1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

বর্জ্য পদার্থ থেকে পরিবেশবান্ধব জ্বালানি

শুধু জ্বালানি উৎপাদন নয়, তার জন্য প্রয়োজনীয় কাঁচামাল থেকে শুরু করে গোটা প্রক্রিয়াও হতে হবে সহজ৷ বর্জ্য পদার্থ কাজে লাগাতে পারলে তো আরও ভালো৷ জার্মান বিজ্ঞানীরা এমনই এক প্রযুক্তি পরীক্ষা করছেন৷

প্রতি বছর লাখ লাখ টন নর্দমার জল ও কাদা ফেলে দেওয়া হয়৷ নষ্ট হয় খড় ও কৃষিজাত আবর্জনাও৷ খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ শিল্পের উৎপাদনের সময় এই সব বর্জ্য সৃষ্টি হয়৷ সেই সঙ্গে মূল্যবান জ্বালানিরও অপচয় ঘটে৷

জার্মানির ফ্রাউনহোফার ইনস্টিটিউট-এর কর্মীরা নতুন ধরনের এক অরগ্যানিক জ্বালানি প্লান্ট তৈরি করেছেন, যার মধ্যে উদ্ভিদজাত ও প্রাণীজ বর্জ্য থেকে জ্বালানি উৎপাদন করা যায়৷ নতুন এই প্রযুক্তির মাধ্যমে থার্মাল-কেমিকাল রূপান্তর প্রক্রিয়ায় অরগ্যানিক বর্জ্য থেকে বিদ্যুৎ ও উত্তাপ সৃষ্টি করা যায়৷

যে কোনো কঠিন বা তরল কাঁচামাল ব্যবহার করা চলে৷ তবে ছোট দলার মতো আয়তন হলে তা পরিবহণের জন্য সুবিধাজনক হয়৷ ফ্রাউনহোফার ইনস্টিটিউটের আন্দ্রেয়াস হরনুং বলেন, ‘‘আলাদা করে উৎপাদন করতে হয় – এমন কোনো বায়োজেনিক উপকরণ ব্যবহার করা চলে না৷ আমরা ট্রিটমেন্ট প্লান্ট বা বায়োগ্যাস প্লান্ট থেকে পাওয়া বর্জ্য কাজে লাগাই৷ গরুর গোবর ও শুয়রের মলও ব্যবহার করা হয়৷ তাতে খড়কুটার মতো কৃষিজাত বর্জ্য মেশানো থাকলেও কোনো সমস্যা নেই৷''

এই প্লান্ট প্রায় সব কিছুই গিলে ফেলে৷ এই সব অবশিষ্ট উপকরণ দিয়ে ই্ঞ্জিনে ব্যবহারের যোগ্য তেল, গ্যাস ও উচ্চ মানের বায়োচার তৈরি করা যায়, যা বিক্রি বা বণ্টন করা সম্ভব৷ হরনুং বলেন, ‘‘এই তেল ইঞ্জিন চালাতেও ব্যবহার করা যায়৷ গ্যাস দিয়ে পরিশোধন প্লান্ট চালানো যায়৷ হাইড্রোজেন বার করে রাসায়নিক শিল্পে কাজে লাগানো যায়৷ বায়োচারও জ্বালানো যায়, গুদামে রাখা যায়৷ কৃষিকাজেও এই সব উপকরণ কাজে লাগানো যায়৷''

অরগ্যানিক আবর্জনা পাইপের মাধ্যমে এক চুল্লিতে চলে যায়৷ অক্সিজেন-বিহীন পরিবেশে ৫০০ ডিক্রি সিলসিয়াস তাপমাত্রার বেশি উত্তাপে তা বাষ্প ও বায়োচারে রূপান্তরিত করা হয়৷ তার পরের ধাপে সেই বাষ্প ও বায়োচার আরও ‘এনরিচ' করা হয়৷ তারপর বাষ্প ঠান্ডা করা হয়৷ তখন অরগ্যানিক তেল ও গ্যাস তৈরি হয়৷

অরগ্যানিক কয়লায় কার্বন ছাড়াও উদ্ভিদজাত পুষ্টি থাকে – যেমন ফসফেট, নাইট্রোজেন ও ক্যালসিয়াম৷ ফলে তা সার হিসেবে খুবই ভালো৷ কিন্তু শুধু সে কারণেই এটি কৃষিকাজের উপযুক্ত নয়৷ হরনুং বলেন, ‘‘এগুলি জমির মানের উন্নতির জন্যও ব্যবহার করা যায়৷ ভারতে প্রথম পরীক্ষায় পেঁয়াজ ও ক্যাপসিকামের ফলন অনেক বেড়ে গেছে৷ তবে এমন সব দেশে বেশি পরিমাণ উৎপাদন বড় বিষয় নয়৷ আরও কম পরিমাণ জল ব্যবহার করে একই ফলন আরও বেশি জরুরি৷''

অরগ্যানিক জ্বালানি প্রযুক্তি এমন সব দেশের জন্য উপযুক্ত, যেখানে পরিবেশের ক্ষতি না করে বেড়ে চলা জ্বালানির চাহিদা মেটানো সম্ভব৷ বিঘ্ন ঘটলেও প্লান্টের মধ্যে থার্মাল রূপান্তর প্রক্রিয়ার ক্ষতি হয় না৷ এ সব দেশে অরগ্যানিক বর্জ্যেরও অভাব নেই৷ হরনুং বলেন, ‘‘শুধু উত্তর ভারতেই দু'টি ফলনের মধ্যে যে ঘাটতি হয়, তার সমান পরিমাণ খড় জার্মানিতে পাওয়া যায়৷ ভারত, ব্রাজিল ও আফ্রিকায় আমরা এই প্রযুক্তির বিপুল সম্ভাবনা দেখতে পাচ্ছি৷ ১০ থেকে ৩০টি বাড়ির জন্য ৩০ কিলোওয়াটের ছোট ইউনিট থেকে শুরু করে ছোটখাটো শহরের চাহিদা পূরণ করা সম্ভব হবে৷''

এই প্লান্টে তৈরি উচ্চ মানের তেল ও গ্যাস স্থানীয় বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রে এক জেনারেটারের মাধ্যমে বিদ্যুৎ ও উত্তাপে রূপান্তরিত করা সম্ভব৷ এই প্রযুক্তি প্রয়োগ করলে অত্যন্ত কম জায়গায় জ্বালানি উৎপাদন করা সম্ভব৷

পরিবেশের ক্ষতি না করে নতুন এই প্রযুক্তি জ্বালানি উৎপাদন করে৷ বিদ্যুৎ সংযোগ না থাকলে বা সৌর ও বায়ুশক্তির ঘাটতি পূরণ করতে এটি কাজে লাগানো যায়৷ শুধু অরগ্যানিক বর্জ্য থেকেই তা করা সম্ভব৷

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

সংশ্লিষ্ট বিষয়