বাংলাদেশে আসিফসহ চার ব্লগারের বিচার শুরু | বিশ্ব | DW | 09.09.2013
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বাংলাদেশে আসিফসহ চার ব্লগারের বিচার শুরু

ইন্টারনেটে বিভিন্ন ব্লগে ইসলাম ধর্ম নিয়ে উসকানিমূলক মন্তব্য ও কটূক্তির দায়ে চার ব্লগারের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেছে ঢাকার একটি আদালত৷ অভিযোগ প্রমাণ হলে তাদের সাত বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে৷

ব্লগার মশিউর রহমান বিপ্লব, সুব্রত অধিকারী শুভ, মোহাম্মদ রাসেল পারভেজ ও আসিফ মহিউদ্দীন তাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন৷ রবিবার আদালতে নিজেদের নির্দোষ দাবি করেন তাঁরা৷

জ্যেষ্ঠ পাবলিক প্রসিকিউটর শাহ আলম তালুকদার বার্তাসংস্থা এএফপিকে জানিয়েছেন, ‘‘তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের আওতায় ব্লগারদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করা হয়েছে৷ এই আইনে তাদের সাত বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড হতে পারে৷''

বাংলাদেশে ডয়চে ভেলের কন্টেন্ট পার্টনার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম লিখেছে, ‘‘মহানগর দায়রা জজ মো. জহুরুল হক রোববার শুনানি শেষে ব্লগারদের বিচার শুরুর আদেশ দেন৷ তথ্যপ্রযুক্তি আইনের দুই মামলায় সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য আগামী ৬ নভেম্বর দিন রেখেছেন তিনি৷''

প্রসঙ্গত, নাস্তিক ব্লগারদের বিরুদ্ধে হেফাজতে ইসলাম নামের একটি সংগঠনের প্রতিবাদ, বিক্ষোভের প্রেক্ষিতে গত পহেলা এপ্রিল রাতে ঢাকার বিভিন্ন স্থান থেকে ব্লগার শুভ, বিপ্লব ও পারভেজকে ৫৪ ধারায় সন্দেহভাজন হিসাবে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ৷ সে রাতে অবশ্য আসিফ মহিউদ্দীনকে আটক করা হয়নি৷ দুই দিন পর ৩ এপ্রিল সকালে গ্রেপ্তার করা হয় আসিফকে৷ এর আগে দুবৃত্তের হামলায় গুরুতর আহত হন ডয়চে ভেলের দ্য বব্স অ্যাওয়ার্ডজয়ী ব্লগার আসিফ মহিউদ্দীন৷

বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, ‘‘তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি আইনের ৫৭ এর ১ ও ২ ধারা অনুযায়ী ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত ও উস্কানি দেয়ার অভিযোগ আনা হয় চার জনের বিরুদ্ধে৷'' পরবর্তীতে তাঁরা জামিনে ছাড়া পান৷

এদিকে, ব্লগারদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ তুলে নিতে সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন৷ তারা মনে করে, ধর্মনিরপেক্ষ সরকার এবং ইসলামপন্থিদের মধ্যকার লড়াইয়ের বলি হয়েছেন ব্লগাররা

উল্লেখ্য, বাংলাদেশের মোট জনগোষ্ঠীর নব্বই শতাংশ মুসলমান৷ গভীরভাবে রক্ষণশীল এই দেশটির সরকার জানিয়েছে, সাম্প্রদায়িক সম্প্রতি রক্ষায় বদ্ধপরিকর তারা৷ গত ফেব্রুয়ারি মাসে এক ব্লগারকে হত্যার ঘটনায় একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের পাঁচ শিক্ষার্থীকেও আটক করেছে সে দেশের পুলিশ৷

এআই / এসবি (এএফপি, এপি)

নির্বাচিত প্রতিবেদন