1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বাহরাইনে নিপীড়নের ঘটনা বেড়েছে : এইচআরডব্লিউ

যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক মানবাধিকার সংগঠন ‘হিউম্যান রাইটস ওয়াচ’ বলছে বাহরাইনে বন্দিদের জিজ্ঞাসাবাদের সময় নিপীড়নের ঘটনা বেড়ে গেছে৷ এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে ২০০৭ সাল থেকে বন্দি নিপীড়নের তিনটি ঘটনার তদন্তের দাবি জানিয়েছে তারা৷

default

পারস্য উপসাগরীয় দেশগুলিতে বিদেশী শ্রমিকদের প্রায়ই শোষণের মুখে পড়তে হয়

নিউ ইয়র্কের এই মানবাধিকার সংগঠন দাবি করেছে, বাহরাইনের নিরাপত্তা বাহিনী জিজ্ঞাসাবাদের সময় সন্দেহভাজন বন্দিদের ঘরের সিলিং থেকে ফেলে দিচ্ছে এবং বৈদ্যুতিক শক দিচ্ছে, মারধর করছে৷

পশ্চিমের মিত্র দেশ বাহরাইনে যুক্তরাষ্ট্রের পঞ্চম নৌবহর নোঙর করা এবং দেশটির শাসকরা মূলত সুন্নি সম্প্রদায়ের৷ কিন্তু, দেশটিতে শিয়া সম্প্রদায়ের মানুষরাই সংখ্যাগরিষ্ঠ৷ শিয়াদের অভিযোগ সরকারি চাকরিসহ নানা ক্ষেত্রে বৈষম্যের শিকার তারা৷ অবশ্য, দেশটির সরকারি কর্মকর্তারা এ অভিযোগ অস্বীকার করে আসছেন৷

২০০৭ এবং ২০০৮ সালে কয়েকটি শিয়া গ্রামে নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গে সংঘর্ষের পর গ্রেপ্তারকৃতদের বিষয়ে তদন্তের পর মানবাধিকার সংগঠনটি নিপীড়ন বেড়ে যাওয়ার বিষয়ে এক প্রতিবেদন প্রকাশ করে৷ বাহরাইনের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘‘জাতীয় স্বার্থের বিবেচনায় দ্রুত এই অভিযোগ (এইচআরডব্লিউ‘র) খতিয়ে দেখবে তারা৷''

এইচআরডব্লিউ‘র উপপরিচালক জো স্টর্ক রাজধানী মানামায় এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ২০০১ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত বাহরাইনে শারীরিক নির্যতনের কোনো অভিযোগ পাননি তারা৷ স্টর্ক বলেন, ‘‘বাহরাইন জনগণকে এবং বিশ্ববাসীকে এটা দেখাতে পেরেছিল যে, রাজনৈতিক সদিচ্ছা থাকলে নিপীড়ন দূর করা আসলেই সম্ভব৷''

কিন্তু, ২০০৭ সালের মাঝামাঝি সময় থেকেই দৃশ্যপট পাল্টাতে শুরু করে বলে বলা হয়েছে এইচআরডব্লিউ‘র প্রতিবেদনে৷ ২০০৮ সালে পুলিশের এক সদস্যকে হত্যার অভিযোগ আটক ১৯ শিয়া বন্দির মামলা তদন্ত করেছে সংগঠনটি৷ একই বছরে বাহরাইনের আদালত ওই অভিযুক্তদের খালাস করে দেয়৷ মামলার বিচারক স্বীকার করেছেন, জিজ্ঞাসাবাদের সময়ে বন্দিদের ওপর শারীরিক নির্যাতন চালানোর প্রমাণ পাওয়া গেছে৷

তবে, সর্বশেষে এই নিপীড়নের ঘটনা সত্ত্বেও বাহরাইন এখনও আগের তুলনায় অনেক ভাল অবস্থানে রয়েছে বলে উল্লেখ করে স্টর্ক জানান, ‘‘১৯৯০ এর দশকের চেয়ে অবস্থা এখনও ভাল৷ সেসময় বন্দিরা প্রায় নিয়মিতই নিপীড়নের শিকার হত৷''

হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এই ঘটনার দ্রুত তদন্ত এবং দোষীদের চিহ্নিত করে শাস্তির ব্যবস্থা করার জন্য বাহরাইন সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে৷

বাহরাইন একটি জাতীয় মানবাধিকার কমিশন প্রতিষ্ঠা করতে যাচ্ছে এবং দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় একটি নিজস্ব মানবাধিকার শাখা খুলেছে যেখানে নিপীড়নে বিষয়ে অভিযোগ করতে পারছেন নাগরিকরা৷

প্রতিবেদনর : মুনীর উদ্দিন আহমেদ

সম্পাদনা : আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়