1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

বিলবোর্ডে নারীর অবমাননা নিষিদ্ধ করবে বার্লিন

জার্মানির রাজধানী বার্লিনে বিলবোর্ডে যৌনবিষয়ক ও নারীর জন্য অবমাননাকর বিজ্ঞাপন নিষিদ্ধ করতে চলেছে কর্তৃপক্ষ৷ বিজ্ঞাপন নির্মাতারা অবশ্য এটাকে অযৌক্তিক মনে করছে৷

স্থানীয় রাজনীতিবিদরা বলছেন, নারীদের অবমাননাকর বিজ্ঞাপন শিশুদের মধ্যে নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে৷

খুব শিগগিরই বার্লিনের বিলবোর্ডগুলো নারীদের অবমাননাকর ছবিমুক্ত হতে যাচ্ছে৷ সরকার এ বিষয়ে একটি আইন পাসের পথে অনেকটাই এগিয়েছে৷ সোশ্যাল ডেমোক্র্যাটস নেতৃত্বাধীন সরকার গ্রিন ও বাম দলের সঙ্গে মিলে এ ধরনের এক নিষেধাজ্ঞা জারি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে৷ ২০১৪ সাল থেকে বার্লিনের একটি জেলা শহরে এ ধরনের নিষেধাজ্ঞা বহাল আছে৷

এ নিষেধাজ্ঞা জারি হলে সরকারি জায়গা ও স্থাপনাগুলোর বিলবোর্ডের বিজ্ঞাপনে নারীদের আপত্তিকর এবং অবমাননাকর কোনো ছবি দিতে পারবে না বিজ্ঞাপন সংস্থাগুলো৷ এছাড়া একটি কেন্দ্রীয় কমিটি গঠন করা হবে, যারা ঠিক করবে কোন ধরনের বিজ্ঞাপনচিত্র বিলবোর্ডে প্রকাশ করা যাবে৷

গত মাসের শেষের দিকে বার্লিনের শার্লটেনবুর্গ জেলার বামপন্থি দল একটি প্রস্তাব উত্থাপন করে, যেখানে বেশ কয়েকটি এমন বিজ্ঞাপনের তালিকা ছিল, যেগুলো যৌন বিষয়ক, বৈষম্যমূলক এবং নারীদের জন্য অবমাননাকর৷ এছাড়া এই বিজ্ঞাপনগুলোতে নারীদের শারীরিক বা মানসিকভাবে দমনমূলক বিষয়বস্তু উপস্থাপন করা হয়েছে৷ বেশিরভাগ বিজ্ঞাপনে নারীদের জটিল, হিস্টিরিয়াগ্রস্ত, লোভী, সেবাদানকারী, আনন্দের সঙ্গে গৃহকর্মে নিয়োজিত, কেনাকাটায় আসক্ত, নির্ভরশীল, সুন্দর, সম্মোহনী হিসেবে উপস্থাপন করা হয়েছে৷ অন্যদিকে পুরুষদের উপস্থাপন করা হয়েছে, বাস্তববাদী, আগ্রাসী, ক্ষমতাশীল, প্রযুক্তিনির্ভর, শক্তিশালী, ব্যবসাখাতে ভীষণ কর্মঠ হিসেবে৷

এছাড়া আরও কয়েকটি বিজ্ঞাপনে নারীদের যৌনআবেদনময়ী ও পর্নোগ্রাফিক ভঙ্গিতে উপস্থাপন করা হয়েছে, যেখানে পণ্যের সাথে এর কোনো সম্পর্ক নেই৷ বিশেষ করে নারীদের বিশেষ কিছু অঙ্গ পণ্য হিসেবে উপস্থাপিত হয়েছে৷ বার্লিনের বাম দলের নারী নীতির মুখপাত্র ইনেস স্মিড ডয়চে ভেলেকে বলেছেন, ‘‘এখনও বিভিন্ন বিজ্ঞাপনে নারীদের আপত্তিকর উপস্থাপনা দেখা যায়৷ যেমন বিয়ারের বিজ্ঞাপনে কোনো পুরুষের বদলে একজন নারীকে উপস্থাপন করা হয়েছে অতি সংক্ষিপ্ত পোশাকে৷ তিনি বিয়ারের ফেনা জিব বের করে চাটছেন...এটা ভীষণ আপত্তিকর৷ এর মাধ্যমে বিজ্ঞাপন নির্মাতারা বোঝাতে চাচ্ছেন অন্য বিয়ার থেকে এটার স্বাদ কত ভিন্ন৷ এছাড়া স্কুল শিক্ষিকাসহ নির্দিষ্ট কিছু চাকরিতে নারীদের দেখা যায়, অথচ প্রযুক্তিনির্ভর চাকরিগুলোতে কেবল পুরুষদের দেখা যায়৷ অথচ বাস্তবতা হলো, স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে নারীদের গ্রেড সবসময় ভালো৷ ''

অন্যদিকে, বিজ্ঞাপন নির্মাতা সংস্থাগুলো এই নিষেধাজ্ঞাকে অপ্রযোজনীয় হিসেবে উল্লেখ করেছেন৷ জার্মান বিজ্ঞাপন ফেডারেশনের মুখপাত্র রালফ নোকার ডয়চে ভেলেকে বলেছেন, ‘‘বিষয়টিকে রাজনীতিবিদরা অতিরঞ্জিত করছেন এবং মূল ব্যাপারটা হলো, পেশাগত সংস্থাগুলো যৌনবিষয়ক মটিফকে পুঁজি করে বিজ্ঞাপন নির্মাণ করে না, কারণ, তাদের কাছে মনে হয় আদতে এটা কার্যকরী নয়৷ অথচ বাম দল কেন এটাকে নিয়ে রাজনীতি করছে আমার বোধগম্য নয়৷ যৌনবিষয়ক বিজ্ঞাপনগুলো সাধারণ ছোট ছোট কোম্পানিগুলো নির্মাণ করে৷ কিন্তু বড় বড় কোম্পানিগুলো কিন্তু সংস্থার মাধ্যমেই বিজ্ঞাপন তৈরি করে, তারা কখনো এমন নিম্নমানের ছলনার আশ্রয় নেয় না৷ দু'-একটা বিজ্ঞাপনের ক্ষেত্রে এমনটা হয়ে থাকতে পারে, কিন্তু সব সময় এমনটা হয় না৷''

বেন নাইট/এপিবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়