1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বাংলাদেশে পাহাড় ধসে ৫৩ জন নিহত

কক্সবাজার জেলার টেকনাফ, উখিয়া, রামু এবং বান্দারবানে পাহাড় ধসে এ পর্যন্ত ৫৩ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে৷ আহত হয়েছে ৫০ জন৷ নিহতদের মধ্যে ৬ সেনা সদস্য রয়েছেন৷ বিভিন্ন স্থানে নিখোঁজ রয়েছে আরো ১২ জন৷

default

ফাইল ফটো

স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, গত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টির ফলে পাহাড়ের মাটি নরম হয়ে যাওয়ায় তা বসত বাড়ির উপর পড়তে শুরু করায় এ দুর্ঘটনা ঘটে৷

মঙ্গলবার ভোরে পাহাড় ধসে কক্সবাজার মেরিন ড্রাইভ সড়কের পাশে হিমছড়ি এলাকায় সেনাবাহিনীর ১৭ ইসিবির একটি ক্যাম্প ধ্বংস হয়ে গেছে৷ ক্যাম্পে ৬৩ জন সেনা সদস্য ছিলেন৷ ভোররাত থেকে সকাল ৮টা পর্যন্ত পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে৷ পুরো ক্যাম্প মাটির নিচে চাপা পড়েছে৷ জেলা প্রশাসক জানান, সকাল থেকে চেষ্টা চালিয়ে মাটির নিচ থেকে ৬ সেনা সদস্য মো. আবছার, হাবিব, হুমায়ুন, ইসমাইল, মালেক ও আসলামের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে৷

এদিকে টানা বৃষ্টি, পাহাড়ী ঢলে মাটিচাপা এবং পানিতে ডুবে কক্সবাজার সদরের মহাজের পাড়া ও কলেজ গেইট এলাকায় ২ জন, টেকনাফে ৩৩ জন, উখিয়ায় ৮ জন এবং বান্দরবানের নাইখ্যাংছড়ির ঘুনধুম ইউনিয়নে ভাজাবুনিয়া এলাকায় একই পরিবারের ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে৷ বিধ্বস্ত হয়েছে ৬ শতাধিক ঘরবাড়ি৷ স্থানীয় লোকজন ও ফায়ার সার্ভিস উদ্ধার তৎপরতা চালিয়ে যাচ্ছে৷

ওই এলাকার সাংবাদিক এনামুল হক এবং শহীদুল ইসলাম ডয়চে ভেলেকে জানান, পাহাড় কাটা ও পাহাড়ে অবৈধ বসতির কারণে এই ভয়াবহ অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে৷ জেলা প্রশাসক গিয়াস উদ্দিন আহম্মেদ বলেন, পাহাড় কাটায় ১০টি গ্রুপ সক্রিয়৷ তারা যাতে পাহাড় কাটে তাই ধরা যায়না৷

অন্যদিকে, এই ভয়ংকর পরিস্থিতিতেও পাহাড় ও ঝুপড়ি ঘরে শত শত মানুষ বসবাস করছেন৷ তারা নিয়তি হাতে নিজেদের ছেড়ে দিয়েছেন৷

প্রতিবেদন: হারুন উর রশীদ স্বপন, ঢাকা

সম্পাদনা: সঞ্জীব বর্মন

সংশ্লিষ্ট বিষয়