1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি ইউরোপ

বিতাড়নের অপেক্ষায় থাকাদের কারাগারে রাখা যাবে না

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সর্বোচ্চ আদালত বৃহস্পতিবার জানিয়েছে, বহিষ্কার বা বিতাড়নের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, এমন বিদেশি নাগরিকদের বিশেষ ডিটেনশন সেন্টার না থাকার অজুহাতে কারাগারে আটক রাখা যাবে না৷

ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য রাষ্ট্রগুলোর ক্ষেত্রে এই নির্দেশ প্রযোজ্য হবে৷ লুক্সেমবুর্গে অবস্থিত ইউরোপিয়ান কোর্ট অফ জাস্টিস জানিয়েছে, বিশেষ ডেটেনশন সেন্টার নেই এমন অজুহাতে ইইউ-র কোনো সদস্য রাষ্ট্র বহিষ্কার বা বিতাড়নের অপেক্ষায় থাকা বিদেশিদের কারাগারে রাখতে পারবে না৷ এমনকি যদি সেই ব্যক্তি কারাগারে থাকতে আগ্রহী হয়, তাহলেও সেটা করা যাবে না বলে জানিয়েছে আদালত৷

মূলত জার্মানির বাভেরিয়া এবং হেসে রাজ্যের তিনটি ঘটনার প্রেক্ষিতে এই নির্দেশ প্রদান করেছে কোর্ট অফ জাস্টিস৷ জার্মানির বিচার বিভাগীয় কর্তৃপক্ষই বিষয়টি জানতে চেয়েছিল৷ বর্তমানে নারীদের আলাদা ডিটেনশন সেন্টারের অভাবের কারণে এক সিরীয় নারী কারাগারে রয়েছেন৷ মিউনিখে কোনো সেন্টার না থাকায় সেখানকার কারাগারে রয়েছেন এক মরোক্কান নাগরিক৷ অন্যদিকে এক ভিয়েতনামি নাগরিক নিজেই কারাগার বেছে নিয়েছেন৷

বলাবাহুল্য, জার্মানিতে বিতাড়ন বা বহিষ্কারের অপেক্ষায় থাকা মানুষদের রাখার দায়িত্ব তারা যে অঞ্চলে রয়েছেন সেই অঞ্চলের কর্তৃপক্ষের উপর বর্তায়৷ এখন ইউরোপীয় আদালত বলছে, যদি কোনো অঞ্চলে ডিটেনশন সেন্টার না থাকে, তাহলে তাদের অন্য অঞ্চলে সরিয়ে নিতে হবে৷ তবে খুবই ব্যতিক্রমী ঘটনার ক্ষেত্রে এই নিয়মের ব্যতিক্রম ঘটতে পারে৷ সে ক্ষেত্রে ব্যক্তিটিকে কারাগারের ভেতরে সাধারণ কারাবন্দিদের কাছ থেকে আলাদা রাখতে হবে৷

এআই / এসবি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন