বাংলাদেশি ব্লগারদের ভিসা দিতে যুক্তরাষ্ট্রকে অনুরোধ | বিশ্ব | DW | 22.12.2015
  1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

বাংলাদেশি ব্লগারদের ভিসা দিতে যুক্তরাষ্ট্রকে অনুরোধ

আটটি আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা বাংলাদেশি ব্লগারদের সাময়িক ভিসা দিতে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরিকে অনুরোধ করেছে৷ ব্লগাররা বাংলাদেশে ‘আসন্ন বিপদ'-এর মধ্যে রয়েছে বলে মনে করে সংস্থাগুলো৷

সোমবার জন কেরিকে এই অনুরোধ জানিয়ে একটি চিঠি পাঠায় ঐ আট সংগঠন৷ এর মধ্যে রয়েছে পেন অ্যামেরিকান সেন্টার, ফ্রিডম হাউস, হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ও রিপোটার্স উইদাউট বর্ডার্স৷

ইসলামি জঙ্গিরা চলতি বছর বাংলাদেশে পাঁচজন ব্লগার ও একজন প্রকাশককে হত্যা করেছে৷ এর মধ্যে একজন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত মার্কিন নাগরিক রয়েছে বলেও জন কেরিকে চিঠিতে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক ঐ সংস্থাগুলো৷ এছাড়া কমপক্ষে চারজনের উপর হামলার কথা জানিয়েছে তারা৷

পেন এর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা কারিন ডয়েচ কারলেকার বলেন, কয়েক ডজন বাংলাদেশি লেখক লুকানো জীবনযাপন করছেন৷ তাঁরা সরকারের কাছে নিরাপত্তা চেয়েছেন, কিন্তু হয় তাঁদের সরকার নিরাপত্তা দিতে অনিচ্ছুক না হয় অক্ষম৷

এদিকে, পেন ক্যানাডা টুইটারে একটি খবর শেয়ার করেছে৷ বাংলাদেশের সেক্যুলার ব্লগার রায়হান আবীর ও তাঁর পরিবার ক্যানাডায় নিরাপদ জীবন খুঁজে পেয়েছেন বলে প্রতিবেদনটিতে জানানো হয়েছে৷ প্রতিবেদনে ‘সেন্টার ফর এনকোয়ারি ক্যানাডা'-র জাতীয় নির্বাহী পরিচালক এরিক অ্যাড্রিয়ানস-এর মন্তব্য প্রকাশিত হয়েছে৷ সংস্থাটি রায়হানকে সহায়তা করেছে৷ অ্যাড্রিয়ানস মনে করেন, ২৫ হাজার সিরীয় শরণার্থীকে ক্যানাডায় নিয়ে আসার মতো বিশাল ও গুরুত্বপূর্ণ কাজের চেয়ে অনেক সহজ হচ্ছে পালিয়ে থাকা ৫০ জন বাংলাদেশি লেখককে সহায়তা করা৷

‘সেন্টার ফর ইন্টারন্যাশনাল মিডিয়া অ্যাসিসটেন্স'-এর ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক ব্লগে রাজা রুমি লিখেছেন, বাংলাদেশে ‘ব্লগার' শব্দটি অভিশপ্ত বস্তুতে পরিণত হয়েছে৷

‘ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অফ জার্নালিস্টস'-এর দক্ষিণ এশিয়ার কো-অর্ডিনেটর উজ্জ্বল আচার্য টুইটারে লিখেছেন, ‘‘আমি যখন বাংলাদেশ ছিলাম তখন আমাকে বলা হয়েছিল, আমি যদি বলি আমি একজন ব্লগার, তাহলে সাধারণ মানুষ ধরে নেবে আমি নাস্তিক৷''

জেডএইচ/ডিজি (রয়টার্স)

নির্বাচিত প্রতিবেদন