1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বাংলাদেশের ‘প্রথম রাষ্ট্রপতি’ নিয়ে বিতর্ক

খালেদা জিয়ার বড় ছেলে তারেক রহমানের লন্ডনে বসে দেয়া নতুন তত্ত্বে এখন বিতর্ক তুমুল৷ তিনি জিয়াউর রহমানকে বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি বলে দাবি করার পর তা সমর্থন করেন খালেদা জিয়া৷ তার জবাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷

শুক্রবার খালেদা জিয়ার বক্তব্যের ব্যাখ্যা দিয়েছেন বিএনপি নেতা রফিকুল ইসলাম মিয়া৷ তিনি জাতীয় প্রেসক্লাবে এক অনুষ্ঠানে বলেন, ‘‘১৯৭১ সালের ২৫শে মার্চ থেকে ১৭ই এপ্রিল প্রবাসী সরকার গঠনের পূর্ব পর্যন্ত বাংলাদেশে কার সরকার ছিল? দিশেহারা জাতিকে পথ প্রদর্শন করেছেন জিয়াউর রহমান৷ আর তা প্রমাণ করে সে সময় তিনি দেশের মূল ভূমিকা পালন করেছেন৷ তাঁকে দেশের রাষ্ট্রপতি হওয়া বা করা বা চালাতে হয়েছে, সে ব্যবস্থায় তিনি তা করেছেন৷ খালেদা জিয়া তাঁর বক্তব্যে এটিই বোঝাতে চেয়েছেন৷''

২৫শে মার্চ তারেক রহমান লন্ডনে এক অনুষ্ঠানে প্রথম দাবি করেন, জিয়াউর রহমান দেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি৷ একদিন পর বৃহস্পতিবার বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া তারেকের কথাকে সমর্থন দিয়ে নিজেও দাবি করেন, জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি৷ খালেদা জিয়া ও তারেক রহমান তাঁদের দাবির পক্ষে কোনো স্পষ্ট ব্যাখ্যা না দিলেও ব্যাখ্যা দিলেন ব্যারিস্টার রফিকুল৷

Tarique Rahman BNP Bangladesh

‘‘বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি ছিলেন শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমান৷'' বলেন তারেক রহমান

অন্যদিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বৃহস্পতিবার খালেদা-তারেকের কথার জবাব দিয়েছেন৷ তিনি বলেছেন, ‘‘তারা এখন ফর্মুলা পালটেছে, এতদিন বলেছেন জিয়া স্বাধীনতার ঘোষক, এখন বলছেন প্রথম রাষ্ট্রপতি৷ বাংলাদেশে প্রথম রাষ্ট্রপতি শেখ মুজিবুর রহমান, প্রথম উপ-রাষ্ট্রপতি সৈয়দ নজরুল ইসলাম, প্রথম প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দিন আহমেদ৷''

আর শুক্রবার তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে উদ্দেশ্য করে বলেছেন, ‘‘রাষ্ট্রপতি কী ভাবে মেজর হলেন? এই উদ্ভট তথ্য পরিহার করুন ও মিথ্যাচার বন্ধ করুন৷'' তিনি বলেন, ‘‘জিয়াউর রহমানকে প্রথম রাষ্ট্রপতি বলা মিথ্যাচারের পর্যায়ে পড়ে৷''

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘যুদ্ধের সময় ‘প্রথম রাষ্ট্রপতি' বাংলাদেশ সরকারের অধীনে মেজরের চাকরিতে বহাল থেকে যুদ্ধ করেছেন৷ পরবর্তীতে উনি কর্নেল হয়েছেন, সেনাবাহিনীর উপ প্রধান হয়েছেন, প্রধান হয়েছেন এবং ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পরে নিজে নিজেই সামরিক শাসক হয়েছেন৷ সুতরাং জিয়াকে প্রথম রাষ্ট্রপতি বলাটা একটা মিথ্যাচার৷''

খালেদা জিয়ার জিয়াউর রহমানকে প্রথম রাষ্ট্রপতি হিসেবে দাবি করা প্রসঙ্গে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘জিয়াউর রহমানের জীবদ্দশায় এবং খালেদা জিয়া ক্ষমতায় থাকাকালে এই উদ্ভট তথ্য তাঁদের মুখে শোনা যায়নি৷ অথচ লাখো কণ্ঠে যখন সোনার বাংলা সারা দেশে প্রচারিত হচ্ছে, খালেদা জিয়া তখন ঘরে বসে জাতীয় সংগীতে শরিক না হয়ে উদ্ভট তথ্য দিয়ে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করছেন৷''

এদিকে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামণ্ডলী পরিষদের সদস্য সুরঞ্জিত সেনগুপ্ত শুক্রবার আলাদা এক অনুষ্ঠানে বলেছেন, জিয়াউর রহমানকে বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি বলে বিভ্রান্তিমূলক তথ্য দেওয়ায় বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে জাতির কাছে ক্ষমা চাইতে হবে৷

উল্লেখ্য, বিএনপির চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া এবং সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান জিয়াউর রহমানকে বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি হিসেবে দাবি করলেও বিএনপি-র নিজস্ব ওয়েবসাইটে জিয়াউর রহমানকে বাংলাদেশের ৭ম রাষ্ট্রপতি বলা হয়েছে৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়