1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বিতর্কিত পাতাটি আর নেই ফেসবুকে

হযরত মোহাম্মদ (সা:)-এর ছবি আঁকা প্রতিযোগিতা নিয়ে তৈরি ফেসবুক পাতাটি অবশেষে সরিয়ে নেয়া হয়েছে৷ বিষয়টি নিয়ে পাকিস্তানসহ কয়েকটি দেশে তীব্র প্রতিবাদের পর সরিয়ে ফেলা হলো বিতর্কিত পাতাটি৷

default

পাকিস্তানে প্রতিবাদ

তবে, ফেসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এই বিষয়ে কোন ধরণের পদক্ষেপ নেয়নি তারা৷ যার অর্থ, সংস্থাটি সরায়নি এই পাতা৷ অবশ্য বার্তা সংস্থাগুলো জানাচ্ছে, যে ফেসবুক ব্যবহারকারী ‘এভরিওয়ান ড্র মোহাম্মদ ডে' পাতাটি খুলেছিলেন তিনিই সম্ভবত এটি বন্ধ করে দিয়েছেন৷ শুধু তাই নয়, এসংক্রান্ত একটি ব্লগও নাকি আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না৷

এদিকে, মহানবীকে নিয়ে এধরণের চিত্রাঙ্কনকে ঘিরে পাকিস্তানে গত কয়েকদিন বিক্ষোভের খবর পাওয়া গেছে৷

Protest gegen Facebook in Pakistan

উত্তেজিত জনগণ ‘ধর্মবিরোধী' ব্যঙ্গচিত্রণ-এর প্রতিবাদে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পতাকা পুড়িয়েছে, ফেসবুক এবং যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে নানা শ্লোগান দিয়েছে

সেখানে উত্তেজিত জনগণ ‘ধর্মবিরোধী' ব্যঙ্গচিত্রণ-এর প্রতিবাদে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের পতাকা পুড়িয়েছে, ফেসবুক এবং যুক্তরাষ্ট্রের বিরুদ্ধে নানা শ্লোগান দিয়েছে৷ শুধু তাই নয়, পাকিস্তান কর্তৃপক্ষ বিষয়টির প্রতিবাদ হিসেবে সেদেশে ফেসবুক এবং ইউটিউবসহ কমপক্ষে ৪৫০টি ওয়েবলিঙ্ক নিষিদ্ধ করেছে৷ কড়াকড়ি আরোপ করেছে উইকিপিডিয়া'র উপরও৷ পাকিস্তানের টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা উইকিপিডিয়া সম্পর্কে বলেছে, সাইটটিতে ধর্মবিরোধী তথ্যের পরিমাণ বাড়ছে৷

‘এভরিওয়ান ড্র মোহাম্মদ ডে' প্রতিযোগিতা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা দেখা গেছে বাংলা ব্লগারদের মাঝে৷ কোন কোন ব্লগার বিষয়টির সমর্থন দিলেও অনেকের মত ভিন্ন৷ কেউ কেউ আবার কারিগরিভাবে এই প্রতিযোগিতার প্রতিবাদ করার উপায়ও বাতলেছে৷

অবশ্য, ফেসবুক থেকে পাতাটি সরানো হলেও পাকিস্তানে ফেসবুক উম্মুক্ত হবার কোন খবর এখনো পাওয়া যায়নি৷ ইন্টারনেট সার্চ জায়ান্ট গুগল-এর প্রধান নির্বাহী এরিক স্মিথ বিষয়টির প্রতিবাদ করে বলেছেন, মাত্রাতিরিক্ত রাজনৈতিক সমালোচনার কারণেই সম্ভবত পাকিস্তানে ইসলামের নামে ফেসবুক এবং ইউটিউব নিষিদ্ধ করা হয়েছে৷

প্রতিবেদন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়