1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বাংলাদেশের সমস্ত পোশাক কারখানায় ধর্মঘট

বাংলাদেশের সব পোশাক কারখানায় বৃহস্পতিবার থেকে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট ডাকা হয়েছে৷ আটক করা হয়েছে তুবা গ্রুপ শ্রমিক সংগ্রাম কমিটির সমন্বয়ক মোশরেফা মিশুকে৷ ওদিকে আন্দোলনরত শ্রমিকদের ওপর লাঠি পেটা, ও টিয়ারগ্যাস ছুড়েছে পুলিশ৷

বৃহস্পতিবার বেলা দেড়টার দিকে পুলিশ বাড্ডার তুবা গ্রুপের সাত তলায় অভিযান চালায়৷ তারা সেখানে আন্দোলনরত শ্রমিকদের লাঠি পেটা করে ও টিয়ারগ্যাস ছুড়ে বের করে দেয়৷ সেখানে অবস্থানরত শ্রমিক নেতাদেরও লাঠি পেটা করে বের করে দেয় হয় বলে খবর৷

বাইরে বের হয়ে তুবা গ্রুপ শ্রমিক সংগ্রাম কমিটির সমন্বয়ক ও শ্রমিক নেত্রী মোশরেফা মিশু বৃহস্পতিবার দুপুর থেকেই সারা দেশের পোশাক কারখানায় অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের কর্মসূচি ঘোষণা করেন৷

এই ঘোষণার পর মোশারেফা মিশুসহ শ্রমিক নেতা এবং শ্রমিকরা পায়ে হেঁটে জাতীয় প্রেসক্লাবের দিকে রওয়ানা হলে, মোশারেফা মিশু এবং শ্রমিক নেত্রী জলি তালুকদারকে আটক করে পুলিশ৷ তাঁদের আটকের পর টেনে পুলিশ ভ্যানে তোলা হয়৷ বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এম এ জলিল জানান, তাঁদের থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে৷ আটকের সময় ধস্তাধস্তিতে একজন নারী পুলিশ ভ্যান থেকে পড়ে গিয়ে আহতও হন৷ এছাড়া সংবাদ ও ছবি সংগ্রহ করতে গিয়ে পুলিশের পিটুনির শিকার হন কয়েকজন ফটো সাংবাদিক৷

আগের দিনের মতো বৃহস্পতিবার সকালেও তুবা গ্রুপের সামনে জলকামান ও এপিসি নিয়ে কড়া পাহারায় ছিল পুলিশ৷ বেলা সোয়া একটার দিকে রাজধানীর বাড্ডায় তুবা কারখানার ভেতরে বিপুলসংখ্যক পুলিশ প্রবেশ করে সব শ্রমিককে পিটিয়ে বের করে দেয়৷ এর আগে পৌনে একটার দিকে তুবা গ্রুপের পাঁচটি কারখানার শ্রমিকরা বিক্ষোভসহ সড়ক অবরোধ করতে চাইলে পুলিশ তাঁদের ওপরও লাঠিচার্জ করে৷ এ সময় শ্রমিকরা গাড়ি ভাঙচুর করলে পুলিশ রাবার বুলেট ও জলকামান নিক্ষেপ করে তাঁদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়৷ এতে বেশ কয়েকজন শ্রমিক আহত হন৷ পুলিশের সঙ্গে শ্রমিকদের কয়েকদফা সংঘর্ষও হয়৷

Bangladesch Tuba-Arbeiterinnen Protest Hungerstreik

‘বিজিএমইএ শ্রমিকদের দুই মাসের বকেয়া বেতন দিচ্ছে’


এদিকে বিজিএমইএ বৃহস্পতিবারও শ্রমিকদের দুই মাসের বকেয়া বেতন দিচ্ছে বলে জানা গেছে৷ দুই দিনে মোট ৫৮৩ জন শ্রমিক বকেয়া বেতন নিয়েছেন বলে বিজিএমইএ-র সভাপতি আতিকুল ইসলাম জানিয়েছেন৷ আন্দোলনরত শ্রমিকরা অবশ্য তিন মাসের বকেয়া বেতন, ভাতা এবং ওভারটাইমের টাকা একসঙ্গে দাবি করেছেন৷

ঈদের আগে প্রতিশ্রুত তিন মাসের বকেয়া বেতন-ভাতা না পেয়ে ২৮শে জুলাই থেকে তুবা গ্রুপের পাঁচটি গার্মেন্টস-এর ১,৬০০ শ্রমিক অনশন শুরু করেন৷ এরইমধ্যে মঙ্গলবার এই গ্রুপের মালিক দেলোয়ার হোসেন শ্রমিকদের বকেয়া বেতন পরিশোধের মুচলেকা দিয়ে কারাগার থেকে জামিনে মুক্তি পেয়েছেন৷ তাঁর আরেকটি পোশাক কারখানা তাজরীন ফ্যাশানস-এ ২০১২ সালের নভেম্বরে আগুন লাগলে ১১৩ জন শ্রমিক নিহত হন৷ সেই মামলার কারণেই তিনি জেলে ছিলেন৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়