1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

বিশুদ্ধ পানি, ট্যাপে নাকি বোতলে?

ইটালির নামকরা সুপার মার্কেটটি অভিনব এক বিজ্ঞাপন দেওয়া শুরু করেছে৷ তারা ক্রেতাদের মিনারেল ওয়াটার কিনতে উদ্বুদ্ধ করছেনা৷ বরং তা কিনতে মানা করছে৷ অবশ্য এই বিজ্ঞাপনের নেপথ্যে রয়েছে তাদের পণ্য বিক্রিরই চেষ্টা৷

default

মিনারেল ওয়াটার খাবেন না!

বলা হয়, ইটালির মানুষ সবচেয়ে বেশি বোতলের পানি বা অ্যাকুয়া মিনারেল পান করে৷ বিশ্বের অন্য যে কোনো দেশের মানুষের চেয়ে এই দিক থেকে তারা আছে এগিয়ে৷ প্রতিবছর ইটালিতে জনপ্রতি বোতলের পানি খাওয়ার পরিমাণ প্রায় দুইশ' লিটার৷ সারাদেশে প্রতিবছর প্রয়োজন হয় বারো বিলিয়ন লিটার পর্যন্ত বোতলের পানি৷

রোমের শেষ প্রান্তের একটি সুপার মার্কেট৷ এক তরুণী এখানে পানির বোতল কিনছেন৷ তিনি বলছেন, এখন তাঁকে ট্রেনে চাপতে হবে৷ সেইজন্যই পানির বোতলটি কিনলেন৷ তিনি যতক্ষণ অফিসে থাকেন ততক্ষণ বোতলের পানিই খান৷ তাই অনেকের মতেই বোতলের পানির স্বাদ ভালো৷ এবং এতে সামাজিক একটা স্ট্যাটাসের ব্যাপারও আছে৷ কিন্তু এই খবরটা তেমন আমল না যে মিনারেল ওয়াটারের প্লাস্টিকের বোতলগুলো পরিবেশকে দূষিত করছে৷ কেবল তাই নয়৷ এর কারণে প্রচুর পরিমাণে কার্বন ডাই-অক্সাইড নির্গত হচ্ছে৷

মারিশা পারমিগিয়ানি ইটালির সবচেয়ে বড় সুপার মার্কেট চেইন ‘দ্য কো-অপ সুপার মার্কেট'এর সামাজিক নীতি বিষয়ক পরিচালক৷ তিনি বলেন, ‘‘মিনারেল ওয়াটার সংগ্রহ করা থেকে শুরু করে ক্রেতাদের হাতে পৌঁছানো পর্যন্ত পুরো বিষয়টি বিচার বিশ্লেষণ করে দেখেছি আমরা৷ এবং পানি পরিবহনের ক্ষেত্রে একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয় লক্ষ্য করেছি৷

‘দ্য কো-অপ সুপার মার্কেট' - নাম শুনেই বোঝা যাচ্ছে এটি একটি সমবায় সুপার মার্কেট চেইন৷ ইটালিতে এদের দোকানের সংখ্যা এক হাজারেরও বেশি৷ এবং ইটালির বাজারের বিশ শতাংশ এই কোম্পানিটির দখলে৷ বোতলের পানির পরিবেশগত বিশ্লেষণ করে কো-অপ কোম্পানি সিদ্ধান্ত নিয়েছে, তাঁরা যে জিনিসটি খুঁজে পেয়েছেন সেই অজানা বিষয়টি মানুষকে জানানো উচিত৷ আর সেজন্যই তাঁরা পানির বোতল বিক্রি বন্ধ করতে ক্রেতাদের মনোযোগ আকর্ষণে নতুন ধরণের একটি বিজ্ঞাপনের আশ্রয় নিয়েছে৷

কোম্পানিটি একটি বিজ্ঞাপনচিত্র নির্মাণ করেছে৷ এতে দেশের জনপ্রিয় একজন কৌতুক অভিনেত্রী অভিনয় করেছেন এবং ইটালির জাতীয় টিভিতে বিজ্ঞাপনটি প্রচার করা হচ্ছে৷ সেখানে দেখানো হচ্ছে, গ্রাম এলাকার প্রাকৃতিক এক জলধারা থেকে তিনি খালি একটি গ্লাস চুবিয়ে পানি ভরছেন৷ তারপর গ্লাসটি নিয়ে তিনি ক্লান্ত অবসন্নভাবে হাইওয়ে দিয়ে হেঁটে আসছেন৷ শহরের ভীড়ের রাস্তা ঠেলে পানির গ্লাসটি নিয়ে বাড়িতে এসে পৌঁছালেন একসময়৷ অবশেষে তিনি তাঁর রান্নাঘরে এসে দাঁড়ালেন৷ পানির ট্যাপ ছাড়লেন৷ স্পষ্টতই বোঝা যাচ্ছে, ট্যাপের পানি খেলে দূষণ কম হবে৷

যেখানে বিক্রি বাড়ানোর উদ্দেশ্যে বেশিরভাগ বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়, সেখানে এই বিজ্ঞাপনের কারণে কোম্পানিটি মনে করছে আগামী দেড় বছরের মধ্যে তাদের ক্ষতি হবে ১০০ মিলিয়ন বা দশ কোটি ইউরো৷ পারমিগিয়ানি বলেন, ‘‘শুরুতে এই বিষয়টি নিয়ে আমাদের সমস্যায় পড়তে হয়েছিলো৷ কারণ বিষয়টি আমাদের কাছে পরিষ্কার ছিলোনা যে, আমরা আসলেই কী করতে চাচ্ছি? কিংবা ক্রেতাদের জন্য এটি কী বয়ে আনতে পারে? কিন্তু এই বিষয়টি নিয়ে আমরা ছয়মাস প্রচার চালিয়েছি৷ এবং এখন আমরা বিশ্বাস করি, এর নেপথ্যে যারা আছেন সবাই খুব সক্রিয়ভাবেই কাজটা করছেন৷''

বিজ্ঞাপনটির পাশাপাশি সুপার শপটির পানির বোতলের সেকশনে রাখা হয়েছে মানচিত্র৷ যেসব মানচিত্র দেখে ক্রেতারা বুঝতে পারছেন কত দূর দূর থেকে এই ব্র্যান্ডের পানি আনা হয়েছে৷ আশা করা হচ্ছে এই ব্র্যান্ডের পানি যেহেতু খুব দূর থেকে আনা হয়নি, ক্রেতারা পানি কিনলে কাছে থেকে আনা ব্র্যান্ডের পানিই কিনবেন৷ রোমের সুপার শপের ম্যানেজার আন্টোনিও ভিটিএলো বলেন, কো-অপ'এর ব্র্যান্ড নামের পানি আসছে সবচেয়ে কাছের ঝর্ণা থেকেই৷

ভিটিএলো বলেন, ‘‘আগে আমাদের বোতলের পানি টাসক্যানির দুটি ঝর্ণা থেকে আনা হতো৷ কিন্তু এখন আমরা রোমের কাছের ঝর্ণাগুলো থেকেই পানি আনছি৷ ফলে অল্প দূরত্বের কারণে পানি পরিবহনের সময় অপেক্ষাকৃত কম দূষণ হচ্ছে৷'' ভিটিএলো বললেন, ‘‘ক্রেতারা মনে হয় এই বিষয়টি জানতে পেরে খুশিই হবেন৷ যদিও এখন দেখার বিষয়, বোতলের পানি পান করার অভ্যাস আদৌ তাদের বদলে যাচ্ছে কিনা!''

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়