1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

পাঠক ভাবনা

বালাককে হারানোর

রাত জেগে প্রিয় দল জার্মানির খেলা দেখাটা যে এতো চিত্তাকর্ষক হবে ভাবতেই পারিনি৷ জার্মানির এই উড়ন্ত সূচনা আমাদের কেবল আনন্দই দেয়নি স্বস্তিও দিয়েছে৷ বালাককে হারানোর শোক যে ...

default

জার্মান খেলোয়াড়দের শক্তিতে পরিণত করতে পেরেছে সেটাই সবচেয়ে বড় অর্জন৷ প্রিয় দল এভাবেই হাতে তুলুক শিরোপা-এটাই আমাদের শুভকামনা ও প্রত্যাশা৷ আশরাফুল ইসলামও সিম্মী আহমেদ কোয়েল, জয়সিদ্ধি, ইটনা, কিশোরগঞ্জ, বাংলাদেশ৷

অস্ট্রেলিয়াকে চার গোলের ব্যবধানে পরাজিত করে ২০১০ এর বিশ্বকাপ ফুটবলে অসাধারণ জয়যাত্রা শুরু করলো জার্মানি৷ জার্মান দলের সকলকে জানাই আমার আন্তরিক উষ্ণ অভিনন্দন, সৌরদীপ সরকার, জিয়াগঞ্জ, মুর্শিদাবাদ, ভারত৷

বর্তমান যুগ ইন্টারনেটের যুগ, আর এই ইন্টারনেটের সুবিধা রয়েছে যাদের তারা ইন্টারনেট ব্রাউজ করতে গেলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই তাদের ই-মেইল আইডিটি ওপেন করে থাকে, আর সেই ই-মেইলেই যদি পাওয়া যায় ডয়চেভেলের সব তরতাজা সংবাদ, এটা সত্যিই বাংলা ভাষাভাষী শ্রোতাদের জন্য এক বড় পাওয়া৷ হ্যাঁ আমি ডয়চেভেলে বাংলা বিভাগের নিউজলেটারের কথা বলছি৷ ধন্যবাদ বাংলা বিভাগকে নতুন এই পরিষেবা চালু করার জন্য৷ মোঃ গোলাম রসুল, সোনার বাংলা রেডিও ক্লাব, হরিপুর, খড়িখালী, ঝিনাইদহ, বাংলাদেশ৷

আমার প্রিয় দল জার্মানি৷ আপনাকে যদি কেউ প্রশ্ন করে, ফিফা ফুটবল বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশি ফাইনাল খেলেছে কোন দল ? উত্তর হবে জার্মানি (ব্রাজিলও)৷ জার্মানি বিশ্বকাপ ফাইনাল খেলেছে ৭ বার, ৩ বার চ্যাম্পিয়ন ও ৪ বার রানার্সআপ আর সেমি ফাইনাল খেলেছে ১১ - ৭ = ৪ বার৷ ব্রাজিল ফাইনাল খেলেছে ৭ বার, ৫ বার চ্যাম্পিয়ন ও ২ বার রানার্সআপ এবং ইতালি ফাইনাল খেলেছে ৬ বার, ৪ বার চ্যাম্পিয়ন ও ২ বার রানার্সআপ৷ সুতরাং ব্রাজিল ও ইতালির পরে বিশ্বের শক্তিধর ফুটবল দল জার্মানি৷ আর সে কারণেই আমি জার্মানির সমর্থক৷

ফুটবলে ৫ ব্যক্তি আমার খুবই প্রিয়৷ এরা হলেন পেলে, বেকেনবাওয়ার, কান, বালাক ও সালাউদ্দিন৷ এদের মধ্যে ৩ জনই জার্মান৷ কোন ব্যক্তি কোন একটি দলকে সমর্থন করে সেই দলের ইমেজ ও খেলোয়াড়দের জন্য৷ জার্মান দলে সবসময়ই কয়েকজন বিখ্যাত খেলোয়াড় থাকে আর তাদের খেলাও ধারাবাহিক৷ সবসময়েই স্বাভাবিক ছন্দময় খেলে জার্মান দল৷ খুব ভাল অবস্থায়ও অতি উচ্ছ্বাস নেই, আবার খারাপ সময়েও ভেঙ্গে পড়ে না৷ দুঃসময়েও জার্মানির একনিষ্ঠভাবে লড়াই করে যাওয়ার মনোভাব আমাকে খুবই আকৃষ্ট করে৷

ক্রিকেটের মত ফুটবলে ঘন ঘন রেকর্ড হয়না বা ঘন ঘন রেকর্ড ভঙ্গ হয়না৷ তারপরও জার্মানির আছে অনেক রেকর্ড৷ জার্মানি সবচেয়ে বেশি বার ফাইনাল খেলেছে, সবচেয়ে বেশি টানা ফাইনাল খেলেছে এবং সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলেছে৷ গত (২০০৬) বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ সংখ্যক গোল (১৪) করেছে এবং এপর্যন্ত বিশ্বকাপে সেরা ১০ স্কোরারের ৪ জনই জার্মানির৷ বিশ্বকাপে সবচেয়ে বেশিবার অংশগ্রহণ করেছ জার্মানির লোথার ম্যাথিউস আর উভে জেলার টানা ৪ বিশ্বকাপে গোল করেছে৷ কোচ ও খেলোয়াড় হিসাবে বিশ্বকাপ জিতেছে বেকেনবাওয়ার৷ গোল্ডেন বল পাওয়া একমাত্র গোলকিপার কান৷ এবার ২০১০ সালের বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ১০ গোল নিয়ে খেলতে যাচ্ছে মিরোস্লাভ ক্লোজে৷ আমার বিশ্বাস, এবার আরো ৬ গোল করে তিনি রোনালদোকে ছাড়িয়ে যাবেন৷ যাদের আছে এতসব রেকর্ড, সেই দলটিকে কি সমর্থন না করে পারা যায় !

ফুটবল সবচেয়ে জনপ্রিয় ইউরোপে৷ ফুটবলের উৎকর্ষ ও বিকাশ এ মহাদেশেই ঘটেছিলো বেশি৷ তাই ইউরোপের সবচেয়ে বেশি সংখ্যক দেশ বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পায়৷ আর সেই ইউরোপে ফুটবলের পাওয়ার হাউস বলা হয় জার্মানিকে৷

জার্মানির বর্তমান দলটিও সেরা৷ আহত হওয়ার কারণে এ বিশ্বকাপে খেলতে না পারা মিশায়েল বালাকের কথা না হয় বাদই দিলাম৷ দলে আছে মিরোস্লাভ ক্লোসে, বাস্তিয়ান শোয়াইস্টাইগার, মারিও গোমেজ, লুকাস পোডলস্কি ও ফিলিপ লামের মত খেলোয়াড়৷ আর আছে সেরা কোচ ইওয়াখিম ল্যোয়েভ৷

আমি দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি, মিশায়েল বালাককে হারানোর ব্যথা পরিণত হবে শক্তিতে৷ দলের সবাই চাইবে বিশ্বকাপ জিতে বালাককে উপহার দিতে৷ তাই ২০১০ এর বিশ্বকাপ জিতবে জার্মানিই৷ আগাম অভিনন্দন জার্মানিকে৷ মোঃ শাহাদত হোসেন , ইন্টারন্যাশনাল লিসেনার্স ক্লাব , ১৫৯ সুরমা আ/এ, সুনামগঞ্জ -৩০০০, বাংলাদেশ৷