1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বিক্ষোভ দমাতে এসে শিশু হত্যা করলো সিরীয় বাহিনী

১২ বছরের এক শিশুর জীবন কেড়ে নিলো সিরিয়ার সরকারি বাহিনী৷ রাজধানী দামাস্কাস থেকে ১’শ মাইল দূরের হোমস শহরে ঘটনাটি ঘটে৷ এদিকে, শহরের আনাচেকানাচে সেনা অভিযান আরও বাড়াতে সেনাবাহিনীর বাড়তি ট্যাংকের বহর রওনা দিয়েছে বলে খবর৷

default

হোমসে ইতিমধ্যেই বিক্ষোভ প্রদর্শন শুরু করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা

রাজনৈতিক স্বাধীনতা চেয়ে এবং দুর্নীতি বন্ধ করার দাবিতে গত বেশ কয়েক সপ্তাহ ধরে সিরিয়ায় চলছে প্রেসিডেন্ট বাসার আল-আসাদ বিরোধী বিক্ষোভ৷ এই বিক্ষোভ রাজধানী দামাস্কাস থেকে ছড়িয়ে পড়েছে দেশের বিভন্ন প্রান্তে৷ প্রায় দশ লাখ মানুষের শহর হোমসে ইতিমধ্যেই বিক্ষোভ প্রদর্শন শুরু করেছেন স্থানীয় বাসিন্দারা৷ আর এর বিরুদ্ধেই শক্ত অবস্থান নিয়েছেন প্রেসিডেন্ট৷

সেখানকার মানবাধিকার সংগঠনগুলো জানাচ্ছে, সেনাবাহিনীর স্টিম রোলারের বলি হচ্ছে সাধারণ মানুষ৷ গতরাতেও সেখানে অটোমেটিক রাইফেলের গর্জন শুনেছেন শহরবাসী৷ শহরের বাব সাবাহ, বাব আমরো আর টাল আল-সোর'এ ট্যাংক নিয়ে বিভিন্ন স্থানে টহল দিচ্ছে সেনাবাহিনী৷ চলছে ব্লাক আউট৷ শুধু তাই নয়, টেলিফোন সংযোগও বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে৷ আর সেখানেই গত রাতে সেনাবাহিনীর গুলিতে নিহত হয়েছে একটি শিশু৷ যার বয়স মাত্র ১২ বছর৷

এদিকে, আজই প্রেসিডেন্ট আসাদের নির্দেশে সেনাবাহিনীর ট্যাংক বহর শহরের পার্শ্ববর্তী এলাকাগুলোর দিতে অগ্রসর হচ্ছে৷ ধারণা করা হচ্ছে, আন্দোলনের মূল উৎপাটন করতে তারা সেই এলাকাগুলোতে অভিযান পরিচালনা করবে৷ অন্যদিকে, প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, গত রাতে অপর শহর দিয়ার আল-জোর'এ দুই জন সাধারণ বিক্ষোভকারীকে হত্যা করেছে সরকারি সেনারা৷

উল্লেখ্য, গত কয়েক সপ্তাহের আন্দোলনে অন্তত ৮০০ মানুষ নিহত হয়েছে সিরিয়ায়৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ