1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

সমাজ সংস্কৃতি

বহুবিবাহের কারণে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট আবার আলোচনায়

দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট জ্যাকব জুমার বহুবিবাহ নিয়ে যেন আলোচনা শেষই হতে চায়না৷

default

তিন স্ত্রীর সঙ্গে জুমা

গত মাসে প্রেসিডেন্ট জুমা যখন ব্রিটেন সফরে গিয়েছিলেন তখনো সবকিছু ছাড়িয়ে তাঁর বহুবিবাহের গল্প নিয়েই বেশি মেতে থাকতে দেখা গেছে ব্রিটিশ গণমাধ্যমগুলোকে৷

এবার তিনি আলোচিত হচ্ছেন তাঁর নিজের দেশে৷ সরকারেরই এক মন্ত্রী সম্প্রতি বলেছেন, জুমা নেতৃত্বে আশার পর প্রেসিডেন্টের স্ত্রীর জন্য নির্ধারিত বার্ষিক ভাতার পরিমাণ দ্বিগুন করতে হয়েছে, কারণ তাঁর তিন স্ত্রী৷

তিনি বলেন, প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট থাবো এমবেকির সময় স্ত্রীর ভাতা বাবদ বছরে আট মিলিয়ন দক্ষিণ আফ্রিকান রান্ড খরচ হলেও জুমা প্রেসিডেন্ট হবার পর তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে সাড়ে ১৫ মিলিয়ন রান্ড বা ২১ লক্ষ ডলারে৷ কারণ জুমার স্ত্রীদের প্রত্যেকের জন্য একজন করে ব্যক্তিগত সচিব ও একজন গবেষক নিয়োগ দেয়া হয়েছে৷

এছাড়া তাঁরা সরকারী খরচে দেশের ভিতরে ও বাইরে ভ্রমণের সুযোগ পেয়ে থাকেন৷ প্রত্যেক স্ত্রীর জন্য ব্যক্তিগত মোবাইল, ল্যাপটপ ও প্রিন্টারেরও ব্যবস্থা করতে হয়েছে রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে৷ আর সরকারী কাজে ভ্রমণের সময় আলাদাভাবে দৈনিক ভাতাতো রয়েছেই৷

তবে যাদের পিছনে সরকার এত অর্থ খরচ করছে তাদের বাস্তবে কোনো নির্দিষ্ট দায়িত্ব নেই, শুধু রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্রেসিডেন্টকে সমর্থন জানানো ছাড়া৷

জানা গেছে, জুমা জীবনে পাঁচবার বিয়ে করেছেন এবং তাঁর মোট সন্তানের সংখ্যা ২০৷ সর্বশেষ গত অক্টোবরে তাঁর একটি কন্যা সন্তান জন্ম লাভ করে৷ জুনে দক্ষিণ আফ্রিকাতে অনুষ্ঠিতব্য ফুটবল বিশ্বকাপের এক উর্ধ্বতন কর্মকর্তার মেয়ের গর্ভে এই সন্তান জন্মের খবর প্রকাশ পায় এই জানুয়ারীতে৷ এরপর জুমা দেশের ভিতরে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন৷ সে সময় তাঁর শাসনক্ষমতাই প্রশ্নের সম্মুখীন হয়ে পড়েছিল৷

উল্লেখ্য, দক্ষিণ আফ্রিকাতে ২৭ বছর বয়স পর্যন্ত প্রেসিডেন্টের সন্তানদের অর্থনৈতিকভাবে নির্ভরশীল ধরা হয়, যদি তারা ততদিন পর্যন্ত পুরোপুরি শিক্ষার্থী এবং অবিবাহিত থাকে৷

প্রতিবেদক: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: সাগর সরওয়ার

সংশ্লিষ্ট বিষয়