1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বিদেশে জমি কিনছে পাঞ্জাবের কৃষকরা

বিশ্বায়নের এই যুগে ভারতের কৃষকদের মধ্যে বিদেশে জমি কেনার প্রবণতা বাড়ছে৷ পাঞ্জাবের বেশ কিছু কৃষক দেশে তাঁদের জমিজমা বিক্রি করে দিচ্ছেন৷ আর জমি কিনছেন অস্ট্রেলিয়ার উপকূলে এবং ক্যানাডায়৷

default

পাঞ্জাবের রাজধানী চন্ডিগড়ের অদূরে প্রচুর জমিজমা রয়েছে পুনিত ভালার পরিবারের৷ বংশ পরম্পরায় তাঁরা এই জমির মালিক৷ কিন্তু সম্প্রতি, সেই জমিগুলো ভাগ বাটোয়ারা করার সিদ্ধান্ত নেন শিল্প উদ্যোক্তা ভালা৷ এর জন্য অবশ্য ভালার কোনো আফসোস নেই৷ ভালা বলেন, ‘‘এই জমি থেকে তেমন কিছু পাওয়া যায়না৷ তাই অনেকেই পরামর্শ দিলেন জমিগুলো বিক্রি করে দেওয়ার এবং এই টাকা বিভিন্ন ব্যবসায় এমনকি বিদেশে বিনিয়োগ করার৷ আমি তখন ভাবলাম, এটা একটা ভালো সুযোগ৷ আমরা আমাদের জমিগুলো বিক্রি করে দিয়ে ভালো কোনো ব্যবসায় বিনিয়োগ করতে পারি৷''

কৃষিকাজ পাঞ্জাবের মানুষের প্রধান পেশা৷ এবং ঐ রাজ্যের অর্থনীতির মেরুদণ্ড৷ ভারতের বাজারের একটা বড় অংশ দখল করে আছে এখানকার কৃষিপণ্য৷ পাঞ্জাবের জমি এখন অনেক দামি৷ কেননা, যদি কোনো কৃষক পাঁচ থেকে ছয় একর জায়গা বিক্রি করেন তাহলে তিনি শত শত এমনকি হাজার হাজার একর জমি বিদেশে কিনতে পারেন৷ এর জন্যই বেশ কিছু সংখ্যক কৃষক তাঁদের নিজেদের প্রচেষ্টায় অস্ট্রেলিয়া এবং ক্যানাডায় চলে গেছেন৷ সেখানে গিয়ে চাষাবাদ শুরু করেছেন৷

খুশওয়ান্ত সিং৷ হোশিয়ারপুরের একজন কৃষক৷ তিনি এ বিষয়টিকে ব্যাখ্যা করেন এইভাবে, ‘‘ঐ দেশগুলোর অভিবাসন নীতিতে সেখানে জমি কিনে সহজেই বসতি স্থাপন করা যায়৷ যেহেতু জমির দাম বেশি, সেহেতু লোকজন এখানে এক একর জায়গা বিক্রি করে বিদেশে একশ' একর জায়গা কিনতে পারেন৷ আমি মনে করি, প্রকৃতপক্ষে সব মানুষই চায় ভালোভাবে সম্মান নিয়ে জীবনযাপন করতে এবং সেটা যদি বিদেশের মাটিতে হয় - তাহলে আর ক্ষতি কি?''

অস্ট্রেলিয়া আয়তনে ভারতের তিনগুন৷ কিন্তু সেখানে মানুষ রয়েছে মাত্র ২২ মিলিয়ন, যা পাঞ্জাবের লোকসংখ্যার থেকেও কম৷ এছাড়া, অস্ট্রেলিয়ার কৃষিজ জমির প্রায় ৮৫ শতাংশ ব্যবহার করা হয়না৷ আর সেই কারণেই সরকার বিদেশিদের জমি কেনা এবং চাষাবাদ করার জন্য দ্বার উন্মুক্ত করে দিয়েছে৷

অন্যদিকে, পাঞ্জাবের অন্যতম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় মেকানিক্যাল ফার্মিং'এর ওপরে বিশেষ একটি কোর্স চালু করেছে৷ যেখানে শেখানো হচ্ছে পশ্চিমে কীভাবে বিদেশি ফল ও শাকসবজি'র চাষাবাদ করা যায়, সেই সব বিষয়বস্তু৷

প্রতিবেদন: জান্নাতুল ফেরদৌস

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়