়ে বিশ্বকাপের প্রথম অঘটনটা ঘটিয়ে ফেললো আয়ারল্যান্ড, ইংলিশদের ৩২৭ রান টপকে৷

default

এর আগে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে খেলতে নেমে প্রায় হেরেই বসছিলো ইংলিশরা৷ সেই ম্যাচেও শতক হাকিয়েছিলেন ডাচ ব্যাটসম্যান ডোয়েশাটে৷ কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা আর যথেষ্ট হয়নি৷ কোনভাবে ম্যাচটি জিতে ইংলিশরা৷ কিন্তু এবার আর তা হতে দিলেন না আইরিশ ব্যাটসম্যান কেভিন ওব্রায়ান৷ বিশ্বকাপের ইতিহাসে সবচেয়ে দ্রুত গতির সেঞ্চুরি করেই কেবল ক্ষান্ত থাকেন নি, দলকে জয়ের দ্বারপ্রান্ত পর্যন্ত নিয়ে গিয়ে তবেই থেমেছেন৷ ইংলিশ বোলিংকে একরকম তছনছ করে দিয়েছেন এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান৷ হাফ সেঞ্চুরি করতে সময় নেন ৩০ বল, এরপর যেন আরও ধারালো হয়ে ওঠে তার ব্যাট৷ মাত্র ৫০ বলে সেঞ্চুরি করেন তিনি৷ এর মধ্যে বাউন্ডারি ১৩ টি এবং ওভার বাউন্ডারি ছয়টি৷ অর্থাৎ ১০০'এর মধ্যে কেবল ৮৮ রান করেছেন তিনি চার ছক্কা মেরে৷

অথচ ইংল্যান্ডের ৩২৭ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রথম বলেই উইকেট হারায় আইরিশরা৷ তখন অনেকেই ভেবেছিলেন আর অন্যসব ম্যাচের মতোই বুঝি হতে যাচ্ছে এটি৷ ২৩তম ওভারে ১০৬ রানে চতুর্থ উইকেটের পতনের পর ক্রিজে আসেন কেভিন ওব্রায়ান৷ এরপর থেকেই পুরো ম্যাচের দৃশ্য পাল্টে যায়৷ ইংলিশ বোলারদের এতটা অসহায় নিকট ইতিহাসে আর কখনোই মনে হয়নি৷ ওব্রায়ানের পাশাপাশি জন মুনির ব্যাটও যেন সপাটে চলছিল৷ মাত্র ৬৩ বলে ১১৩ রান করে ৪৯তম ওভারের প্রথম বলে রান আউট হয়ে যান ওব্রায়ান৷ দলের তখন দরকার ১১ বলে ১১ রান৷ প্রথম বলেই জন্সটনের দারুণ বাউন্ডারি, মূলত তখনই খেলা হাতছাড়া হয়ে যায় ইংল্যান্ড দলের৷ শেষ ওভারের প্রথম বলেই মুনির শট, বল মাঠের বাইরে৷ আর এবারের বিশ্বকাপের প্রথম অঘটন৷ তিন উইকেটে জয় পেল আয়ারল্যান্ড৷

এর আগে নির্ধারিত ৫০ ওভার শেষে ইংল্যান্ড তুলে আট উইকেটে ৩২৭ রান৷ তবে এই রান আরও বাড়তে পারতো যদি শেষ দিকে দ্রুত উইকেটের পতন না হতো৷ শুরুতে স্ট্রস এবং পিটারসন বেশ ভালোভাবেই শুরু করেন৷ দুই ওপেনার আউট হওয়ার পর বেলকে সঙ্গে নিয়ে ১৬৭ রানের জুটি গড়ে তোলেন ট্রট৷ মাত্র ৮ রানের জন্য সেঞ্চুরি থেকে বঞ্চিত হন ট্রট৷ অন্যদিকে বেল করেন ৮১ রান৷ আয়ারল্যান্ডের জন মুনি ৬৩ রানে চারটি উইকেট নেন৷

প্রতিবেদন: রিয়াজুল ইসলাম

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ