1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

জার্মানি

বার্লিনে বিমানবন্দরে হামলার পরিকল্পনা, গ্রেফতার এক

বিদেশি সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সদস্য সন্দেহে বার্লিনে এক সিরীয় তরুণকে আটক করেছে অপরাধ তদন্ত দল৷ রাজধানীর বড় দু'টি বিমানবন্দরের একটিতে সে হামলার পরিকল্পনা করছিল বলে পুলিশের ধারণা৷

বিদেশি সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর সদস্য সন্দেহে বার্লিনে এক সিরীয় তরুণকে আটক করেছে অপরাধ তদন্ত দল৷ রাজধানীর বড় দু'টি বিমানবন্দরের একটিতে সে হামলার পরিকল্পনা করছিল বলে পুলিশের ধারণা৷

পুলিশ টুইটারে জানিয়েছে, বুধবার বার্লিনের ম্যোনেব্যর্গ এলাকার একটি বাসা থেকে ২৭ বছর বয়সি ঐ তরুণকে আটক করা হয়৷ তরুণের নাম প্রকাশ না করলেও পুলিশ জানিয়েছে, তাদের ধারণা এই তরুণ তথাকথিত জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)-এর সদস্য৷

২০১৫ সাল থেকে বার্লিনে আছে ঐ তরুণ৷  বার্লিনার সাইটুং জানিয়েছে, ‘‘বুধবার রাত ৯ টার দিকে ঐ তরুণের অ্যাপার্টমেন্টে তল্লাশি চালানোর পর তাকে আটক করা হয়৷''

জার্মানিতে চলতি বছরের জুলাইতে দু'টি হামলার ঘটনা ঘটে৷ দু'টি হামলারই দায় স্বীকার করে তথাকথিত জঙ্গি সংগঠন আইএস৷ এরপর থেকে পুরো জার্মানিই সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থায় রয়েছে৷ ঐ ঘটনাগুলোতে লক্ষ্যনীয় বিষয় হলো, সেগুলো জার্মানিতে আশ্রয় প্রার্থীরাই ঘটিয়েছিল৷

আটককৃত তরুণের কর্মকাণ্ড সম্পর্কে তদন্ত শুরু হয়েছে৷ গত বছর বিভিন্ন দেশ থেকে অন্তত ৯ লাখ শরণার্থী জার্মানিতে এসেছে৷ সেই সময় জার্মানরা তাদের স্বাগত জানিয়েছিল৷ কিন্তু এ বছর পর পর কয়েকটি হামলার ঘটনায় শরণার্থীদের প্রতি জার্মানদের দৃষ্টিভঙ্গি বদলেছে৷ এমনকি আশ্রয় প্রার্থীদের উপর হামলার ঘটনাও ঘটেছে কয়েকটি স্থানে৷ গত মঙ্গলবার বাউৎসেনে কট্টরপন্থিরা আশ্রয়প্রার্থীদের এলাকা ছেড়ে যেতে বলেছে৷

অক্টোবরে বার্লিন বিমানবন্দরে হামলার পরিকল্পনা করার সন্দেহে লাইপজিশ থেকে এক সিরীয় শরণার্থীকে আটক করেছিল জার্মানির নিরাপত্তা কর্মকর্তারা৷ তার অ্যাপার্টমেন্টে বিপুল বিস্ফোরক দ্রব্য পাওয়া গিয়েছিল৷ পরে ওই যুবক পুলিশ হেফাজতে মারা যায়৷ পুলিশের দাবি, সে আত্মহত্যা করেছে৷

এপিবি/এসিবি (এপি, এএফপি, ডিপিএ, রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়