1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিজ্ঞান পরিবেশ

বাংলাদেশে মাত্র বার হাজার টাকায় ল্যাপটপ!

বাংলাদেশে মোবাইল আর ল্যাপটপের ক্রমবর্ধমান চাহিদার দিকে লক্ষ্য রেখেই কম মূল্যে তা বাজারে ছাড়ার বিশেষ পদক্ষেপ নিয়েছে বাংলাদেশ টেলিফোন শিল্প সংস্থা (টেসিস)৷

default

টেসিসের এই পরিকল্পনাকে বাস্তবে রূপ দিতে ছয়টি বিদেশি কোম্পানি চুক্তি করতে আগ্রহ প্রকাশ করে আবেদনপত্র জমা দিয়েছে৷ এই প্রকল্পের আওতায় দেশীয় প্রযুক্তি ব্যবহার করেই তৈরি করা হবে কম মূল্যের ডুয়েল সিমের মোবাইল ফোন এবং ল্যাপটপ৷

টেসিস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইসমাইল হোসেন জানান, আবেদনকারী এই ছয়টি কোম্পানির নাম এখনই প্রকাশ করা হবে না৷ তবে, তাদের আবেদনপত্রগুলো বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট)-এর ইলেকট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক বিভাগের প্রধানের কাছে যাচাই করার জন্য পাঠানো হয়েছে৷

এই প্রথমবারের মত বাংলাদেশ সরকার বিদেশি কোম্পানির সাথে রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন বাংলাদেশ টেলিফোন শিল্প সংস্থা (টেসিস)-এর যৌথ উদ্যোগ গ্রহণে সক্রিয় হল৷

টেসিস এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ইসমাইল হোসেন আশা করছেন, এবছরের এপ্রিল মাস নাগাত এই ল্যাপটপ এবং মোবাইল ফোন সেট সবার হাতে পৌঁছে যাবে৷ তিনি আরও জানান, বিশেষজ্ঞরা বলছেন আগামী দুই বছরে মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা দাঁড়াবে আট কোটি৷ এবং প্রাথমিকভাবে বছরে চার লাখ সেট বাজারে ছাড়বে টেসিস৷ ডুয়েল সিমের এই মোবাইল ফোনের মূল্য হবে দুই হাজার টাকা এবং তাতে থাকবে সর্বাধুনিক সব প্রযুক্তি৷ আর ল্যাপটপের মূল্য নির্ধারণ করা হয়েছে ১০ হাজার থেকে ১২ হাজার টাকার মধ্যেই৷ ২০০৯ সালের ডিসেম্বর মাসে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় এই বিষয়ে আর্ন্তজাতিক কোম্পানিগুলো থেকে দরপত্র ডেকেছিল৷

টেসিস কর্মকর্তা আরও বলেন, গত ১২ বছরে টিএসএস পুরোপুরি নিষ্ক্রিয় হয়ে পড়েছিল৷ কোন কাজ ছাড়াই ৫২৫ জন অফিসার ও কর্মীকে বেতন দেয়া হয়৷ বর্তমান সরকারের ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী রাজিউদ্দিন রাজু টেসিস-কে আবার সচল করার নির্দেশ দেন৷

প্রতিবেদক : আসফারা হক

সম্পাদনা : আব্দুল্লাহ আল-ফারূক

সংশ্লিষ্ট বিষয়