1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

অন্বেষণ

ফ্লামেংকো নাচের পীঠস্থানে অভিনব অভিজ্ঞতা

ফ্লামেংকো নাচ স্পেনের গণ্ডি পার হয়ে গোটা বিশ্বের জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে৷ ডয়চে ভেলের এক সহকর্মী হাতেনাতে সেই নাচের স্বাদ পেতে ও তা আরও ভালোভাবে শিখতে স্পেনের গ্রানাদা শহরের এক স্কুলে গিয়েছিলেন৷

কিছুটা বিষাদমাখা সুর, উচ্ছ্বাস আর আবেগের ফোয়ারা – এই হলো ফ্লামেংকো৷ সংগীত ও নৃত্যের বৈচিত্র্যময় সম্ভার৷ ফ্লামেংকো সংস্কৃতির অন্যতম পীঠস্থান স্পেনের আন্দালুসিয়া অঞ্চলের শহর গ্রানাদা৷ কয়েক’শো বছর ধরে আরব বাদশাহরা এখানে রাজত্ব করেছেন৷ আলহামব্রা প্রাসাদ ছিল তাঁদের ক্ষমতাকেন্দ্র, যা এখন শহরের মূল আকর্ষণ৷ আরব সংগীতের প্রভাবও থেকে গেছে, যার স্বাদ ফ্লামেংকোর মধ্যে পাওয়া যায়৷ অনেক বিখ্যাত ফ্লামেংকো সংগীত ও নৃত্যশিল্পী এই শহরেরই মানুষ৷ ডয়চে ভেলের ইউরোমাক্স অনুষ্ঠানের প্রতিনিধি মারিয়া গ্রুনভাল্ড বলেন, ‘‘গ্রানাদা শহরে আমি বুলেরিয়া শিখতে চাই৷ এটা ফ্লামেংকোরই কিছুটা চনমনে ও মেয়েলি রূপ৷ অ্যামেচারদের কাছে বেশ জনপ্রিয়৷ আমিও শখের ফ্লামেংকো নর্তকী৷ আশা করি, এখানে পেশাদারদের কাছ থেকে কিছু শিখবো৷ অতএব, আর দেরি নয়৷’’

ভিডিও দেখুন 04:33

ফ্লামেংকো নাচের পীঠস্থানে অভিনব অভিজ্ঞতা

শহরের সাক্রোমন্টে এলাকায় নাচের স্কুল, স্প্যানিশ ভাষায় যার অর্থ পবিত্র পাহাড়৷ এককালে এখানে ‘খিটানো’ বা জিপসিদের বসবাস ছিল৷ তারা ছিল ‘সিন্টি’ ও ‘রোমা’ সম্প্রদায়ের অভিবাসী৷ ফ্লামেংকোর উপর তাদের বিপুল প্রভাব রয়েছে৷ অনেক গুহার মধ্যে একটিতে নাচের স্কুল৷ মাত্র ১৬ বছর বয়সে পেশাদারী নৃত্যশিল্পী হিসেবে কাজ শুরু করেছিলেন ভিওলেটা রুইস৷ আজ দেশে-বিদেশে নাচ দেখান তিনি৷ তাঁর বাবাও ছিলেন বিখ্যাত ফ্লামেংকো গিটারিস্ট৷ হাততালি দিয়ে নাচ শুরু হয়৷

ভিয়োলেটা ঠিক করেছেন, এ ভাবেই নাচ শুরু হয়৷ বুলেরিয়া শৈলির কিছু নিজস্ব পায়ের স্টেপ রয়েছে, কিন্তু কোনো বাঁধাধরা নিয়ম নেই৷ অবস্থা অনুযায়ী তাৎক্ষণিকভাবে তা স্থির করতে হয়৷ প্রাথমিক জ্ঞান না থাকলে সে সব রপ্ত করা কঠিন৷

আচমকা একাই নাচের সুযোগ দিলেন শিক্ষিকা৷ একই ‘স্টেপ’ বা পায়ের কাজ বার বার অভ্যাস করার পর মনে একটু সাহস আসে৷ ভিওলেটা স্প্যানিশ চরিত্র অনুযায়ী আড়ষ্টতা ভেঙে অন্তরের আবেগ প্রকাশ করার উপর জোর দেন৷ বুলেরিয়া শৈলির ভিত্তিই হলো ব্যঙ্গ-বিদ্রূপ, কোনো বিষয় – এমনকি নিজেকেও গুরুত্ব না দেওয়াই এর লক্ষ্য৷ ধীরে ধীরে আড়ষ্টতা ভাঙার পালা৷

কিন্তু প্রশ্ন হলো, এত অনুশীলনের পরেও কীসের অভাব লক্ষ্য করা যাচ্ছে? নাচের শিক্ষিকা বলেন, ‘‘তালের অভাব রয়েছে, যা ফ্লামেংকো, বিশেষ করে বুলেরিয়ার সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়৷ গিটার ও গানের দিকে খেয়াল রাখতে হবে৷ জানতে হবে, নর্তকী হিসেবে কখন শুরু করবে, মুদ্রা দেখাবে, বেদায় নেবে৷’’

সংগীতে সঙ্গ দিতে এলেন আন্তোনিও এল তুরি৷ তিনিও অবস্থা অনুযায়ী কখনো গান প্রলম্বিত করেন, কখনো কমিয়ে দেন৷ গানের তাল অনুযায়ী নাচ শুরু হয়, কিন্তু এবার সেই তাল কেটে গেল৷ ভিওলেটা তাল ঠিক করতে সাহায্য করছেন৷ অবশেষে তাতে কাজ হয়েছে৷ তারপর একক নাচের পালা৷ কারণ বুলেরিয়া একাই নাচতে হয়৷ চনমনে, আনন্দময় আবেগের কারণে সাধারণত ফ্লামেংকো শো-র শেষে এই নাচ রাখা হয়৷ এবার দর্শকদের সামনে নাচ দেখানোর পালা৷

শহরের একটি বারে প্রতি সন্ধ্যায় ফ্লামেংকো সংগীত ও নাচের আসর বসে৷ গ্রানাদা শহরে এমন একাধিক পানশালা রয়েছে৷ ভিওলেটা রুইস বারের মালিক এবং একইসঙ্গে নর্তকীও৷ তাঁর নাচের পর মঞ্চে যাবার পালা, অতএব মুখের হাসির আড়ালে ভয় তো থাকবেই৷ একটু দেরি হয়ে গেছে৷ যাই হোক, নিজেকে তেমন গুরুত্ব না দেবার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেললে আর সমস্যা কী! মারিয়া গ্রুনভাল্ড বলেন, ‘‘আমার বুলেরিয়া নাচ প্রত্যাশামতো ভালো হয় নি৷ তবে খুব মজা হয়েছে, অবস্থা অনুযায়ী আমি তাৎক্ষণিকভাবে নাচতে পেরেছি৷ এটাই তো ফ্লামেংকো!’’

এতক্ষণের উত্তেজনার পর এবার বাকি সন্ধ্যাটা উপভোগ করার সময় এসে গেছে৷

মারিয়া গ্রুনভাল্ড/এসবি

নির্বাচিত প্রতিবেদন

ইন্টারনেট লিংক

এই বিষয়ে অডিও এবং ভিডিও