1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

বিদ্যুৎ বাঁচানোর বুদ্ধি বাতলে দেবে ফেসবুক

ফেসবুক, টুইটার, গুগল, ইয়াহু, মাইক্রোসফট, অ্যাপল, অ্যামাজন - তথ্য প্রযুক্তির জগতে বিখ্যাত সব নাম৷ এ ধরণের কোম্পানিগুলোতে বিদ্যুতের ব্যবহার হয় অনেক৷

default

গ্রিন টেকনোলজি ব্যবহার করছে ফেসবুক

মূলত কম্পিউটার, সার্ভার সহ অন্যান্য যন্ত্রপাতি চালাতে ও সেগুলো ঠান্ডা রাখতে বিদ্যুতের প্রয়োজন হয়৷

পরিবেশবাদী সংগঠন গ্রিনপিসের মতে, এ ধরণের কোম্পানির বিদ্যুৎ ব্যবহারের পরিমাণ ২০২০ সালে গিয়ে দাঁড়াবে প্রতি ঘণ্টায় প্রায় দুই ট্রিলিয়ন কিলোওয়াটে৷ যেটা জার্মানি, ফ্রান্স, ক্যানাডা ও ব্রাজিলে একসঙ্গে যে পরিমাণ বিদ্যুৎ লাগে তার চেয়েও বেশি৷

তাই তথ্য প্রযুক্তি বিষয়ক কোম্পানিগুলোকে ‘গ্রিন টেকনোলজি' ব্যবহারের আহ্বান জানিয়েছিল গ্রিনপিস৷ এতে সাড়া দিয়েছে ফেসবুক৷ তারা একটি নতুন তথ্য সংরক্ষণ কেন্দ্র চালু করেছে যেখানে প্রায় ৩৮ শতাংশ কম বিদ্যুৎ ব্যবহৃত হচ্ছে৷

জানা গেছে, যন্ত্রপাতি শীতল রাখতে এয়ার কন্ডিশনিং'এর পরিবর্তে বাইরের বাতাসের উপর অনেকখানি নির্ভর করছে ফেসবুক৷ তথ্য কেন্দ্রটির নকশা তৈরি করা হয়েছিল এই বিষয়টি মাথায় রেখে৷

তবে শুধু নিজেরা এরকম একটি কেন্দ্র বানিয়েই বসে থাকছে না ফেসবুক৷ সমমনা অন্য কোম্পানিগুলোও যেন বিদ্যুতের ব্যবহার কমাতে ভূমিকা রাখতে পারে সেজন্য কেন্দ্রের নকশা ও নির্মাণ কৌশল প্রকাশ করার ঘোষণা দিয়েছে ফেসবুক৷

প্রতিবেদন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

সংশ্লিষ্ট বিষয়