1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বিজয় দিবসে বাংলা স্কুল বার্লিনের বাংলাদেশ দূতাবাসে

দুই বাংলা মিলিয়ে প্রায় এক হাজার পরিবারের বাস বার্লিনে৷ এখানে কোনো বাংলা স্কুল নেই৷ নতুন প্রজন্ম বাংলা শিখতে আগ্রহী৷ ৪০-তম বিজয় দিবসে বাংলাদেশ দূতাবাস বাংলাস্কুল খুললো দূতাবাসেরই কার্যালয়ে৷

default

জার্মানিতে থাকা বাঙালি শিশু

বনতুলির বয়স চার৷ মা-বাবা কোলকাতার৷ বাড়িতে বাংলা বলেন৷ বনতুলি উল্টো৷ এক অক্ষরও বাংলা বলতে নারাজ৷ হেতু এই, কিন্ডারগার্টেনে ৮ ঘন্টা সময় কাটায়৷ খেলাধুলো করে৷ সব বন্ধুবান্ধবই বিদেশি৷ প্রত্যেকে জার্মান ভাষায় কথা বলে৷

মহীন বাংলাদেশের বরিশালের৷ ওঁর স্ত্রী জার্মান৷ স্বভাবতই ওঁরা কথা বলেন জার্মানভাষায়৷ ওঁদের কন্যা মৌমির বয়স সাত৷ জার্মানভাষী৷ মহীন বাঙালি বন্ধুদের সঙ্গে বাংলা বলেন৷ পিতার মাতৃভাষা শুনে মৌমির আবদার, বাংলা শিখবে৷ কিন্তু শেখাবে কে­? মহীনের কাজ বিকেল থেকে রাত অবধি৷ যখন ঘরে ফেরেন, মৌমি ঘুমিয়ে৷ সকালে স্কুলে যায়, ফেরে বিকেলে৷

সব পিতামাতাই চান সন্তান মাতৃভাষা শিখুক৷ এই ইচ্ছের কথা জানিয়েছিল বার্লিনের বাংলাদেশ দূতাবাসকে৷ বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মসুদ মান্নান বাংলাভাষা, বাংলা শিল্পসাহিত্যসংস্কৃতি প্রেমিক৷ ঠিক করেন, বাংলাদেশ দূতাবাসের একটি বাড়তি ঘরে বাংলাভাষা শিক্ষার স্কুল খুলবেন৷ প্রাথমিক স্তরে৷ খুললেন ৪০-তম বিজয় দিবসের সন্ধ্যায়৷ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে৷ মসুদ মান্নান জানান, স্কুলের অর্থব্যয় সরকারের তহবিল থেকে নয়৷ অভিভাবকরাই সাহায্য করবেন৷ ছাত্রছাত্রী দুই বাংলার৷ শিক্ষকশিক্ষিকাও দুই বাংলার৷ বিনা বেতনে পড়াবেন৷ রাষ্ট্রদূত মসুদ বলেন, মুক্তিযুদ্ধের ৪০ বছর পূর্তিতে শহীদদের প্রতি এটাই আমাদের মহান শ্রদ্ধার্ঘ৷

প্রতিবেদন: দাউদ হায়দার, বার্লিন

সম্পাদনা: আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়