1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বাঘশূন্য হয়ে যেতে পারে সুন্দরবন

আন্তর্জাতিক চোরাকারবারিদের টার্গেটে পরিণত হচ্ছে বাংলাদেশ৷ বাঘের চামড়া, মাথার খুলি এবং হাড়ের জন্য তারা এখন সুন্দরবনকেই বেছে নিচ্ছে৷ জানিয়েছেন জাহাঙ্গির নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণীবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক ড. এম মনির৷

default

ফাইল ফটো

গবেষক ড. এম মনির ডয়চে ভেলেকে জানান, ‘‘এখনই এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নিলে, সুন্দরবন বাঘশূন্য হয়ে যেতে পারে৷''

গতমাসে সুন্দরবন সংলগ্ন শরনখোলা এলাকায় বাঘের চামড়া, মাথার খুলি এবং হাড় আটকের ঘটনাকে উদ্বেগজনক বলে জানান সুন্দরবন এবং রয়েল বেঙ্গল টাইগারের গবেষক ড. এম মনির৷ তিনি বলেন, আন্তর্জাতিক চোরাকারবারিরা আগে ভারত থেকে বাঘের চামড়া সংগ্রহ করত৷ এখান সেই সুযোগ কমে আসায়, তারা বাংলাদেশের সুন্দরবনের দিকে নজর দিয়েছে৷ আর এজন্য তারা নিয়োগ করছে চোরা শিকারি৷

তিনি বলেন, শিকারিরা বাঘের খাদ্য মাংসে বিষ মিশিয়ে অথবা বন্দুকের কল পেতে বাঘ হত্যা করছে৷ শুধু তাই নয়, এই চক্র সুন্দরবনের সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের সঙ্গে যুক্ত বলে মনে করেন ড. এম মনির৷ তিনি বলেন, এই চোর শিকারি এবং ডাকাত দলকে প্রতিরোধ করা না গেলে, সুন্দরবন বাঘশূন্য হয়ে পড়বে৷ আর এজন্য প্রয়োজন সুন্দরবনের পাহারা ব্যবস্থায় আধুনিকিকরণ এবং তাকে আরো শক্তিশালী করা৷

ড. এম মনির বলেন, সরকারি হিসেবে সুন্দরবনে প্রায় সাড়ে ৪শ' বাঘের কথা বলা হলেও বাস্তবে বাংলাদেশের সুন্দরবনে ২শ'র বেশি বাঘ নেই৷ তাই বাঘ রক্ষায় জরুরিভিত্তিক কার্যকর উদ্যোগ প্রয়োজন৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়