1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হলেন কেট-উইলিয়াম

গোটা বিশ্বকে সাক্ষী রেখে শুক্রবার ব্রিটেনের প্রিন্স উইলিয়াম ও কেট মিডলটনের বিবাহ অনুষ্ঠান সম্পন্ন হলো৷ রাজকীয় রীতি অনুযায়ী একের পর এক আচার অনুষ্ঠানের সরাসরি সম্প্রচার দেখছেন প্রায় ২০০ কোটি মানুষ

default

ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবে গির্জায় নবদম্পতি

লন্ডন সহ গোটা বিশ্ব দেখতে পেল রাজকীয় বিয়ের অনুষ্ঠান৷ নবদম্পতিকে একবার স্বচক্ষে দেখার আশায় হাজার হাজার মানুষ বাকিংহাম প্রাসাদ ও ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবে সহ কাছাকাছি রাজপথে ভিড় করেছিল৷ তাদের হাতে ছিল ব্রিটেন ও অন্যান্য দেশের পতাকা এবং বিয়ে উপলক্ষ্যে তৈরি বিভিন্ন স্মারক৷ গোটা বিশ্বে সরাসরি সম্প্রচার নিশ্চিত করতে সারাদিন তৎপর টেলিভিশন সংস্থাগুলি৷ অনুমান করা হচ্ছে, প্রায় ২০০ কোটি মানুষ বিয়ের এই অনুষ্ঠান দেখেছেন৷

Royal.jpg

নতুন জীবনের দিশায়

ডিউক ও ডাচেস অফ কেমব্রিজ – বিয়ের পর উইলিয়াম ও কেট’কে এই নামেই ডাকা হবে৷ রানি এলিজাবেথ নাতি ও নাতবউয়েএর জন্য এই উপাধি স্থির করেছেন৷ ওয়েস্টমিনস্টার অ্যাবে গির্জায় মূল বিবাহ অনুষ্ঠানের আগেই বাকিংহাম প্রাসাদ থেকে রানির এই সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়৷ তবে ব্রিটিশ রাজপরিবার বলে কথা, একটি মাত্র উপাধিতে কি আর চলে? উইলিয়াম আরও হতে চলেছেন ‘আর্ল অফ স্ট্রেথার্ন' এবং ‘ব্যারন ক্যারিকফার্গাস'৷ ফলে কেট'এর বাড়তি উপাধি হবে ‘কাউন্টেস অফ স্ট্রেথার্ন' এবং ব্যারনেস ক্যারিকফার্গাস'৷

প্রায় ৩০ বছর পর লন্ডনে এত বড় মাপের এক বিয়ের অনুষ্ঠান দেখা যাচ্ছে৷ ১৯৮১ সালে উইলিয়ামের বাবা-মা চার্লস ও ডায়ানার বিয়েকে কেন্দ্র করে যে উচ্ছ্বাস দেখা গিয়েছিল, শুক্রবারের অনুষ্ঠান তারও মাত্রা ছাড়িয়ে যাচ্ছে বলে অনেকে মনে করছেন৷

প্রতিবেদন: সঞ্জীব বর্মন

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

নির্বাচিত প্রতিবেদন