1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বাসের ভাড়া, ব়্যাব এবং মমতার শপথ

এগুলো নিয়েই বাংলাদেশের পত্র-পত্রিকায় আলোড়ন৷ ভাড়া নিয়ে হ-য-ব-র-ল৷ ব়্যাবকে বিলুপ্ত করতে দেশী বিদেশী চক্রান্তের অভিযোগ৷ ওদিকে পশ্চিমবঙ্গে ‘দিদি’ হতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী৷

default

গগনস্পর্শী জনপ্রিয়তা

ভাড়া নিয়ে বিশৃঙ্খলা চরমে উঠেছে৷ হ-য-ব-র-ল'র তুলনাটা দিয়েছে দৈনিক জনকণ্ঠ৷ বৃহস্পতিবারও নাকি ইচ্ছামতো ভাড়া আদায় করেছে পরিবহণ মালিকরা৷ বাস কাউন্টারে নতুন ভাড়ার তালিকা দেখা যায়নি৷ সরকারের নির্ধারিত সর্বনিম্ন বাস-মিনিবাস ভাড়া যথাক্রমে পাঁচ ও সাত টাকা হলেও, যাত্রীদের কাছ থেকে আদায় করা হয়েছে ১০ থেকে ১৮ টাকা পর্যন্ত৷ বিআরটিসি'ও ভাড়া বাড়ানোর দৌড়ে পিছিয়ে নেই৷ আর অটোরিক্সা চালকদের নৈরাজ্য তো চলেছেই৷

যাত্রী ‘ঠকানোর' নাকি আরো পন্থা আবিষ্কৃত হয়েছে৷ প্রথম আলো জানাচ্ছে বাসমালিকদের এক ‘দূরত্ব চুরির' কৌশলের কথা৷ টিকিটে ভাড়া এক, কিন্তু যাত্রা শুরু ও গন্তব্যের স্থান একাধিক রেখে ইচ্ছেমতো টিকিট বিক্রির কৌশল নিয়েছেন তারা৷ ফলে কম দূরত্বে যাতায়াত করেও যাত্রীদের বেশি দূরত্বের ভাড়া দিতে হচ্ছে৷ যাত্রীরা এ'সব মেনে নিতে রাজি নন৷ তাই ‘ভাড়া সন্ত্রাস' রোধে আইন হাতে তুলে নিচ্ছে যাত্রীরা - এই হল ইত্তেফাকের শিরোনাম৷ পরে বিবরণে রয়েছে পরিবহণ শ্রমিকদের সঙ্গে যাত্রীদের তর্কাতর্কি-মারামারির কাহিনী৷

ব়্যাবকে বিলুপ্ত করতে দেশী-বিদেশী চক্রান্তের কথা বলেছেন প্রধানমন্ত্রীর প্রতিরক্ষা বিষয়ক উপদেষ্টা৷ ংঅবসরপ্রাপ্ত মেজর জেনারেল তারেক আহমেদ সিদ্দিকী দেশের বিভিন্ন দল, প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তির সঙ্গে বিদেশী এনজিও'গুলোর যোগসাজসের কথা বলেছেন - জানাচ্ছে জনকণ্ঠ৷ আর যে পত্রিকাটিতে ‘৪০ দিনে ব়্যাবের বিরুদ্ধে ৪৮টি প্রতিবেদন ছাপা হয়েছে', তার সম্পাদক সম্পর্কে সিদ্দিকীর প্রশ্ন: ‘উনি কি পার্ট অব জঙ্গি?' ঐ সম্পাদককে গ্রেপ্তার করার মতো ‘সারকামস্ট্যানশিয়াল এভিডেন্স' নাকি ব়্যাবের হাতে আছে৷ শুধু প্রধানমন্ত্রী সংবাদমাধ্যমের প্রতি সংবেদনশীল বলেই তাঁকে গ্রেপ্তার করা যাচ্ছে না৷

Mitglieder des sogenannten Rapid Action Battalion (RAB) in Dhaka, Bangladesh

বিডিআর বিদ্রোহের সময় নিযুক্ত ব়্যাব সদস্যরা

আজ শুক্রবার পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিচ্ছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়৷ বাংলাদেশের সংবাদমাধ্যমে বিশেষ গুরুত্ব পেয়েছে ওনার বাংলা ভাষায় শপথ নেওয়া৷ অপরদিকে সে অনুষ্ঠানে মনমোহন সিং এবং সোনিয়া গান্ধীর ঘোষিত অনুপস্থিতিও উল্লিখিত হয়েছে৷ যুগান্তরের মন্তব্য হল, ‘জনমানুষের আকাশচুম্বী প্রত্যাশা আর গণমানুষের নেত্রীর গগনস্পর্শী জনপ্রিয়তার মীমাংসা কি হবে, সেটা এখন দেখার বিষয়'৷

গ্রন্থনা: অরুণ শঙ্কর চৌধুরী

সম্পাদনা: হোসাইন আব্দুল হাই

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়