1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বাংলাদেশ থেকে প্রতিমাসে ১০ হাজার শ্রমিক যাবে সৌদি আরবে

এর অধিকাংশই নারী গৃহকর্মী৷ যা বিদেশে শ্রমবাজার সংকটের মধ্যে নতুন সম্ভানার দুয়ার খুলে দিয়েছে বাংলাদেশে৷ তবে বিদেশে শ্রমশক্তি রপ্তানিকারকদের সংগঠন ‘বায়রার’ সাবেক সভাপতি গোলাম মোস্তফা বলেন, এক্ষেত্রে সতর্ক হতে হবে দেশকে৷

default

ফাইল ছবি

গোলাম মোস্তফা জানান, ২৫ থেকে ৩৫ বছরের মহিলাদের পরিবর্তে ৩৫ থেকে ৫৫ বছরের মহিলাদের পাঠাতে হবে৷ তা না হলে পারিবারিক সংকট সৃষ্টি হতে পারে৷ আর সৌদি আরবে বাংলাদেশের দূতাবাসকে হতে হবে আরো সক্রিয়৷

গোলাম মোস্তফা ডয়চে ভেলেকে জানান, আগামি দু'মাসের মধ্যেই এই নারী গৃহকর্মীদের নেওয়া শুরু করবে সৌদি আরব৷ তবে এক্ষেত্রে আমাদের সামাজিক বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে৷ কারণ ২৫ থেকে ৩৫ বছরের মহিলারা বিদেশে গেলে, তাঁদের সন্তানদের বেড়ে ওঠায় সমস্যা দেখা দিতে পারে৷ আর এর ফলে সৃষ্টি হতে পারে পারিবারিক সমস্যা৷ তাই তিনি মনে করেন এই বয়স সীমা বাড়ানো উচিত৷

তিনি মনে করেন, সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাসকেও এজন্য সক্রিয় হতে হবে৷ যাতে তাঁরা সেখানে গিয়ে কোনো নির্যাতনের শিকার না হন৷ গোলাম মোস্তফা বলেন, নারী গৃহকর্মীদের যথাযথ বাস্তব প্রশিক্ষণ দিয়ে পাঠাতে হবে৷ নয়তো তাঁরা সেখানে গিয়ে বিপাকে পড়তে পারেন৷

যাঁরা বিদেশে যাবেন, তাঁরা যেন প্রতারিত হন৷ কারণ তাঁদের সৌদি আরবে যেতে কোনো খরচ লাগবেনা৷ পুরো খরচই বহন করবে সৌদি আরবের নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ৷ আর তাঁদের মাসে বেতন হবে ১২ হাজার টাকা৷

গোলাম মোস্তফা বলেন, আমরা যদি সতর্কতার সঙ্গে এগোতে পারি তাহলে রেমিটেন্স যেমন বাড়বে, তেমনি নারীর ক্ষমতায়নেও তা বড় ভূমিকা রাখবে৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

সংশ্লিষ্ট বিষয়