1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বিমানেই মৃত্যু হল শিল্পী সলোমন বুরকের

সলোমন বুরকে চলে গেলেন অকস্মাৎ৷ মার্কিন এই ‘সোল সিঙ্গার’ নেদারল্যান্ডসে একটি অনুষ্ঠানে গান গাইতে যাওয়ার পথে বিমানেই মারা যান৷ বয়স হয়েছিল সত্তর বছর৷ কেন মারা গেলেন বুরকে সে বিষয়ে কিছুই জানা যায়নি৷

সলোমন বুরকে, Solomon Burke USA, Singer, Jazz, Plane, Death, Amsterdam, Grammy, Rock N Roll, জ্যাজ, সঙ্গীত, বিমান, মৃত্যু

জ্যাজ সঙ্গীতে অবদানের জন্য গ্র্যামি পুরষ্কার পান বুরকে ২০০১ সালে৷

আগামীকাল মঙ্গলবার অ্যামস্টারডামে একটি ক্লাবে গান গাইতে যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেস থেকে রবিবারেই রওনা দিয়েছিলেন নামজাদা মার্কিন গায়ক সলোমন বুরকে৷ কিন্তু বিমানেই হৃদস্পন্দন থেমে গেল এই মার্কিন গায়কের৷ কারণ জানা যায়নি কেন হঠাৎ মারা গেলেন এই নামজাদা কৃষ্ণাঙ্গ শিল্পী৷

প্রাথমিক পেশা ছিল তাঁর যাজকবৃত্তি৷ ফিলাডেলফিয়ায় জন্ম সলোমন বুরকে প্রথমদিকে রেডিওতে একটি প্রাপ্তবয়স্কদের গসপেল শো উপস্থাপনা করতেন৷ গত শতকের ষাটের দশকে আটলান্টিস রেকর্ডের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হন গায়ক হিসেবে৷ প্রথম হিট অ্যালবাম ‘জাস্ট আউট অব রিচ৷ ১৯৬২ সালে আরেকটি হিট গান লেখেন এবং গেয়ে বিখ্যাতি পান সলোমন৷ গানটি ছিল ‘ক্রাই টু মি৷' মজার ব্যাপার এই গানটিই প্রকাশের পঁচিশ বছর পর বিশ্বখ্যাত ডার্টি ড্যান্সিং ছবিতে ব্যবহৃত হয়েছিল৷ সেখানেও সে গান গেয়েছিলেন বুরকে৷ সে গানও যথেষ্ট নাম কেনে৷ তবে শিল্পী বুরকের যে গানটি সকলেই মনে রেখেছে তা হল ‘এভরিবডি নিডস সামবডি টু লাভ৷' এমনকি রোলিং স্টোনসও এই গানের জনপ্রিয়তাকে স্বীকার করে নিয়ে গানটি গেয়েছিল৷ এ গান প্রথম শোনা গিয়েছিল ১৯৬৪ সালে৷ পরে ১৯৮০ সালে ‘দ্য ব্লুজ ব্রাদার্স' ছবিতেও ব্যবহার করা হয়েছিল এই জনপ্রিয় গান৷ রক অ্যান্ড রোল-এর হল অব ফেম এ সলোমন জায়গা পান ২০০১ সালে৷ আর ২০০৩ সালে জ্যাজ সঙ্গীতে অসামান্য অবদানের জন্য গ্র্যামি পুরস্কারে সম্মানিত হন তিনি৷

সলোমন বুরকেকে সেই শিল্পী হিসেবেই মানুষ মনে রাখবে যিনি মঞ্চে এসে দর্শকদের হৃদয় জয় করে নিতেন শুধু গান গেয়েই নয়, দর্শকদের সঙ্গে কথা বলেও৷ মানুষের মনের কাছে পৌঁছানোর জাদুমন্ত্র জানা ছিল সলোমনের৷ স্বীকারোক্তি অনেক নামজাদা ব্যক্তিত্বের৷ ব্যক্তিজীবনেও অন্যরকম ছিলেন৷ সব মিলিয়ে ২১টি সন্তান রয়ে গেল সলোমনের৷ আর সত্তর বছরের জীবনে তিনি দেখে গেলেন ৯০টি নাতি নাতনিকে৷

তবে জ্যাজ ছাড়াও জনপ্রিয় পপ গানের ‘সোল' শিল্পী হিসেবে সলোমন বুরকের গ্রহণযোগ্যতা ছিল অপরিসীম৷

প্রতিবেদন: সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়

সম্পাদনা: আরাফাতুল ইসলাম