1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বিজ্ঞাপনে নারী, নারীদেহ – আর নয়

টেলিভিশন দেখছেন৷ অনুষ্ঠানের ফাঁকে ফাঁকে দেখছেন বিজ্ঞাপন৷ অর্থাৎ দেখে চলেছেন সুন্দরী, আকর্ষণীয় নারী, নারীদেহ৷ শুধু মেয়েলি জিনিসের বিজ্ঞাপন নয়, ঘরকন্নার জিনিস – সাবান, খাবার, গাড়ি, ব্যাটারি, এমনকি আসবাবের বিজ্ঞাপনেও নারী!

আজকের এই বিশ্বায়নের যুগে পণ্যের বিজ্ঞাপন অপরিহার্য৷ তাই তো বড় বড় কোম্পানিগুলো তাদের মূলধনের একটা বড় অংশ ব্যয় করে বিভিন্ন মাধ্যমে বিজ্ঞাপন দিয়ে৷ টেলিভিশনের পর্দায় যে কোনো বিজ্ঞাপনকে ধরুন – তার প্রকাশভঙ্গি, মডেল নির্বাচন, কথাবার্তা – এগুলো নিয়ে কি একবারও প্রশ্ন ওঠে না আপনার মনে? মনে হয় না যে, প্রয়োজনে অপ্রয়োজনে কেন বার বার নারীদের টেনে আনা হচ্ছে? কেন তারা পরিণত হয়েছে শুধুমাত্র ভোগ্যবস্তুতে?

ভারতীয় বিজ্ঞাপনে আগে কাপড় কাচার সাবানের বিজ্ঞাপনে দেখানো হতো, নারীরা কাপড় ধুচ্ছেন৷ আর এখন দেখানো হয়, বউ বাড়িতে না থাকায় বাচ্চা-কাচ্চা নিয়ে বিপাকে পড়েছেন স্বামী৷ কীভাবে তিনি এত ময়লা কাপড় ধোবেন? দু'টি বিজ্ঞাপনেই বোঝানো হচ্ছে যে, কাপড় ধোয়া নারীর কাজ৷ এ তো কিছুই নয়৷ আজকাল তো বার্গার, আইসক্রিম, জুস, এমনকি গাড়ির বিজ্ঞাপনেও স্বল্পবসনা অথবা ‘সুইম স্যুট' পরা নারীর প্রয়োজন হচ্ছে৷ কেন? পণ্যটিকে আরো ‘আবেদনময়' করতে?

পোশাকের শালীনতা, সামাজিক মূল্যবোধ, রুচি – এ সব কথা না হয় বাদ দিলাম৷ কিন্তু মিডিয়া যদি এমন শিক্ষা দেয়, তবে সে দেশে নারী স্বাধীনতা কি সম্ভব? ‘না, সম্ভব নয়', বলছেন নারীবাদীরা৷ তাঁরা বলছেন অবিলম্বে নারীদের হেয় করে এমন বিজ্ঞাপন বানানো বন্ধ করতে, যা এই ভিডিওটা দেখলেই আপনি বুঝতে পারবেন৷

নারী-পুরুষের ভেদ নেই, এমন সমাজ গঠনে মিডিয়াকেই যে এগিয়ে আসতে হবে৷ তাই নয় কি?

ডিজি/এসি

নির্বাচিত প্রতিবেদন