1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বাংলাদেশের প্রতি জেলায় থাকবে নিজস্ব কমিউনিটি রেডিও

বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায় আগামী দুই বছরের মধ্যে একটি করে কমিউনিটি রেডিও প্রতিষ্ঠিত হবে৷ সেখানে সম্প্রচারিত হবে আবহাওয়া, কৃষি আর সংস্কৃতিসহ নানা বিষয়৷

default

ফাইল ফটো

বাংলাদেশে অল্প কয়েক বছর ধরেই কমিউনিটি রেডিও কথাটি শোনা যাচ্ছে৷ তবে আশার কথা হলো এখন সেই রেডিওতে কথা সম্প্রচার শুরু হবে৷ এ জন্য অপেক্ষা করতে হবে আর অল্প কিছু দিন৷

পৃথিবীতে সমাজভিত্তিক রেডিও বা কমিউনিটি রেডিও'র যাত্রা শুরু হয় ১৯৪৮ সালে বলিভিয়া এবং কলাম্বিয়ায়৷ বলিভিয়ার রেডিওটির নাম ছিল ‘মাইনার্স রেডিও' আর কলম্বিয়ায় ‘রেডিও সুতাতেনজা'৷ বলা হয়, এ ছিল তথ্য যোগাযোগের বিপ্লব৷ মাইনার্স রেডিও প্রতিষ্ঠিত হয় বলিভিয়ার খনি শ্রমিকদের বিনোদন ও তাঁদের সংগঠিত করার জন্য৷ আস্তে আস্তে দারুণ জনপ্রিয় ওঠে এই রেডিও৷ বিশেষ করে সচেতনা সৃষ্টিতে এর কোন বিকল্প নেই৷ আর তাই, বিশ্বের প্রায় ১২০টি দেশে এখন কমিউনিটি রেডিও সম্প্রচারিত হচ্ছে৷ নানা অনুষ্ঠানমালা প্রচারের পাশাপাশি ঝড়-জলোচ্ছ্বাস বা অন্যান্য প্রাকৃতিক দুর্যোগের ক্ষতি মোকাবিলায় এ রেডিও'র ভূমিকা অসামান্য৷

এ নিয়েই কথা বলছিলাম বাংলাদেশের এনজিও'স নেটওয়ার্ক ফর রেডিও কমিউনিকেশন্স-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এএইচএম বজলুর রহমানের সঙ্গে৷ তিনি জানালেন, খুব শিগগিরই মোট ৩৫টি কমিউনিটি রেডিও চালু হবে বাংলাদেশে৷ এগুলোর মধ্যে বেশ কয়েকটির তরঙ্গ বরাদ্দের কাজ চূড়ান্ত পর্যায়ে৷ সম্প্রতি অন্য ২০টির নিরাপত্তা ছাড়পত্র দিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়৷ তিনি বলেন, সরকারের নীতি নির্ধারকরা চান ২০১৩ সালের মধ্যে যেন প্রতিটি জেলায় একটি করে কমিউনিটি রেডিও থাকে৷ এবং ২০২১ সালের মধ্যে প্রতিটি উপজেলায় একটি করে কমিউনিটি রেডিও স্থাপন করতে চান তাঁরা৷ তাই সেই লক্ষ্য নিয়েই এগিয়ে যাচ্ছে সরকার৷ বজলুর রহমান জানান, কমিউনিটি রেডিও কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে সরকার সকল ধরণের সহায়তারই প্রতিশ্রুতি দিয়েছে৷

প্রতিবেদন: সাগর সরওয়ার

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন