1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ফ্রিল্যান্সিং করুন, তবে সতর্কতার সঙ্গে

বাংলাদেশে ফ্রিল্যান্সিং দিন দিন জনপ্রিয় হচ্ছে৷ তবে একে এগিয়ে নিতে সরকারের আরও সহযোগিতা প্রয়োজন বলে মনে করেন ব্লগাররা৷ এছাড়া আউটসোর্সিং করতে গিয়ে যেন কেউ প্রতারণার শিকার না হন সেজন্য সতর্ক হওয়ার পরামর্শও দিয়েছেন কেউ কেউ৷

ব্লগার রাগিব নিযাম মনে করেন ফ্রিল্যান্সিং বা আউটসোর্সিং হলো একটা স্বাধীন পেশা, যেটা ব্যবসার মতো ঝুঁকিপূর্ণ নয়, আবার চাকরির মতো একঘেঁয়েও নয়৷ তাই তিনি সবাইকে এর প্রতি আগ্রহী হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন৷ এছাড়া ফ্রিল্যান্সিংয়ের আদ্যোপান্ত, অর্থাৎ কীভাবে শুরু করা যেতে পারে, কোথায় যাওয়া যেতে পারে, এ ধরণের পরামর্শমূলক কিছু তথ্য দিয়ে সামহয়্যার ইন ব্লগে নিযাম একটি পোস্ট দিয়েছেন৷

আউটসোর্সিং-এর সম্ভাবনার কথা উল্লেখ করে ব্লগার নিযাম এই খাতকে এগিয়ে নিতে সরকারকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন৷ তিনি লিখেছেন , ‘‘...সরকার যদি শিক্ষা বিভাগে আরো জোর দিয়ে সরকারি-বেসরকারি স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসায় ইংরেজির মান বাড়ায়, ঘরে রক্ষণশীলতায় বসে থাকা শিক্ষিত মেয়ে, গৃহবধুদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং ফ্যাসিলিটিজ বাড়ায়, তাহলে এই খাত থেকে যে পরিমাণ রেমিটেন্স আয় হবে প্রবাসীদের পাঠানো অর্থের পরিমাণ হবে সেই আয়ের ৩০ শতাংশ!''

ফ্রিল্যান্সিং বা আউটসোর্সিং শেখার উপায় নিয়ে সামহয়্যার ইন ব্লগে বিভিন্ন সময় অনেকে ব্লগ পোস্ট করেছেন৷

তবে অন্যান্য অনেক খাতের মতো এই খাতে কাজ করতে গিয়েও প্রতারণার শিকার হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে৷ ব্লগার সোহেল হোসেন তাই এ সম্পর্কিত একটি পোস্ট লিখে সবাইকে সতর্কতা অবলম্বন করার পরামর্শ দিয়েছেন৷ সামহয়্যার ইন ব্লগে গত বছর প্রকাশিত তাঁর পোস্টের শিরোনাম ‘‘ফ্রিল্যান্সিং আউটসোর্সিংয়ে নতুন প্রতারণার ফাঁদ - সতর্ক হওয়ার এখনই সময়''৷

এদিকে, মো: ইলিয়াসের ‘‘আউটসোর্সিং ও ফ্রিল্যান্সিংয়ের নামে সাইবারক্রাইম - গন্তব্য বাংলাদেশ?'' শীর্ষক ব্লগ পোস্টে এ সংক্রান্ত আরেকটি তথ্য পাওয়া গেল৷ সামহয়্যার ইন ব্লগে গত বছর মে মাসে প্রকাশিত এই পোস্টটি রাগিব হাসানের লেখা থেকে নেয়া৷ পোস্টে বলা হয়েছে, ‘‘বাংলাদেশে এখন আউটসোর্সিংয়ের হাওয়া চলছে৷ পত্রপত্রিকায় নানা উদ্যোক্তার সাফল্যের কথা পড়ে ঝাঁপিয়ে পড়ছে সবাই৷ কিন্তু প্রস্তুতি না নিয়ে ও ভালোমতো না জেনে যোগ দেয়া অনেক তরুণই সাইবার ক্রাইম বা ইন্টারনেটভিত্তিক অপরাধচক্রের হয়ে কাজ করছে, জেনে বা না জেনে৷'' কীভাবে সেটা হচ্ছে, তার বিস্তারিত বিবরণ পাওয়া যাবে পোস্টটিতে৷

সংকলন: জাহিদুল হক

সম্পাদনা: আশীষ চক্রবর্ত্তী

নির্বাচিত প্রতিবেদন