1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বিতর্কিতদের মনোনয়ন দেবে না আওয়ামী লীগ

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিতর্কিতদের মনোনয়ন দেবে না আওয়ামী লীগ৷ বর্তমানের সব সাংসদ মনোনয়ন পাবেন, এমন কথা নেই৷ মনোনয়ন পেতে জনপ্রিয়তা প্রমাণ করতে হবে৷ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ জানান এ তথ্য৷

২০০৮ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দুই-তৃতীয়াংশ সংখ্যা গরিষ্ঠতা পেয়ে আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করে৷ কিন্তু সরকারের চার বছর শেষে পঞ্চম বছরে এসে আওয়ামী লীগ এখন নিশ্চিত যে, তাদের সেই জনপ্রিয়তা এখন আর নেই৷ বিশেষ করে সম্প্রতি পাঁচটি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগ প্রার্থীদের ভরাডুবি তাদের হতাশ করেছে৷ নির্বাচনে পরাজয়ের পর আওয়ামী লীগ কিছু কিছু কারণও নির্ধারণ করেছে৷ এর মধ্যে অন্যতম হলো স্থানীয় পর্যায়ে সংগঠনের মধ্যে নানা গ্রুপ এবং অন্তর্দ্বন্দ্ব, ব্যক্তিগত পর্যায়ে দুর্নীতি, জন বিচ্ছিন্নতা এবং বিরোধীদলের অপপ্রচার৷ এই সব কারণকে বিবেচনায় রেখে আগামী নির্বাচনের দিকে এগোচ্ছে আওয়ামী লীগ৷

এই প্রেক্ষাপটে আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা এবং সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম কয়েকদিন ধরেই বলে আসছেন যে, যাঁরা দলের জন্য দায় তাঁদেরকে আর টানা যাবে না৷ তাঁদের বাদ দিয়েই আওয়ামী লীগকে এগিয়ে যেতে হবে৷ বৃহস্পতিবার যোগাযোগমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, যাঁরা অপকর্ম করেছেন তাঁরা আগামী নির্বাচনে মনোনয়ন পাবেন না৷

আসলেই কি আওয়ামী লীগ আগামী নির্বাচনে ‘ক্লিন ইমেজ'-এর প্রার্থীদের বেছে নেবে, এক্ষেত্রে দলের নীতি কি? ডয়চে ভেলের এমন প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ বলেন, আগামী নির্বাচনে মনোনয়নের ব্যাপারে কয়েকটি নীতি অনুসরণ করা হবে৷ আর তা হলো প্রার্থীর জনপ্রিয়তা, স্থানীয় পর্যায়ে দলীয় নেতা-কর্মীদের কাছে গ্রহণযোগ্যতা এবং ক্লিন ইমেজ৷ তিনি বলেন, যাঁরা বিতর্কিত, যাঁদের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আছে এবং যাঁরা জনগণ থেকে দূরে সরে গেছেন তাঁদের মনোনয়ন পাওয়ার সম্ভাবনা নেই৷ বর্তমানে সংসদ সদস্য হলেই যে আগামী নির্বাচনে মনোনয়ন পাওয়া যাবে, তার কোনো নিশ্চয়তা নেই৷ মানদণ্ডে উত্তীর্ণ না হলে বর্তমান অনেক সংসদ সদস্যই তাই মনোনয়ন পাবেন না৷

মাহবুবুল আলম হানিফ বলেন, কোনো মন্ত্রী, এমপি বা নেতার ব্যক্তিগত কোনো নেতিবাচক কাজের দায় নেবে না সরকার বা দল৷ তাই যাঁরা ব্যক্তিগত কাজের জন্য বিতর্কিত হয়েছেন, তার ফল তাঁদেরই ভোগ করতে হবে৷ তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে ভালো করতে হলে আওয়ামী লীগকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে৷ তাই নির্বাচনকে সামনে রেখে তৃণমূল পর্যায় পর্যন্ত দলে ঐক্য ফিরিয়ে একসঙ্গে কাজ করার তাগিদ দিয়েছেন দলের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷

এদিকে, লন্ডনে এক অনুষ্ঠানে বুধবার বিএনপির সিনিয়র ভাইস-চেয়ারম্যান তারেক রহমান বিএনপিকে নির্বাচনের প্রস্তুতি না নিয়ে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আন্দোলনের প্রস্তুতি নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন৷ এর প্রতিক্রিয়ায় মাহবুবুল আলম হানিফ বলেন, বিএনপি নির্বাচনের না আন্দোলনের প্রস্তুতি নেবে – তা বিএনপির বিষয়৷ এ ব্যাপারে তিনি কোনো মন্তব্য করতে চান না৷ তবে নির্বাচন হবে যথা সময়েই৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়