1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

খেলাধুলা

বার্সেলোনার ভবিষ্যত কিনে নিল বায়ার্ন!

লিওনেল মেসির মতোই বার্সেলোনার যুব অ্যাকাডেমিতে ফুটবল শিখেছেন টিয়াগো আলকানতারা৷ তাঁর নেতৃত্বেই গত মাসে ইউরোপীয় অনূর্ধ্ব-২১ চ্যাম্পিয়নশিপ জিতেছে স্পেন৷ ফাইনালে চার গোলের মধ্যে তিনটিই করেছেন এই মিডফিল্ডার৷

অনেকের মতে, বার্সেলোনার ভবিষ্যত ছিলেন টিয়াগো৷ মাঝমাঠে জাভির বিকল্প ভাবা হচ্ছিল তাঁকে৷ সেই টিয়াগোকে কিনে নিচ্ছে ইউরোপের বর্তমান চ্যাম্পিয়ন বায়ার্ন মিউনিখ৷ শিগগিরই তাঁর সঙ্গে চুক্তি করতে যাচ্ছে জার্মান লিগের শিরোপাধারী ক্লাবটি৷ বায়ার্ন, বার্সা দুই পক্ষই তাদের ওয়েবসাইটে খবরটি প্রকাশ করেছে৷

টিয়াগোকে বায়ার্নে পেতে চেয়েছিলেন নতুন কোচ পেপ গুয়ার্দিওয়ালা, যিনি আগে বার্সার কোচ ছিলেন৷ ফলে টিয়াগো কি মাপের খেলোয়াড়, তা ভালো করেই জানা ছিল গুয়ার্দিওয়ালার৷ তাই টিয়াগোকে দলে পেতে কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানিয়েছিলেন৷ সঙ্গে সঙ্গেই সেটা পূরণ করে বায়ার্ন৷ দলের প্রধান নির্বাহী কার্ল-হাইনৎস রুমেনিগে বলছেন, ‘‘আমাদের নতুন কোচ টিয়াগোকে খুব করে দলে চাইছিল৷ তাই আমরা তাঁকে পাওয়ায় খুব খুশি৷ আশা করি, এর ফলে বায়ার্ন আরও শক্তিশালী হবে, কেননা টিয়াগো একজন প্রতিভাবান খেলোয়াড়৷''

এদিকে, টিয়াগোকে ছেড়ে দেওয়ায় বার্সা সমর্থকদের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে৷ বার্সেলোনা দলটি স্পেনের যে রাজ্যে অবস্থিত সেই কাতালনিয়ার পত্রিকা ‘মুন্ড ডেপোর্টিভো'-র এক অনলাইন জরিপে ৫৭ শতাংশ পাঠক বলেছেন, টিয়াগোকে বার্সায় রেখে দেয়া উচিত ছিল, কিংবা তাঁকে আরও উঁচু দরে বিক্রি করা যেত৷ টিয়াগোর বিনিময়ে বার্সা বায়ার্নের কাছ থেকে ২৫ মিলিয়ন ইউরো পাবে, যেটা দিয়ে বার্সা একজন ডিফেন্ডার কিনতে চাইছে৷

মাদ্রিদের পত্রিকা ‘এএস' বলছে, বার্সেলোনা তাদের ভবিষ্যত নেতাকে হারাল৷

কে এই টিয়াগো?

জন্ম ইটালিতে৷ বাবা ব্রাজিলের ১৯৯৪ সালের বিশ্বকাপজয়ী দলের খেলোয়াড় মাজিনহো৷ গত মাসে সমাপ্ত ইউরোপীয় অনূর্ধ্ব-২১ চ্যাম্পিয়নশিপের ‘সেরা খেলোয়াড়' হয়েছেন৷ স্পেনের মূল দলের হয়ে খেলেছেন তিনটি ম্যাচ৷ আর বার্সার হয়ে গত মরসুমে খেলেছেন ১৫টি লিগ ম্যাচ, দুটি চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচ ও কিংস কাপের সাতটি ম্যাচ৷ গণমাধ্যমের খবরে বলা হচ্ছে, বার্সায় বেশি ম্যাচ খেলতে না পারায় টিয়াগো হতাশ হয়ে পড়ছিলেন৷ এই সুযোগে বিশ্বের নামিদামি ক্লাবগুলো তাঁর প্রতি হাত বাড়িয়েছিল৷ শেষ পর্যন্ত তিনি তাঁর সাবেক বস গুয়ার্দিওলার কাছেই যাচ্ছেন৷

জেডএইচ/ডিজি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়