1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

বায়ার্নে চাপের মুখে গুয়ার্দিওলা

গত মৌসুমে তিনটি সাফল্যের ষোলকলা পূর্ণ করেছে বায়ার্ন মিউনিখ৷ নতুন কোচ পেপ গুয়ার্দিওলার ওপর তা যে বাড়তি চাপ তৈরি করবে সেটা কে না জানতো! নতুন মৌসুমের শুরুতে সত্যিই কর্মকর্তাদের চাপের মুখে পড়েছেন গুয়ার্দওলা৷

চ্যাম্পিয়ন্স লিগ, বুন্ডেসলিগা আর জার্মান কাপ – এই তিন আসরের চূড়ান্ত সাফল্যে গত মৌসুমে ‘ট্রেবল' জয়ের উল্লাসে ভাসে বায়ার্ন মিউনিখ৷ সে অবস্থাতেই ইয়ুপ হাইনকেস-এর বিদায় এবং কোচ হিসেবে পেপ গুয়ার্দিওলার আগমন৷ পূর্বসূরিকে এক মৌসুমের সাফল্যে ছাড়িয়ে যাওয়া তো অসম্ভব, তাই বলে সমান সাফল্যের আশা করতে দোষ কোথায়! সে আশা নিয়েই বার্সেলোনার অনেক সাফল্যের নেপথ্যের নায়ক গুয়ার্দিওলার দিকে তাকিয়ে আছে বায়ার্ন৷

কিন্তু এবার বুন্ডেসলিগায় শুরুটা ভালো হয়নি জার্মান ফুটবলের সফলতম ক্লাবটির৷ বুন্ডেসলিগায় এ মুহূর্তে তারা দ্বিতীয় স্থানে৷ সবার ওপরে বোরুসিয়া ডর্টমুন্ড৷ শনিবার নিজেদের মাঠেই হানোফার ৯৬-এর মুখোমুখি হবে বায়ার্ন৷ তারপর আগামী তিন সপ্তাহ ধরে চলবে বুন্ডেসলিগা, জার্মান কাপ আর চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ম্যাচ৷ কোথাও প্রতিপক্ষ রাশিয়ার সিএসকে মস্কো, ইংল্যান্ডের ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড, কোথাও বা জার্মানির বায়ার লেভারকুজেন, কিংবা শালকে৷ হাল্কাভাবে নেয়ার মতো ম্যাচ নেই একটাও৷ কয়েক দিন আগে বুন্ডেসলিগায় ফ্রাইবুর্গের বিপক্ষের ম্যাচটিকে সেভাবেই নিয়েছিলেন গুয়ার্দিওলা৷ নিয়মিত খেলোয়াড়দের বিশ্রাম দিয়েছিলেন বিশ্রামের সুযোগ৷ পরিণাম ১-১ ড্র এবং পয়েন্ট খোয়ানো৷ শনিবার হানোফারের মুখোমুখি হবার আগে তাই বায়ার্নকর্তারা সতর্ক৷

ম্যাচের আগে কোচ গুয়ার্দিওলাকেও সতর্কতাবার্তা শুনিয়েছেন তাঁরা৷ গত মৌসুমের সাফল্যের কথা মনে করিয়ে দিয়ে ক্লাব প্রেসিডেন্ট উলি হ্যোনেস জার্মানির দৈনিক বিল্ড-কে বলেছেন, ‘‘এখন আমাদের পূর্ণ শক্তি নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে৷'' চেয়ারম্যান কার্লহাইনৎস রুমেনিগে বলেছেন, ব্যর্থতার কারণ হিসেবে কোনো অজুহাত দাঁড় করানোর সুযোগ নেই৷ বায়ার্নের ডিরেক্টর অফ স্পোর্ট মাটিয়াস সামার মনে করেন, ফ্রাইবুর্গের বিপক্ষে খেলোয়াড় নির্বাচনে দুশ্চিন্তা বাড়ানোর মতো ঝুঁকি নিয়েছেন গুয়ার্দিওলা৷ এ পরিস্থিতিতে বায়ার্ন মিউনিখের সব কর্মকর্তার এক কথা – ট্রেবল জয়ের সাফল্য ধরে রাখতে চাইলে কোনো রকমের ঝুঁকি নেয়া বা চেষ্টার ত্রুটি করা চলবে না৷

এসিবি / এসবি (এএফপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়