1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বিতর্কে জড়িয়েও জরিপে এগিয়ে ট্রাম্প

নারীর অবমাননার অভিযোগ ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনি প্রচারণায় বিরূপ প্রভাব ফেলেনি৷ ফক্স নিউজ-এর উপস্থাপিকা সম্পর্কে ‘আপত্তিকর মন্তব্য’ করার পরও রিপাবলিকান দলের প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হওয়ার দৌড়ে এগিয়ে তিনি৷ জরিপ তা-ই বলছে৷

বৃহস্পতিবার ফক্স নিউজ চ্যানেলে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সম্ভাব্য প্রার্থীদের বিতর্ক অনুষ্ঠানে অংশ নেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ রিপাবলিকান দলের প্রার্থী হবার দৌড়ে তখনো তিনি এগিয়ে৷ এক পর্যায়ে অনুষ্ঠানের সঞ্চালিকা মেগেন কেলি নারী সম্পর্কে ট্রাম্পের অতীতের কিছু আপত্তিকর মন্তব্য সম্পর্কে প্রশ্ন করেন৷ এ নিয়ে তখন কোনো বিতর্ক না হলেও পরের দিন সিএনএন-এ করা ট্রাম্পের একটি মন্তব্য যুক্তরাষ্ট্রে বিতর্কের ঝড় তোলে৷ সেখানে ফক্স নিউজের মেগেন কেলির প্রসঙ্গ টেনে রিপাবলিকান নেতা ট্রাম্প বলেন, ‘‘সেই মুহূর্তটি লক্ষ্য করলে দেখবেন, ওর চোখ থেকে, সব জায়গা থেকে রক্ত বের হচ্ছিল৷ ''

ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্যকে শিষ্টাচার বহির্ভূত মনে করেছেন অনেকেই৷ সমালোচকদের মতে, ‘সব জায়গা থেকে রক্ত বের হচ্ছিল' বলে ট্রাম্প আসলে মেগেন কেলির ঋতুস্রাব বোঝাতে চেয়েছেন৷ এমন ইঙ্গিতপূর্ণ এবং ‘আপত্তিকর' মন্তব্যের জন্য প্রার্থীতার দৌড়ে পিছিয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিলেও ৬৯ বছর বয়সি রিয়েল এস্টেট ব্যবসায়ী তা আমলে নেননি৷ ক্ষমা চাইতে অস্বীকৃতি জানিয়ে এবিসি নিউজকে তিনি বলেছেন, ‘‘ভুল করলে আমি ক্ষমা চাই৷ কিন্তু এখানে আমি কোনো ভুল করিনি, ভুল কিছু বলিনি৷ (সব জায়গা থেকে – এ কথা বলে) আমি আসলে নাক, চোখ ইত্যাদির কথা বুঝিয়েছিলাম৷ আমার কথার ভুল ব্যখ্যা করা হয়েছে৷'' এবিসি নিউজের ‘দ্য উইক' অনুষ্ঠানে ডোনাল্ড ট্রাম্প আরো বলেন, ‘‘আমি নারীদের অনুরাগী৷ আমি তাঁদের সাহায্য করতে চাই৷"

Donald Trump und Jeb Bush während des Fernsehduells (Foto: Reuters)

বিতর্ক অনুষ্ঠানে অংশ নেন ডোনাল্ড ট্রাম্প ও জেব বুশ

এভাবে আত্মপক্ষ সমর্থন এবং নির্বাচনি প্রচারাভিযানে নিজের অবস্থান ধরে রাখার চেষ্টা করলেও মেগেন কেলি সম্পর্কে ওই মন্তব্যের কারণে বড় ক্ষতির আশঙ্কার মুখে পড়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প৷ শনিবার আটলান্টায় গুরুত্বপূ্র্ণ এক সভায় ভাষণ দেয়ার কথা ছিল তাঁর৷ কিন্তু নারী সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করার বিষয়টি উল্লেখ করেই সেই সভায় ভাষণ দেয়ার আমন্ত্রণ প্রত্যাহার করে নেয়া হয়৷

শেষ পর্যন্ত অবশ্য দেখা গেল, মেগেন কেলি সম্পর্কে অনেকের মতে, ‘আপত্তিকর', ‘শিষ্টাচারবর্জিত' মন্তব্য করা সত্ত্বেও বিষয়টি ট্রাম্পের ভোট ব্যাংকে কোনো বিরূপ প্রভাব ফেলেনি৷ সর্বশেষ জরিপে দেখা গেছে, রিপাবলিকান প্রার্থীদের মধ্যে জনপ্রিয়তায় এখনো অনেক তিনিই এগিয়ে৷ বৃহস্পতিবার থেকে রবিবারের মধ্যে জরিপ চালিয়ে দেখা গেছে, রিপাপলিকান দলের সব সম্ভাব্য প্রার্থীর চেয়ে অনেক এগিয়ে ট্রাম্প৷ তাঁর সবচেয়ে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এখনো জেব বুশ৷ তাঁর চেয়ে ট্রাম্প এখনো দ্বিগুণ জনপ্রিয়৷ জরিপে দেখা গেছে, এখনো অন্তত ২৪ শতাংশ রিপাবলিকান ভোটারের আস্থায় আছেন ট্রাম্প, অন্যদিকে জেব বুশকে প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হিসেবে দেখতে চেয়েছেন মাত্র ১২ শতাংশ রিপাবলিকান ভোটার৷

এসিবি/ডিজি (এপি, রয়টার্স, এএফপি, ডিপিএ)

নির্বাচিত প্রতিবেদন