1. Inhalt
  2. Navigation
  3. Weitere Inhalte
  4. Metanavigation
  5. Suche
  6. Choose from 30 Languages

বিশ্ব

ফোরকান মল্লিকের মৃত্যুদণ্ডে নিরব ফেসবুক, টুইটার

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধে কারো ফাঁসি হলে সেটা নিয়ে সাধারণত নানাবিধ আলোচনা, সমালোচনা হয়৷ তবে ফোরকান মল্লিকের ক্ষেত্রে ব্যতিক্রম দেখা যাচ্ছে৷ তার মৃত্যুদণ্ড নেই কোনো প্রতিক্রিয়া৷

Internationales Gericht in Dhaka Bangladesch ARCHIVBILD

প্রতীকী ছবি

বাংলাদেশে মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে হত্যা, ধর্ষণের মতো অপরাধে জড়িত থাকার অপরাধে মৃত্যুদণ্ড দেয়া হয়েছে ফোরকান মল্লিককে৷ ঢাকার আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল বৃহস্পতিবার এই রায় ঘোষণা করে৷ ডয়চে ভেলের পক্ষ থেকে রায়ের প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হয়েছিল ফেসবুকে ৷ সাধারণত এ ধরনের রায়ে অনেক প্রতিক্রিয়া আসে৷ কিন্তু মল্লিকের ক্ষেত্রে বেশ ব্যতিক্রম লক্ষ্য করা যাচ্ছে৷ ডয়চে ভেলের প্রশ্নের উত্তরে মন্তব্য করেছেন প্রথম দু'ঘন্টায় মন্তব্য করেছেন মাত্র তিনজন৷

রাকিব আহমেদ লিখেছেন, ‘‘...একবার শেখ মুজিবুর রহমান ওদেরকে ক্ষমা করে দিয়েছে৷ এখন কেন হাসিনা ওদের বিচার করে ভাই? আপনারা কি জানেন কেন বিচার হয়?''

তবে মো. মফিজ খান মনে করেন, ‘‘মানবতাবিরোধী অপরাধের নায্য বিচার হওয়া দরকার এবং অতি তারাতারি৷'' আর সিদ্ধার্থ সরকার লিখেছেন, ‘‘আইনের মোড়কে রাষ্ট্রীয় হত্যা৷''

একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির দাবিতে সোচ্চার ব্লগাররাও ফোরকানের মৃত্যুদণ্ড নিয়ে নিরব রয়েছেন৷ রাজনৈতিক দল কিংবা আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলোর পক্ষ থেকেও কোনো প্রতিক্রিয়া নেই৷ টুইটারে এ সংক্রান্ত নিউজ প্রকাশ করা হয়েছে বিভিন্ন অ্যাকাউন্ট থেকে, তবে কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি৷

বাংলাদেশের স্থানীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে, ফোরকান মল্লিক দিনমজুর ছিলেন৷ এমনকি মৃত্যুদণ্ডের বিপক্ষে আপিল করার মতো আর্থিক সামর্থ্যও তার নেই বলে দাবি করেছেন ফোরকান মল্লিকের আইনজীবী৷

সংকলন: আরাফাতুল ইসলাম

সম্পাদনা: দেবারতি গুহ

নির্বাচিত প্রতিবেদন

সংশ্লিষ্ট বিষয়