1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

স্পেন

বার্সেলোনায় হামলা: স্থানীয় মুসলমানদের মধ্যে আতঙ্ক

স্পেনের পুলিশের ধারণা বার্সেলোনা হামলার পেছনে রিপোলের একজন ইমামের হাত রয়েছে, যিনি সেখানকার যুব সম্প্রদায়ের মধ্যে জিহাদের আদর্শ ছড়িয়ে দিয়েছেন এবং হামলার পর থেকে তার খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না৷ স্থানীয় মুসলমানরা রয়েছেন আতঙ্কে৷

শনিবার রিপোলে ঐ ইমামের বাড়িতে তল্লাশি চালায় পুলিশ৷ ইমাম আব্দেলবাকি এস সাটি অবশ্য জুনে রিপোল মসজিদে ইমামের দায়িত্ব ছেড়ে অন্যত্র চলে যান৷ মসজিদের বর্তমান ইমাম জানিয়েছেন, সাটি পরিচিতদের জানিয়েছিলেন যে তিন মাসের জন্য মরক্কোতে নিজের বাড়িতে যাচ্ছেন তিনি৷ তদন্ত কর্মকর্তাদের ধারণা, ঐ ইমাম সন্দেহভাজন হামলাকারীদের হামলা চালাতে প্রভাবিত করেছিলেন৷ তবে পুলিশের ধারণা, আলকানার একটি বিস্ফোরণে সাটি নিহত হয়েছেন৷ সেখানে একটি অ্যাপার্টমেন্টে বোমা বানানোর সময় তা বিস্ফোরিত হয়েছিল৷ তবে সাটি তার ফ্ল্যাটে যে ব্যক্তির সঙ্গে থাকতেন, তিনি জানান, গত সপ্তাহে তাকে শেষবারের মতো দেখা গিয়েছিল৷



স্থানীয় মুসলিমদের আতঙ্ক

বার্সেলোনায় সিরিজ হামলার পর থেকে সেখানকার মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে আতঙ্ক বিরাজ করছে৷ বার্সেলোনার রাভালের কেন্দ্রে একটি ছোট মসজিদ৷ সেখানকার ইমাম রাজা মিয়া জানালেন, মুসল্লিরা গত দু'দিনে খুব একটা আসছে না মসজিদে৷ রাজা ন'বছর আগে বাংলাদেশ থেকে বার্সেলোনায় আসেন৷ তিনি জানান, ‘‘আমাদের সবার মধ্যে এতটাই আতঙ্ক বিরাজ করছে যে অনেকেই বাড়ির বাইরে বের হচ্ছেন না৷ অনেক কম মানুষ নামাজ পড়তে আসছেন৷ সাধারণত ৪০ থেকে ৫০ জন নামাজ পড়তে আসেন, সেখানে ১০ থেকে ১৫ জন এখন নামাজ পড়তে আসছেন৷'' বৃহস্পতিবার এই শহরেই ভিড়ের মধ্যে গাড়ি চালিয়ে ১৪ জনকে হত্যা করা হয় এবং আহত হয় বেশ কয়েকজন৷ এই হামলার দায় স্বীকার করেছে তথাকথিত ইসলামিক জঙ্গি গোষ্ঠী আইএস৷ এর কয়েক ঘণ্টা পরে ক্যামব্রিলসে একই ধরনের হামলায় আরও একজন নিহত হয়৷ পুলিশের গুলিতে সন্দেহভাজন পাঁচজন নিহত হয়৷

স্পেনে চরম ডানপন্থি দলগুলোর আধিপত্য তেমন একটা চোখে পড়ে না৷ সরকারি এক জরিপে দেখা গেছে, স্পেনের মাত্র চার ভাগ মানুষ অভিবাসীদের ‘সমস্যা' হিসেবে মনে করে৷ তবে এটা ঠিক যে সাম্প্রতিককালে ইউরোপ জুড়ে যে জঙ্গি হামলার ঘটনাগুলো ঘটেছে, তার দায় স্বীকার করেছে ইসলামি জঙ্গি দল বা আইএস৷ এরপর থেকে বিদেশিদের প্রতি ঘৃণা প্রদর্শনের ঘটনা বেড়েছে৷ বিভিন্ন জরিপ থেকে দেখা যাচ্ছে ২০১৪ সালে এমন ঘটনার সংখ্যা যেখানে মাত্র ৪৮টি রেকর্ড করা হয়েছিল, ২০১৫ সালে তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৩৪টিতে৷ তাই বার্সেলোনায় এই হামলার পর এরকমহামলা অনেক বেড়ে যাবে বলে আশংকা করছেন স্থানীয় মুসলমানরা৷

কাটালান: ইসলামি জঙ্গিবাদ যেখানে একটি সমস্যা

স্পেনের অন্যান্য শহরের চেয়ে বার্সেলোনায় ইসলামি উগ্রবাদীরা বেশি সোচ্চার৷ এটা হয়ত সেখানকার সরকারের স্বৈরাচারী আচরণের কারণে৷ এছাড়া এই শহরে বহুজাতিক মানুষের বাস৷

২০১০ সালে উইকিলিক্সের ফাঁস হওয়ার তথ্যে দেখা যায়, মার্কিন পররাষ্ট্র বিভাগ সেসময়ই কাটালানে তরুণ মুসলিমদের মধ্যে উগ্রবাদী আচরণ ছড়িয়ে পড়ার আশংকা করছিল এবং সতর্ক হওয়ার প্রয়োজন অনুভব করেছিল৷ বলা হয়, কাটালান যে হুমকির মুখে এটা স্পষ্ট৷ আরও বলা হয়েছে, বার্সেলোনায় মুসলিম সম্প্রদায় বেশ বড় এবং তাদের মধ্যে কিছু যুবক ও তরুণদের দলে টানছে জিহাদি দলগুলো৷ উত্তর আফ্রিকা, পাকিস্তান এবং বাংলাদেশ থেকে আসা অভিবাসীরা এদের মধ্যে অন্যতম৷

এপিবি/ডিজি (এপি, এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়