1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বাংলাদেশের চোখে ভারতের নির্বাচন

ভারতের নির্বাচনের দিকে এখন বাংলাদেশের দৃষ্টি৷ কারণ বিশ্বের বৃহত্তম এই গণতন্ত্রের অতি নিকট প্রতিবেশী বাংলাদেশ৷ ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের রয়েছে ঐতিহাসিক, রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক এবং সাংস্কৃতিক সম্পর্ক৷

default

আসামের একটি ভোটকেন্দ্র

বিজেপি, কংগ্রেস না দুর্বল কোনো কোয়ালিশন? সোমবার ভারতের লোকসভার প্রথম পর্বের নির্বাচনের শুরুতে সেখানে যেমন এটি আলোচনার বিষয়, বাংলাদেশেও তাই৷ কারণ বাংলাদেশের নাগরিকরা নিজেদের মত করে ভাবেন যে, ভারতের নতুন সরকারে কারা আসলে বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কের হিসেবটা কেমন হবে৷ আর তাতে বাংলাদেশের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে কোন প্রভাব পড়বে কিনা?

আন্তর্জাতিক সম্পর্কের বিশ্লেষক অধ্যাপক ড. ইমতিয়াজ আহমেদ ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘ভারতে কারা ক্ষমতায় আসবেন, বাংলাদেশের মানুষের তা নিয়ে ভাবার যথেষ্ট যুক্তি আছে৷

কারণ বিজেপি আর কংগ্রেসের নির্বাচনি প্রচারণায় বাংলাদেশের ব্যাপারে প্রধান এই ২টি দলের দৃষ্টিভঙ্গি স্পষ্ট হয়েছে৷ তাই বিজেপি ক্ষমতায় এলে এবং নরেন্দ্র মোদী ভারতের প্রধানমন্ত্রী হলে কূটনৈতিক সম্পর্কে মৌলিক পরিবর্তন না আসলেও সম্পর্কের ভাষায় যে পরিবর্তন আসবে তা নিশ্চিত৷'' ভাষার পরিবর্তন অনেক সময় সম্পর্কের মৌলিক জায়গায়ও পরিবর্তন এনে দেয় বলে মনে করেন অধ্যাপক ইমতিয়াজ৷

তিনি আরও বলেন, ‘‘আর এর সুযোগ নেবে বাংলাদেশের অভ্যন্তরে রাজনৈতিক দলগুলোও৷ এটা সবার জানা, যে কংগ্রেসের সঙ্গে বাংলাদেশের আওয়ামী লীগ সরকারের সম্পর্ক ঘনিষ্ঠ৷ এমনকি নেতাদের মধ্যেও ব্যক্তিগত পর্যায়ে দীর্ঘদিনের যোগাযোগ আছে৷ তাই কংগ্রেস যদি ক্ষমতায় না থাকে আর ভারতে যদি বাংলাদেশ বিরোধিতা বাড়ে, তাহলে বাংলাদেশেও ভারত বিরোধিতা বাড়বে৷ নরেন্দ্র মোদী একাধিক সমাবেশে বাংলাদেশ সম্পর্কে যে সব মন্তব্য করেছেন, তা ভাবিয়ে তুলেছে এখানকার মানুষকে৷'' তবে তার এই কথা ভোটের জন্য, না তিনি নীতির দিক থেকেই বলেছেন, তা বুঝতে আরো সময় লাগবে বলে মনে করেন অধ্যাপক ইমতিয়াজ৷

‘‘অন্যদিকে বাংলাদেশ ভারতের অনেক দেনা-পাওনার হিসাব আছে৷ সীমান্ত চুক্তি, পানি চুক্তি, ট্রানজিট – এ সব নিয়ে কী হবে, তা নির্ভর করছে পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেসের মমতা ব্যানার্জি এই নির্বাচনে প্রাদেশিক এবং কেন্দ্রীয় সরকারে কতটা প্রভাবশালী হন তার ওপর'' – বললেন অধ্যাপক ইমতিয়াজ৷

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক ড. শান্তনু মজুমদার ডয়চে ভেলেকে বলেন, ‘‘ভারতের নির্বাচন নিয়ে সারা দুনিয়ায়ই আগ্রহ আছে৷ কারণ ভারত বিশ্বের বৃহত্তম গণতান্ত্রিক দেশ৷ আর বাংলাদেশের সঙ্গে নানামুখী সম্পর্কের কারণে ভারতের নির্বাচন নিয়ে এখানকার সব শ্রেণির মানুষের আগ্রহ আছে৷ আর এই নির্বাচনে কেমন সরকার ভারতের ক্ষমতায় আসবে তা বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ থেকে, রাজনৈতিক মহল, সুশীল সমাজ সবারই ভাবনার বিষয়৷'' তিনি বলেন, ‘‘ভারতে যদি মৌলবাদের উত্থান হয়, তাহলে বাংলাদেশের রাজনীতিতেও তার এক ধরনের প্রভাব পড়বে৷''

তবে তিনি মনে করেন, ‘‘ভারতে যারাই ক্ষমতায় আসুক না কেন বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের দ্বিপাক্ষিক স্তরে, বিশেষ করে অর্থনৈতিক সম্পর্কে তেমন কোনো মৌলিক পরিবর্তন আসবেনা৷ হয়তো সম্পর্কের ভাষা পরিবর্তন হতে পারে৷''

তিনি আরও মনে করেন, ‘‘এখনো নিশ্চিত নয় যে ভারতে বিজেপি না কংগ্রেস – কারা ক্ষমতায় আসবে৷ এমনও হতে পারে বিজেপি বা কংগ্রেস নয়, একটি দুর্বল কোয়লিশন সরকারও ভারতের ক্ষমতায় আসতে পারে৷ তাই ভারতের নির্বাচন বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্কে কী প্রভাব ফেলবে, তা নির্বাচনের ফলাফল নিশ্চিত না হওয়ার আগে বলা সম্ভব নয়৷''

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়