1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বার্লিনে আরব মালিকানার ভবনে ইসলাম-বিরোধী কার্যকলাপ নিষিদ্ধ

জার্মানির রাজধানী বার্লিনে আরব মালিকানাধীন ভবনসমুহ কোন সংস্থা ভাড়া নিতে গেলে তাকে বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞার মুখোমুখি হতে হয়৷ যেমন শুকরের মাংস বিক্রির সঙ্গে জড়িত কোন ব্যাবসা এবং অশ্লীলতা নিষিদ্ধ৷

default

ফাইল ফটো

বার্লিনের অ্যার্নস্ট-রয়টার স্কোয়ার, অত্যন্ত ব্যস্ত এই জায়গাটিকে প্রধান ব্যাবসা কেন্দ্র বলা চলে৷ এখানে বিভিন্ন দেশের সংস্থাসমূহের কার্যালয় রয়েছে৷ কিন্তু এই ব্যস্ত এলাকার নয়তলা একটি ভবনের অর্ধেকই খালি পড়ে রয়েছে৷ কেন বলুন তো? অসংখ্য বিজ্ঞাপন থাকা সত্ত্বেও কেন অর্ধেক খালি পড়ে রয়েছে ভবনটি? কারণ ভবনটি ভাড়া নেবার জন্যে বেশ কিছু শর্ত পূর্ণ করতে হবে৷

নয়তলা এই ভবনটির মালিক একজন আরব৷ নীচের তলায় একটি ছোট যোগাযোগ সংস্থার কার্যালয় অবস্থিত৷ সংস্থাটির প্রতিনিধি একজন আইনজীবী ৷ তিনি বললেন, শুকরের মাংস বিক্রির সঙ্গে জড়িত কোন ব্যবসার জন্য এই ভবনের কোন অংশ ভাড়া দেওয়া হবে না৷ এ ছাড়াও এই ভবনে ব্যবসার জন্যে আর যা যা নিষিদ্ধ তার মধ্যে রয়েছে, অশ্লীল কোন কিছুর দোকান বা সেক্স শপ, জুয়া খেলার জায়গা এবং যে কোন কড়া মদ৷ ঐ আইনজীবী বলেন, তাদের কাজের সঙ্গে এইসব কোন কিছুর সম্পর্ক নেই৷ তিনি আরো বলেন, কাদেরকে অফিস ভাড়া দেওয়া হবে তা সম্পূর্ণভাবে নির্ভর করে ভবনের মালিকের ওপরে৷

এর আগে ভবনটির মালিক ছিল অ্যামেরিকার বিখ্যাত কম্পিউটার কোম্পানি আইবিএম৷ পরে ভবনটি কিনে নেন একজন আরব বিনিয়োগকারী৷ তিনি লন্ডনে বসবাস করেন বলে জানা গেলেও তার নাম এখনও গোপন রাখা হয়েছে৷ জার্মানিতে ব্যাপকভাবে কাটতির সংবাদপত্র ‘বিল্ড’-এ সোমবারে এই সম্পর্কে বিস্তারিত প্রকাশ করা হয়েছে৷ এই ঘটনাকে তারা বলছে, শরিয়া আইন এবং বহু সংস্কৃতির পাগলামি জার্মান ব্যবসাকেও খাটো করে দেখছে৷

তবে এইসব শর্তের অনেকগুলোকেই অস্বাভাবিক বলতে নারাজ বার্লিনে একটি সংস্থার একজন প্রতিনিধি৷ তিনি বলেন, এইক্ষেত্রে শুকরের মাংস এবং সেক্স শপের মতো ব্যাবসা ছাড়া মাদক, অ্যালকোহল এবং জুয়ার ব্যাপারে বাড়ি ভাড়া দিতে আপত্তি থাকা জার্মানিতে একটি স্বাভাবিক ব্যাপার৷

প্রতিবেদন:ফাহমিদা সুলতানা

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়