1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বাংলাদেশ

বিটিসিএল-কে শিক্ষা দিতে ডটবিডি হ্যাক

বাংলাদেশের কান্ট্রি ডোমেইন ডট বিডি -এর নিরাপত্তাসহ সার্বিক ব্যবস্থাপনার কাজে বিটিসিএল দক্ষ নয় এবং নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার ও দক্ষ লোক নেই৷  মনে করেন সাইবার বিশেষজ্ঞরা৷ প্রথম দিনেই ডোমেইন হ্যাক হওয়ায় এই প্রশ্ন৷

হ্যাক হওয়া চারটি ডোমেইন হলো- রবি ডটকম ডটবিডি, গুগল ডটকম ডটবিডি, বাংলালিঙ্ক ডটকম ডটবিডি এবং ইত্তেফাক ডটকম ডটবিডি৷ ৩১শে ডিসেম্বর এগুলো হ্যাক করে হ্যাকার সাইজার রহমান আকাশ তার ফেসবুক পেজে রিডাইরেক্ট করে দেন৷ আর সেখানে তিনি তার ফেসবুক স্ট্যাটাসে বলেন, ‘‘বিটিসিএল-এর নিরাপত্তা/ত্রুটি নিয়ে আর কত বার বলবো? গত ২৩ সেপ্টেম্বর, মন চাইলো সব ডাউন করে দিয়ে দেই, কিন্তু অবস্থা বেগতিক চিন্তা করে বিটিসিএলে ফোন লাগাই, কয়েক দফা চিল্লা-পাল্লা করে সাময়িক সমাধান৷ কিন্তু নাহ, উনাদের নিরাপত্তা নিয়ে সেম উদাসীন ভাব৷ ফলাফল গত ২০ ডিসেম্বর পাকিস্তানি হ্যাকার হ্যাক করে বসলো৷ মনে মনে ভাবি, দেশের মধ্যেই যখন নিরাপত্তা নিয়ে উদাসীনতা, তখন যদি বাইরে থেকে আক্রমন করে লজ্জা দেয় তাহলে দোষ কার? দোষ যাদের বিটিসিএলের নিরাপত্তা/ত্রুটি নিয়ে অবহেলা করছে৷

এবার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ডট বাংলা ডোমেইন চালু করেছেন৷ দেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন৷ তখন কতিপয় লোকের অবহেলার কারণে দেশের সাইবার নিরাপত্তার দেওয়াল খসে পড়ছে৷''

অডিও শুনুন 00:54

‘আমরা কান্ট্রি ডোমেইন নতুন চালু করেছি, ফলে কিছু ত্রুটি থাকতেই পারে’

তারপর তিনি লিখেছেন, ‘‘এবার আসি, আজকের ওয়েবসাইট হ্যাক নিয়ে৷ মূলত, এটি কোনো হ্যাক নয়, আমিও হ্যাকার নই৷ চিন্তা করুন, বাংলাদেশের সকল সরকারি, শিক্ষা, মন্ত্রনালয়, স্কুল, কলেজ, অপারেটর, কোম্পানি, এছাড়া গুগল, পত্রিকা, ই-কমার্সগুলি বন্ধ হয়ে গেলে কী হবে! জাস্ট বিটিসিএলের ত্রুটির জন্য৷ তবুও কেন জানি উদাসীনতার ফলে কোনো নিরাপত্তাজনিত চিন্তা-ভাবনা তাদের মাথায় কাজ করে না, এমনকি কয়েক দফা ফোন করে দিলেও না! পাকিস্তানি হ্যাকার লজ্জা দিয়ে যায়, তবুও শিক্ষা হয় না৷ কথায় আছে, সোজা আঙুলে ঘি না উঠলে আঙ্গুল বাঁকা করতে হয়৷ তাই বছরের শেষ দিনে ( ৩১ ডিসেম্বর) এ কাজ করতে বাধ্য হচ্ছি, আর কতই বা ফোন দেবো!''

‘‘১. গুগল, ২. রবি, ৩.বাংলালিংক, ৪.ইত্তেফাক শীর্ষক সাইটগুলি জাস্ট উদাহরণ হিসেবে ডাউন এবং রিডাইরেক্ট করে দেওয়া হলো আমার প্রোফাইলে৷এভাবে হাজার হাজার ওয়েবসাইট বন্ধ করে দেওয়া সম্ভব৷ লত ওয়েবসাইট হ্যাক নয় বিটিসিএলের ত্রুটি জাস্ট৷ দুঃখিত, সাময়িক অসুবিধার জন্য৷আশা করি,দায়িত্বে থাকা ডেভলপার দ্রুতই রিকভার করে নিবেন৷বিটিসিএলকে ধরুন, তাদের শিক্ষা হওয়া উচিত৷ আমি চাই না দেশের সাইবার নিরাপত্তা অবস্থা দুর্বল হোক আর যে কেউ এসে দেশের ক্ষতি করে চলে যাক৷আবারো বলি, এটি কোনো হ্যাক নয়, আমিও কোনো হ্যাকার নই৷''

সবশেষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম এবং তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলকের উদ্দেশ্যে তার আহ্বান, ‘‘ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম ও জুনায়েদ আহমেদ পলক ভাইকে অনুরোধ করবো আগে নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন, তবেই আমরা ডিজিটাল বাংলাদেশে গড়তে পারবো৷''

অডিও শুনুন 02:36

‘এটা এক ধরণের উদাসীনতা’

এ বিষয়ে বিটিসিএল-এর পরিচালক মীর মোহাম্মদ মোরশেদের কাছে জানতে চাইলে তিনি ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘আমরা কান্ট্রি ডোমেইন নতুন চালু করেছি৷ ফলে এর ব্যবস্থাপনায় কিছু ত্রুটি থাকতেই পারে৷ তবে হ্যাক হওয়া চারটি ডোমেইনই পুনরুদ্ধার করা হয়েছে৷ আমরা আশা করি ভবিষ্যতে আর কোনো সমস্যা হবেনা৷ এর নিরাপত্তা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই৷''

তিনি আরো জানান, ‘‘এই ডোমেইনটি ডটবাংলার সঙ্গে মার্চ করে দেয়া হবে৷ তাহলে আর কোনো সমস্যা থাকবেনা৷''

ইন্টারনেট নিরাপত্তা দানকারী প্রতিষ্ঠান ‘সাইবার অ্যাট হোম'-এর প্রধান এবং তথ্য প্রযুক্তিবিদ সুমন আহমেদ সাবির ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘এটা এক ধরণের উদাসীনতা৷ আমার মনে হয়, বিটিসিএল কান্ট্রি ডোমেইন ডটবিডিকে কতটা গুরুত্ব দিচ্ছে তার ওপর অনেক কিছু নির্ভর করছে৷''

তিনি বলেন, ‘‘এই ডোমেইনের নিরাপত্তার জন্য প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার যেমন নেই, তেমনি দক্ষ লোকও নেই বিটিসিএল-এর৷ আমরা আশা করি, এটার দিকে গুরুত্ব দেবেন তারা৷''

সুমন আহমেদ সাবির জানান, ‘‘গত বছরে আরো একবার এই ডোমেইন হ্যাকিংয়ের শিকার হয়েছিল৷ তখন আমরা বিটিসিএলকে সহায়তা করেছি৷ এবারও সহায়তা চেয়েছে৷ আমরা সহয়াতা দেবো৷ তবে বিসিএলকেও সক্ষমতা অর্জন করতে হবে৷''

প্রঙ্গত, বাংলাদেশের কান্ট্রি ডোমেইন ডট বিডি উদ্বোধন করা হয় ৩১ সিসেম্বর৷ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই ডোমেইনের উদ্বোধন করেন৷ সরকারি প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ টেলিকম্যুনিকেশন কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল) এই কান্ট্রি ডোমেইন-এর মালিক৷ এর গ্রাহক সংখ্যা ৩৬ হাজার৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও