1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বিএনপির আশা, এবার সমাবেশের অনুমতি দেবে সরকার

এক মাস সভা, সমাবেশ নিষিদ্ধ থাকার পর ১২ই জুন বুধবার ঢাকায় সমাবেশ ডেকেছে প্রধান বিরোধী দল বিএনপি৷ পুলিশ বলেছে, তারা সেই আবেদন যাচাই-বাছাই করে তারপর সিদ্ধান্ত জানাবে৷

গত এক মাস ঢাকায় কোনো সভা, সমাবেশ করেনি বিএনপি৷ তাদের তা করতেও দেয়া হয়নি৷ এই একমাস স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নির্দেশে ঢাকায় সভা, সমাবেশ বন্ধ ছিল৷ বিএনপি তাই ১২ই জুন দুপুরের পর নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশ ডেকেছে৷ নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা ফিরিয়ে আনা, তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা প্রত্যাহার এবং আটক নেতা-কর্মীদের মুক্তির দাবিতে এই সমাবেশ৷

বিএনপি-র চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা শামসুজ্জামান দুদু ডয়চে ভেলেকে জানান, তারা সমাবেশের অনুমতি চেয়ে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের কাছে আবেদন করেছেন৷ পুলিশ আবেদন গ্রহণ করেছে৷ তাদের আশা, সমাবেশ করার অনুমতি এবার দেয়া হবে৷ তিনি জানান, পুলিশ যখন আবেদেনটি গ্রহণ করেছে, তাহলে ধরেই নেয়া যায় সমাবেশের অনুমতি মিলবে৷

তবে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মনিরুল ইসলাম ডয়চে ভেলেকে জানান, তারা আবেদনটি যাচাই বাছাই করে সিদ্ধান্ত জানাবেন৷ তবে তারা সড়ক আটকে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করে সভা সমাবেশ নিরুত্‍সাহিত করেন৷ খোলা মাঠে সভাসমাবেশ তারা উত্‍সাহিত করেন৷ কোনো সভা সমাবেশের অনুমতি দেয়ার আগে তারা সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা এবং আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতিকে সর্বোচ্চ বিবেচনায় নেয়৷ আর যারা সমাবেশ করেন, তাদের কাছ থেকে কোনো নাশকতার ঘটনা না ঘটানোর প্রতিশ্রুতি চান৷

বুধবারের সমাবেশে বিএনপির'র চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া থাকবেন কিনা, তা এখনো নিশ্চিত নয়৷ স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন ডয়চে ভেলেকে বলেন, সমাবেশ থেকে নতুন কর্মসূচি আসবে৷ তবে কী কর্মসূচি দেয়া হবে তা নিয়ে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি৷ বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন জানান, খালেদা জিয়া সমাবেশে থাকবেন কিনা সে সিদ্ধান্ত এখনো হয়নি৷ তারা এখন তাদের সমাবেশের অনুমতির ব্যাপারে কী সিদ্ধান্ত দেয় সরকার, তা জানার অপেক্ষায় আছেন৷ শামসুজ্জামান দুদু বলেন, ১৫ই জুন দেশের চার সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে তারা গুরুত্ব দিচ্ছেন৷ জানা গেছে, এই নির্বাচনের ফলাফল দেখেই বিএনপি সরকার বিরোধী পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করবে৷

গত ১১ এবং ১৫ই মে নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সমাবেশের অনুমতি চেয়েও পায়নি বিএনপি৷ এরপর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহিউদ্দিন খান আলমগীর ১ মাস সভা সমাবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞার কথা জানান৷ বিএনপি একমাস পর আবার সেই নয়াপল্টনেই সমাবেশের কর্মসূচি দিল৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়